"নটর ডেম কলেজ, ঢাকা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন
(সংশোধন)
=== মাতা মেরী ===
[[চিত্র:Mata meri.jpg|থাম্ব|ডান|220px|কলেজের প্রবেশমুখে মেরীর কোলাজচিত্র]]
নটর ডেম কলেজের সবচেয়ে প্রতীকী স্থান হিসেবে বিবেচনা করা হয় মূল প্রবেশদ্বার থেকে কিছুটা সামনে [[মেরি, যিশুর মাতা|মেরীর]] কোলাজচিত্র “[[জ্ঞানের আসন]]” ({{lang-en|''Seat of Wisdom''}}) ও তৎসংলগ্ন এলাকা, যা সাধারণ শিক্ষার্থীদের কাছে ''মাতা মেরী'' নামেই জনপ্রিয়। ৬ ফুট × ৮ ফুটের এ কোলাজচিত্রটি “হ্যারিংটন ভবনের” পূর্বদিকে মুক্তভাবে স্থাপিত ভিত্তির ওপর প্রতিষ্ঠিত। প্রতিষ্ঠানটি যিশুর মা [[মেরি, যিশুর মাতা|মেরীর]] স্মৃতিতে উৎসর্গীকৃত বলে দীর্ঘসময় ধরে পরিকল্পনা করে কলেজটির একটি প্রতীক হিসেবে এটি তৈরি করা হয়েছে।
 
এতে দেখা যায়, [[মেরি, যিশুর মাতা|মেরী]] শিশু যিশুকে বর্ণমালা শিক্ষা দিচ্ছেন আর পাশ থেকে উজ্জ্বল “দীপ্তি” পুরো পরিবেশকে আলোকিত করে রেখেছে, যা [[খ্রিষ্ট ধর্ম|খ্রিষ্ট ধর্মমতানুযায়ী]] যিশুর পৃথিবীর আলোক উৎস হবার ধারণাকে প্রতীকায়িত করে। এতে মেরীকে সাধারণ [[শাড়ি|বাঙালি শাড়ি]] ও যিশুকে [[পায়জামা]]-[[পাঞ্জাবি]] পরে থাকতে দেখা যায়, যা তাদের শিক্ষার সার্বজনীনতাকে প্রতিনিধিত্ব করে।<ref group="টীকা">উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে শিক্ষার আসনরূপে কল্পনা করলে এতে দেখা যায়, [[যিশু]] তার আসন হিসেবে মেরীর কোলে বসে ধর্মগ্রন্থসহ জ্ঞানের সকল আঙ্গিনায় পদার্পণ করেছেন। তাই [[খ্রিষ্ট ধর্ম]]মত অনুযায়ী মেরীকে “জ্ঞানের আসন” ({{lang-en|Seat of Wisdom}}) বলে অভিহিত করা হয়।</ref>
 
=== গ্রন্থাগার ===
[[ চিত্র:নোভাক লাইব্রেরির ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন.jpg|থাম্ব|220px|''ফাদার রিচার্ড নোভাক মেমোরিয়াল লাইব্রেরি''র ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন]]
১৯৪৯ খ্রিষ্টাব্দে কলেজের প্রতিষ্ঠার সময় কলেজের অভ্যন্তরে “সেন্ট গ্রেগরিজ কলেজ লাইব্রেরি” নামে একটি [[গ্রন্থাগার]] প্রতিষ্ঠা করা হয়। পরবর্তীতে ১৯৫৪ খ্রিষ্টাব্দে কলেজের নাম পরিবর্তন করে ''নটর ডেম কলেজ'' রাখা হলে গ্রন্থাগারের নামও পরিবর্তন করে রাখা হয় “নটর ডেম কলেজ লাইব্রেরি”। কলেজের নতুন ভবনের (''আর্চবিশপ গাঙ্গুলী ভবন'') নির্মাণ কাজ শুরু হলে ১৯৯৫ খ্রিষ্টাব্দের ২১ আগস্ট গ্রন্থাগারটি কলেজের যুক্তিবিদ্যার প্রাক্তন অধ্যাপক রিচার্ড নোভাককে উৎসর্গ করে ''"ফাদার রিচার্ড নোভাক মেমোরিয়াল লাইব্রেরি"'' নাম রাখা হয়। ''ফাদার রিচার্ড নোভাক মেমোরিয়াল লাইব্রেরি'' উদ্বোধনকালে উপস্থিত ছিলেন - ঢাকার আর্চবিশপ মাইকেল রোজারিও, তৎকালীন বাংলাদেশ সরকারের [[পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় (বাংলাদেশ)|পরিকল্পনা মন্ত্রী]] [[আব্দুল মঈন খান]]।<ref name="লাইব্রেরি">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.ucanews.com/story-archive/?post_name=/1995/09/01/father-richard-novak-library-opened-by-his-brother-michael-novak&post_id=47899|শিরোনাম=Father Richard Novak Library opened by his brother Michael Novak|অনূদিত-শিরোনাম=ফাদার রিচার্ড নোভাক লাইব্রেরি উদ্বোধন করলেন তার ভাই মাইকেল নোভাক| ওয়েবসাইট=ইউসিএ নিউজ|ভাষা=ইংরেজি|তারিখ=১৯৯৫-০৮-৩১|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৭-০৩|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200703083054/https://www.ucanews.com/story-archive/?post_name=%2F1995%2F09%2F01%2Ffather-richard-novak-library-opened-by-his-brother-michael-novak&post_id=47899|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৭-০৩|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> ১৯৬৪ খ্রিষ্টাব্দের [[১৯৬৪ পূর্ব পাকিস্তান দাঙ্গা|সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা]] চলাকালীন ১৬ জানুয়ারি রিচার্ড নোভাক একটি পরিবারকে দেখতে সাইকেল নিয়ে [[নারায়ণগঞ্জ]] যাবার পথে নৌকায় [[শীতলক্ষ্যা নদী]] পার হবার সময় উগ্রবাদীদের হাতে পড়েন এবং তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে মৃতদেহ ফেলে দেয়া হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://www.michaelnovak.net/news/remembering-father-richard-novak |শিরোনাম=The Day My Brother Was Murdered|অনূদিত-শিরোনাম=আমার ভাইকে হত্যার দিন |ওয়েবসাইট=মাইকেল নোভাকের আনুষ্ঠানিক ওয়েবসাইট |ভাষা=ইংরেজি |সংগ্রহের-তারিখ=2020-05-17}}</ref><ref>{{বই উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://www.worldcat.org/oclc/880376603|শিরোনাম=The making of a martyr : Father Richard Novak|অনূদিত-শিরোনাম=একজন শহীদের উত্থান:ফাদার রিচার্ড নোভাক, সিএসসি |শেষাংশ=নোভাক |প্রথমাংশ=ম্যারি অ্যান |তারিখ=৫ ডিসেম্বর ২০১৩ |প্রকাশক=দ্য নোভাক ফ্যামিলি ফাউন্ডেশন |অবস্থান=মেরিলভিলে, ইন্ডিয়ানা |asin=B00HCIORA2 |আইএসবিএন=9781494439668 |oclc=880376603 |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর}}</ref> রিচার্ড নোভাকের বড় ভাই [[মাইকেল নোভাক]] একজন প্রখ্যাত মার্কিন লেখক, তার লেখা ও সংগ্রহের অনেক বই এই গ্রন্থাগারে দান করেছিলেন এবং আমৃত্যু গ্রন্থাগারের জন্য নিয়মিত অর্থ অনুদান দিয়ে গেছেন। ১৯৯৪ খ্রিষ্টাব্দে [[টেম্পলটন পুরস্কার|টেম্পলটন পুরস্কারের]] অর্থের একটি অংশও তিনি গ্রন্থাগারে দান করেন। এছাড়া নতুন গ্রন্থাগার-কক্ষ নির্মাণের জন্যও তিনি অনুদান দেন।<ref name="লাইব্রেরি"/>
 
=== উৎসব ===
নটর ডেম কলেজে কেন্দ্রীয়ভাবে আয়োজিত নিয়মিত উৎসবগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড় উৎসব হচ্ছে - ''নবীনবরণ''।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.prothomalo.com/bangladesh/article/891526/%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B0-%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%AE%E0%A7%87-%E0%A6%86%E0%A6%A8%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%98%E0%A6%A8-%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A7%80%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A6%B0%E0%A6%A3|শিরোনাম=নটর ডেমে আনন্দঘন নবীনবরণ|ওয়েবসাইট=প্রথম আলো|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-১৭|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200617124344/https://www.prothomalo.com/bangladesh/article/891526/%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B0-%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%AE%E0%A7%87-%E0%A6%86%E0%A6%A8%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A6%98%E0%A6%A8-%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A7%80%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A6%B0%E0%A6%A3|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৬-১৭|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref>
২০১৬ খ্রিষ্টাব্দের ১৩ জুন [[মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর|ইউএস ডিপার্টমেন্ট অব স্টেটের]] সহযোগিতায় নটর ডেম কলেজে “আইসিটি দিবস” উপলক্ষে তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক প্রকল্প প্রদর্শনী ও আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে [[মুহম্মদ জাফর ইকবাল]], [[মোহাম্মদ কায়কোবাদ]]-সহ বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য প্রযুক্তিবিদগণ যোগ দিয়েছিলেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.prothomalo.com/technology/article/888337/%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B0-%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%AE-%E0%A6%95%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9C%E0%A7%87-%E0%A6%86%E0%A6%87%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%9F%E0%A6%BF-%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%AC%E0%A6%B8-%E0%A6%AA%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A6%A4|titleশিরোনাম=নটর ডেম কলেজে আইসিটি দিবস পালিত|লেখক=|তারিখ=|কাজ=প্রথম আলো|সংগ্রহের-তারিখ=২০ জুন ২০২০|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20181222110344/https://www.prothomalo.com/technology/article/888337/%e0%a6%a8%e0%a6%9f%e0%a6%b0-%e0%a6%a1%e0%a7%87%e0%a6%ae-%e0%a6%95%e0%a6%b2%e0%a7%87%e0%a6%9c%e0%a7%87-%e0%a6%86%e0%a6%87%e0%a6%b8%e0%a6%bf%e0%a6%9f%e0%a6%bf-%e0%a6%a6%e0%a6%bf%e0%a6%ac%e0%a6%b8-%e0%a6%aa%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a6%bf%e0%a6%a4|আর্কাইভের-তারিখ=২২ ডিসেম্বর ২০১৮|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> ২ ডিসেম্বর, ২০১৭ খ্রিষ্টাব্দে খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা [[পোপ|পোপ ফ্রান্সিস]] নটর ডেম কলেজ পরিদর্শনে আসেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.thedailystar.net/bangla/%E0%A6%B6%E0%A7%80%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B7-%E0%A6%96%E0%A6%AC%E0%A6%B0/%E0%A6%AB%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%A4-%E0%A6%A8%E0%A6%BE-%E0%A6%A5%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%A4%E0%A6%B0%E0%A7%81%E0%A6%A3%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF-%E0%A6%AA%E0%A7%8B%E0%A6%AA%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%86%E0%A6%B9%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%A8-86440|শিরোনাম=ফোনে মত্ত না থাকতে তরুণদের প্রতি পোপের আহ্বান|শেষাংশ=|প্রথমাংশ=|তারিখ=২০১৭-১২-০৩|ওয়েবসাইট=দ্য ডেইলি স্টার|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-২৪|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20180311015421/http://www.thedailystar.net/bangla/%E0%A6%B6%E0%A7%80%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%B7-%E0%A6%96%E0%A6%AC%E0%A6%B0/%E0%A6%AB%E0%A7%8B%E0%A6%A8%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%A4-%E0%A6%A8%E0%A6%BE-%E0%A6%A5%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%A4%E0%A6%B0%E0%A7%81%E0%A6%A3%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF-%E0%A6%AA%E0%A7%8B%E0%A6%AA%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%86%E0%A6%B9%E0%A7%8D%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%A8-86440|আর্কাইভের-তারিখ=২০১৮-০৩-১১|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref><ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.samakal.com/bangladesh-others/article/171292/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A7%9F-%E0%A6%A6%E0%A6%BE%E0%A6%93-%E0%A6%A4%E0%A6%B0%E0%A7%81%E0%A6%A3%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%8B%E0%A6%AA-|শিরোনাম=মা-বাবাকে সময় দাও, তরুণদের পোপ|শেষাংশ=|প্রথমাংশ=|তারিখ=২০১৭-১২-০২|ওয়েবসাইট=সমকাল|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-২৪|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20171205193303/http://www.samakal.com/bangladesh-others/article/171292/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A7%9F-%E0%A6%A6%E0%A6%BE%E0%A6%93-%E0%A6%A4%E0%A6%B0%E0%A7%81%E0%A6%A3%E0%A6%A6%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%8B%E0%A6%AA-|আর্কাইভের-তারিখ=২০১৭-১২-০৫|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> এ উপলক্ষে একটি যুব সমাবেশের আয়োজন করা হয়। দশ হাজারেরও বেশি তরুণ-তরুণী এতে অংশগ্রহণ করেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.dhakatribune.com/bangladesh/dhaka/2017/12/02/pope-francis-mobile-phone|শিরোনাম=‘Spend more time with family, less on digital devices’|ভাষা=ইংরেজি|অনূদিত-শিরোনাম=‘পরিবারকে আরও সময় দাও, ডিজিটাল যন্ত্রে কম দাও’|শেষাংশ=|প্রথমাংশ=|তারিখ=২০১৭-১২-০২|ওয়েবসাইট=ঢাকা ট্রিবিউন|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-২৪|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20191109065558/http://www.dhakatribune.com/bangladesh/dhaka/2017/12/02/pope-francis-mobile-phone/|আর্কাইভের-তারিখ=২০১৯-১১-০৯|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref><ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.asianews.it/news-en/Young-Bangladeshis-say-they-are-the-future-of-the-world,-in-freedom-and-harmony-(video)-42485.html|শিরোনাম=Young Bangladeshis say they are the future of the world, in freedom and harmony|ভাষা=ইংরেজি|অনূদিত-শিরোনাম=স্বাধীনতা ও সম্প্রীতিতে তরুণ বাংলাদেশিরা বিশ্বের ভবিষ্যৎ|ওয়েবসাইট=এশিয়ানিউজ|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-২৪|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20190917171423/http://www.asianews.it/news-en/Young-Bangladeshis-say-they-are-the-future-of-the-world,-in-freedom-and-harmony-(video)-42485.html|আর্কাইভের-তারিখ=২০১৯-০৯-১৭|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> ২০১৮ খ্রিষ্টাব্দের ২০ ফেব্রুয়ারি [[আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস]] উপলক্ষে নটর ডেম কলেজ “মায়ের কাছে মায়ের ভাষায় চিঠি” লেখার আয়োজন করে, যাতে ৩১০০ শিক্ষার্থী তাদের মায়ের কাছে চিঠি লেখে যেগুলো পরবর্তীতে ডাকযোগে প্রেরণ করা হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.prothomalo.com/pachmisheli/article/1438381/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%9A%E0%A6%BF%E0%A6%A0%E0%A6%BF|শিরোনাম=মায়ের কাছে ছেলের চিঠি|ওয়েবসাইট=প্রথম আলো|ভাষা=bn|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-১৯|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20180705052818/http://www.prothomalo.com/pachmisheli/article/1438381/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A7%9F%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%9B%E0%A7%87-%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%9A%E0%A6%BF%E0%A6%A0%E0%A6%BF|আর্কাইভের-তারিখ=২০১৮-০৭-০৫|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> “৩৯তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ” এবং “বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড ২০১৮” উপলক্ষে ঢাকা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নটর ডেম কলেজ প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী বিজ্ঞান মেলা ও ঢাকা জেলা পর্যায়ের অলিম্পিয়াড অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রীয়ভাবে আয়োজিত হলেও নটর ডেম বিজ্ঞান ক্লাব এতে সক্রিয় সহযোগিতা করে।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.banglatribune.com/my-campus/news/306331|শিরোনাম=নটরডেম কলেজে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ উদযাপন|লেখক=|তারিখ=|কর্ম=বাংলা ট্রিবিউন|সংগ্রহের-তারিখ=২৭ জুন ২০২০|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200628212826/https://www.banglatribune.com/my-campus/news/306331|আর্কাইভের-তারিখ=২৮ জুন ২০২০|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দের “জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডের” পাঁচ জেলার সমন্বয়ে হওয়া আঞ্চলিক পর্বও এ প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.dhakatribune.com/uncategorized/2015/01/09/hundreds-ignited-minds-dreams-blossom|শিরোনাম=Hundreds