স্যামুয়েল মোর্স: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন (By FindAndReplace)
(হটক্যাটের মাধ্যমে বিষয়শ্রেণী:১৮৭২-এ মৃত্যু যোগ)
(সংশোধন (By FindAndReplace))
 
 
 
স্যামুয়েল এফবি মোর্স (২৭ এপ্রিল ১৭৯১-২ এপ্রিল ১৮৭২) একজন আমেরিকান উদ্ভাবক ও চিত্রশিল্পী ছিলেন। প্রথম জীবনে চিত্রশিল্পী হিসেবে সুনাম লাভের পর তিনি ইউরোপীয় টেলিগ্রাফব্যবস্থার উপর ভিত্তি করে এক-তার বিশিষ্ট টেলিগ্রাফ ব্যবস্থা উদ্ভাবন করেন। মোর্স কোডের উন্নয়নে তিনি ভূমিকা রাখেন। তাঁরতার হাত ধরেই টেলিগ্রাফ ব্যবহারের প্রসার ঘটে।
 
==ব্যক্তিগত জীবন==
 
স্যামুয়েল এফবি মোর্স মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের [[ম্যাসাচুসেটস]] অঙ্গরাজ্যের চার্লসটাউন শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ধর্মযাজক ও ভূগোলবিদ জেডিডায়ে মোর্স (১৭৬১-১৮২৬) এবং এলিজাবেথ অ্যান ফিনলি ব্রিজের (১৭৬৬-১৮২৬) প্রথম সন্তান। তাঁরতার পিতা ক্যালভিনিস্ট সম্প্রদায়ের অনুসারী ও আমেরিকান ফেডার‍্যালিস্ট পার্টির সমর্থক ছিলেন। জেডাইডা বিশ্বাস করতেন, ক্যালভিনিস্ট সম্প্রদায়ের পক্ষে সংস্কারপন্থী ঐতিহ্য বজায় রাখা সম্ভব হবে। এছাড়াও তিনি [[যুক্তরাজ্য|যুক্তরাজ্যের]] সঙ্গে ফেডার‍্যালিস্ট পার্টির মিত্রতাপূর্ণ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলেন। জেডাইডা শক্তিশালী এককেন্দ্রিক সরকারব্যবস্থায় বিশ্বাসী ছিলেন। তিনি তার সন্তান স্যামুয়েলের অন্তঃকরণে ফেডার‍্যালিস্ট ভাবধারা ও ক্যালভিনিস্ট মূল্যবোধের শিকড় প্রোথিত করেছিলেন। মোর্সদের প্রথম আমেরিকান পূর্বসূরির নাম-ও "স্যামুয়েল মোর্স", যিনি ১৬৩৫ সালে ম্যাসাচুসেটসের ডেডহ্যাম শহরে বসবাস করেন। <ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|url=http://archive.org/details/historichomesins01cran|title=Historic homes and institutions and genealogical and personal memoirs of Worcester county, Massachusetts, with a history of Worcester society of antiquity|first=Ellery Bicknell|last=Crane|date=12 October 2020|publisher=New York, Chicago: The Lewis Publishing Company|via=Internet Archive}}</ref>
 
ম্যাসাচুসেটসের অ্যান্ডওভার শহরের ফিলিপস একাডেমিতে প্রাথমিক শিক্ষালাভের পর ইয়েল কলেজে মোর্স লেখাপড়ার উদ্দেশ্যে গমন করেন। সেখানে তিনি ধর্মীয় দর্শন, গণিত ও অশ্ববিজ্ঞানের উপর পড়াশোনা করেন। ইয়েলে পড়াকালীন মোর্স বেঞ্জামিন সিলিম্যান ও জেরেমিয়াহ ডে প্রদত্ত বিদ্যুতের উপর ভাষণগুলো নিয়মিত শ্রবণ করতেন। এছাড়াও তিনি "ব্রাদার্স ইন ইউনিটি" নামে গুপ্তসংগঠনের সদস্য ছিলেন। ১৮১০ সালে তিনি ইয়েল থেকে সম্মানসহ স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন।