"আসিফ মহিউদ্দীন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(SakilOsman-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে Al Riaz Uddin Ripon-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত)
ট্যাগ: পুনর্বহাল
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
=== বাল্যকাল ও শিক্ষা ===
 
আসিফ মহিউদ্দীন ঢাকার[[ঢাকা]]র একটি [[মুসলিম]] পরিবারে একজন মধ্যম পদমর্যাদার সরকারী চাকুরিজীবীর সন্তান হিসেবে জন্মগ্রহণ করেন ও পালিত হন।<ref name="imperiled2"/> তিনি বিদ্যালয় থেকে এসে মসজিদে ধর্মশিক্ষা গ্রহণ করতেন, সেই ব্যাপারে তিনি বলেন, "আমি অনেক হাস্যকর বিষয় শিখেছি - যেমন আমি স্বর্গে কুমারী লাভ করব, বা চিরকালের জন্য নরকে চূড়ান্ত শাস্তি ভোগ করব"।<ref name="imperiled2" /> তার পিতামাতার দুঃখের জন্য তিনি তাকে শেখানো ধর্মীয় রীতি নিয়ে বারবার প্রশ্ন উত্থাপন করতে থাকেন। তার এই গুরুতর প্রশ্নগুলো এবং শিক্ষকদের প্রশ্নের ভক্তিহীন উত্তরের জন্য তাকে প্রায়ই অনেক মার খেতে হয়েছে।<ref name="NOZ2">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.noz.de/deutschland-welt/medien/artikel/604035/darum-suchte-asif-mohiuddin-zuflucht-in-deutschland|শিরোনাম=Politkovskaja-Preis für Blogger: Darum suchte Asif Mohiuddin Zuflucht in Deutschland|লেখক=Thomas Klatt|কর্ম=[[Neue Osnabrücker Zeitung]]|তারিখ=7 August 2015|সংগ্রহের-তারিখ=6 May 2018|ভাষা=de}}</ref> ১৩ বছর বয়সে তিনি নিজেকে একজন [[নাস্তিক্যবাদ|নাস্তিক]] বলে ঘোষণা করেছিলেন।<ref name="imperiled2" />
 
আসিফ মহিউদ্দীন বিজ্ঞান সম্পর্কে পড়তে শুরু করেন এবং ১৬ বছর বয়স (২০০০ সাল) থেকে তিনি ঢাকার সংবাদপত্রগুলোতে [[ইসলামবাদ|ইসলামবাদীদের]] অবৈজ্ঞানিক দাবিগুলোকে চ্যালেঞ্জ করা শুরু করেন।<ref name="imperiled2" /> একটি বিজ্ঞান পত্রিকায় [[কুরআন|কুরআনে]] বর্ণিত অলৌকিক ঘটনাকে আধুনিক বিজ্ঞানের সাথে সংগতি আনার এবং যেভাবেই হোক যৌক্তিক বৈজ্ঞানিক পদ্ধতির দ্বারা একে ব্যাখ্যা করার প্রচেষ্টা নেয়া হয়েছে এমন একটি প্রবন্ধ পড়ার পর তার এই কাজ শুরু হয়। আসিফ মহিউদ্দীন এর প্রতিক্রিয়ায় একটি প্রবন্ধ লেখেন, যেখানে তিনি দাবি করেছিলেন, [[মুহাম্মাদ|নবী মুহাম্মাদের]] [[বোরাক|বোরাকে]] করে [[লাইলাতুল মেরাজ|স্বর্গে উড়ে যাওয়া]] বৈজ্ঞানিকভাবে অসম্ভব। এটি এবং ঢাকার বাংলা সংবাদপত্রগুলোতে তার অন্যান্য সমালোচনামূলক ও ব্যাজস্তুতিপূর্ণ প্রবন্ধ [[মুক্তচিন্তা|মুক্তমনা]] ও ধর্মীয় সমালোচক হিসেবে তার মর্যাদা বৃদ্ধি করে। এর ফলে তিনি অন্যান্য সমমনা অনলাইন সক্রিয় কর্মীদেরও সংস্পর্শে আসেন।<ref name="NOZ2"/><ref name="atheists2">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.youtube.com/watch?v=CYHOiBW5X98|শিরোনাম=Asif Mohiuddin – Freedom of Speech Means Freedom to Offend (2015 National Convention)|কর্ম=YouTube|প্রকাশক=Speech by Mohuiuddin at the [[American Atheists]] National Convention in Memphis, Tennessee|তারিখ=29 June 2015|সংগ্রহের-তারিখ=6 May 2018}}</ref>
১,২১৩টি

সম্পাদনা