ignited minds dreams blossom|ভাষা=ইংরেজি|অনূদিত-শিরোনাম=শত প্রজ্জ্বলিত প্রাণ স্বপ্নের পরিস্ফূরণ|তারিখ=২০১৫-০১-০৯|ওয়েবসাইট=ঢাকা ট্রিবিউন |সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৭-০৫|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200706054022/https://www.dhakatribune.com/uncategorized/2015/01/09/hundreds-ignited-minds-dreams-blossom|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৭-০৬|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে নটর ডেম কলেজ প্রাঙ্গণে কর্তৃপক্ষের পৃষ্ঠপোষকতায় দুই দিনব্যাপী [[বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র|বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের]] “বইপড়া কর্মসূচির” পুরস্কার বিতরণী উৎসবে ঢাকার ২৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৯৯৮ শিক্ষার্থীকে পুরস্কৃত করা হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.ittefaq.com.bd/print-edition/city/31737/বিশ্ব-সাহিত্য-কেন্দ্রের-পুরস্কার-বিতরণ--উত্সব|শিরোনাম=বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের পুরস্কার বিতরণ উত্সব {{!}} রাজধানী|ওয়েবসাইট=[[দৈনিক ইত্তেফাক]]|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৭-০৫|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20190226171046/http://www.ittefaq.com.bd/print-edition/city/31737/%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%B6%E0%A7%8D%E0%A6%AC-%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%B9%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%AF-%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A6%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%B0%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A6%B0%E0%A6%A3--%E0%A6%89%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B8%E0%A6%AC|আর্কাইভের-তারিখ=২০১৯-০২-২৬|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> তাছাড়া একুশে ফেব্রুয়ারি, বসন্ত বরণসহ<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.kalerkantho.com/online/national/2018/02/16/603016|শিরোনাম=নটর ডেম কলেজে অনুষ্ঠিত হলো বসন্তবরণ উৎসব|ওয়েবসাইট=[[দৈনিক কালের কণ্ঠ]]|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৭-০৪|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200704154611/https://www.kalerkantho.com/online/national/2018/02/16/603016|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৭-০৪|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> প্রায় প্রতিটি জাতীয় ও জনসচেতনতামূলক<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.observerbd.com/details.php?id=229366|শিরোনাম=Mass awareness, good lifestyle can prevent cancer|ভাষা=ইংরেজি|অনূদিত-শিরোনাম=জনসচেতনতা, সুন্দর জীবনধারা ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে পারে|ওয়েবসাইট=[[দ্য ডেইলি অবজার্ভার]]|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৭-১০|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200710123750/https://www.observerbd.com/details.php?id=229366|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৭-১০|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> দিবস উপলক্ষেই উৎসবের আয়োজন করা হয়।
 
