"চিন্ময় লাহিড়ী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(হটক্যাটের মাধ্যমে বিষয়শ্রেণী:ভারতীয় সঙ্গীতজ্ঞ যোগ)
 
==জন্ম ও প্রারম্ভিক জীবন==
চিন্ময় লাহিড়ীর জন্ম ১৯২০ খ্রিস্টাব্দের ২০ শে মার্চ[[ বৃটিশ ভারত| বৃটিশ ভারতের]] অধুনা[[বাংলাদেশ| বাংলাদেশের]] পাবনারপাবনা জেলার [[সুজানগর উপজেলা|সুজানগর উপজেলার]] [[তাঁতীবন্দ জমিদার বাড়ি|তাঁতিবন্ধের জমিদার]] পরিবারে। পিতা জীবচন্দ্র লাহিড়ী পেশায় ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার এবং কর্মসূত্রে থাকতেন[[ লখনউ| লক্ষৌতে]]। মাতা সরোজবাসিনী দেবী। পড়াশোনা লক্ষৌয়ের বয়েজ অ্যাংলো ইণ্ডিয়ান স্কুলে। শৈশবে চিন্ময়ের আগ্রহ ছিল শরীরচর্চায় ও সঙ্গীতসাধনায়। মায়ের অনুপ্রেরণায় তিনি তাঁর তেরো বৎসর বয়সে সঙ্গীতচর্চাই শুরু করেন। ভাইয়ের মনোবাসনা পূরণ করতে তাঁর দাদা নিয়ে গেলেন বিখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ ও সেতার শিল্পী ধ্রুবতারা জোশীর কাছে। তিনি আবার নিয়ে যান ১৯২৬ খ্রিস্টাব্দে স্থাপিত মরিস কলেজ অব মিউজিক এর (বর্তমানে ভাতখণ্ডে মিউজিক ইনস্টিটিউট ডিমড ইউনিভার্সিটি) তৎকালীন অধ্যক্ষ পণ্ডিত শ্রীকৃষ্ণ রতন ঝংকারজির কাছে। তিনি জেদি ও আত্মবিশ্বাসী চিন্ময়ের আগ্রহ দেখে শিষ্য হিসাবে গ্রহণ করেন এবং চিন্ময়ও নিজের শ্রমে ও যথাযথ তালিমের গুণে অচিরেই পারদর্শী হয়ে ওঠেন।<ref name ="ABP">{{ওয়েব উদ্ধৃতি |শিরোনাম = "ভাঙা গলাতেই পণ্ডিতজিকে গেয়ে শোনালেন পাল্টা"|ইউআরএল =https://www.anandabazar.com/supplementary/rabibashoriyo/the-legacy-of-acharya-chinmoy-lahiri-1.1187396| সংগ্রহের-তারিখ = ১৭ আগস্ট ২০২০}}</ref >
 
==সংগীত জীবন ==