"দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(→‎প্রাচীন ইতিহাস: তথ্যসূত্র যোগ/সংশোধন)
(→‎ভূ-পরিচয়: সংশোধন)
এই কর্দমাক্ত সিক্ত বনাঞ্চল "বাদাবন" নামে পরিচিত।
গরাণ, গেঁওয়া, সুঁদরি, গর্জন, হেতাঁল, গোলপাতা, কেওড়া, ধোন্দল, পশুর, বাইন, কাদড়া, ওড়া, আমুড়, হদো, বেলাসুন্দরী, গিলে, বাকঝাকা ইত্যাদি সুন্দরবনের গাছপালা।
এছাড়া, শিঙ্গড়া, ভাদাল, গড়ে, খলসী, হিঙ্গে, গোলদাদ, হোগলা ইত্যাদি আগাছা এবং নানাবিধ বনৌষধি পাওয়া যায়।<ref নামে=ঘোষ২৭২>{{harvnb|ঘোষ|১৯৫৭১৯৮০|p=২৭২}}</ref>
 
১৮৩০ সালে ড্যাম্পিয়ার ও হজেস নামে দুই জন সার্ভে অফিসার সুন্দরবনের ব-দ্বীপ অঞ্চলের উত্তর সীমা নির্ধারণ করেন।