বাংলাদেশের প্রথম বিতর্ক সংগঠন<ref name="নির্দেশিকা"/> নটর ডেম ডিবেটিং ক্লাব ১৯৮২ খ্রিষ্টাব্দে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো “এনডিডিসি ন্যাশনালস” নামে জাতীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা আয়োজন করে, যা এখন পর্যন্ত ধারাবাহিকভাবে চলছে। তাছাড়া বাংলাদেশে ''ডিবেটার্স লীগ'' নাম দিয়ে বিতর্কে নতুন লীগ পদ্ধতির সূচনা করে এ সংগঠনটি।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.prothomalo.com/education/article/1438581/%E0%A6%AF%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A6%9E%E0%A7%8D%E0%A6%9A-%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A6%89-%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A7%9C%E0%A7%87-%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%A8%E0%A6%BE|শিরোনাম=যে মঞ্চ কেউ ছেড়ে যায় না|লেখক=|তারিখ=|কর্ম=প্রথম আলো|সংগ্রহের-তারিখ=২০ জুন ২০২০|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20180703005016/http://www.prothomalo.com/education/article/1438581/%E0%A6%AF%E0%A7%87-%E0%A6%AE%E0%A6%9E%E0%A7%8D%E0%A6%9A-%E0%A6%95%E0%A7%87%E0%A6%89-%E0%A6%9B%E0%A7%87%E0%A7%9C%E0%A7%87-%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A7%9F-%E0%A6%A8%E0%A6%BE|আর্কাইভের-তারিখ=৩ জুলাই ২০১৮|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> ''সংবিধান প্রণেতা'' খ্যাত আইনজীবী ড. কামাল হোসেন এ সংগঠনের বিতার্কিক ছিলেন।<ref name="প্রথম আলোয় কামাল" /> ২০১৫ খ্রিষ্টাব্দে ''নটর ডেম নেচার স্টাডি ক্লাব'' আয়োজিত ''৬ষ্ঠ জাতীয় প্রকৃতি উৎসব'' এ সহযোগী সংগঠন হিসেবে পরিবেশ সংরক্ষণে কাজ করা আন্তর্জাতিক সংগঠন [[প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্য আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন|আইইউসিএন]] তাদের ''বাংলাদেশের বিপদাপন্ন প্রজাতি তালিকা হালনাগাদ প্রকল্পের'' ({{lang-en|''Updating the Species Red List of Bangladesh project''}}) আওতায় সহশিক্ষা সংগঠনটির সাথে পরিবেশ সংরক্ষণে তরুণ প্রজন্মকে সক্রিয়ভাবে যুক্ত করার উদ্দেশ্যে কর্মশালা, মুক্ত আলোচনাসহ বিস্তৃত কর্মযজ্ঞের আয়োজন করে। উৎসবটিতে বাংলাদেশের প্রায় ৯০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সহস্রাধিক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.iucn.org/zh-hans/node/18663|শিরোনাম=IUCN Red List of Threatened Species inspire Bangladeshi youth to conserve nature|তারিখ=২০১৫-১০-১৪|ওয়েবসাইট=আইইউসিএন|ভাষা=zh-hans|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৭-১৩}}</ref>
==সামাজিক কার্যক্রম==
=== কাজের বিনিময়ে অধ্যয়ন কর্মসূচি ===
নটর ডেম কলেজে অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের সহায়তা করার জন্য "কাজের বিনিময়ে অধ্যয়ন" বা ''নটর ডেম কলেজ ওয়ার্ক প্রোগ্রাম'' নামে ব্যবস্থা রয়েছে। অন্যান্য সামাজিক কর্মসূচির মতো এটিও ১৯৭২ খ্রিষ্টাব্দে শুরু হয়। কর্মসূচিটি মূলত শুরু করেন তৎকালীন অধ্যক্ষ জে এস পিশোতো। তাকে সহায়তা করেছিলেন প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বে থাকা আরো দুই ধর্মযাজক টিম বেনাস ও স্টিভ গোমেজ। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে থাকা খ্রিষ্টান ধর্মযাজক ও বিদ্যালয়গুলোর সুপারিশে প্রতি বছর মে-জুন মাসে নয় দিনের শ্রমসাধ্য ''পরীক্ষামূলক কর্ম-অধিবেশন'' বা ''ট্রায়াল ওয়ার্ক সেশনের'' মাধ্যমে এই প্রকল্পের জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচন করা হয়। নির্বাচনকালে শিক্ষার্থীর ব্যক্তিত্ব, মেধা, প্রয়োজন, কর্মীসুলভ মনোভাব প্রভৃতি যাচাই করা হয়। এই কর্মসূচির একজন পরিচালক, তত্ত্বাবধান ও বাস্তবায়নের জন্য কয়েকজন সহকারী নিয়োজিত থাকেন। কর্মসূচিতে নির্বাচিত শিক্ষার্থীরা গবেষণাগার সহকারী, অফিসের হিসাবরক্ষক, নিরাপত্তারক্ষী, টেলিফোন অপারেটর, বাগান পরিচর্যা এমনকি পরিচ্ছন্নতাকর্মীর দায়িত্বও পালন করে থাকে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনায় [[কারিতাস]]সহ বিভিন্ন [[মানবাধিকার সংস্থা]]য় গিয়ে প্রতি সপ্তাহে তাদের কাজে সাহায্যও করে থাকে। প্রতিষ্ঠানের অধিকাংশ বর্তমান কর্মচারী এই প্রকল্পের মাধ্যমেই নির্বাচিত।<ref name="নির্দেশিকাকালের কণ্ঠ" /><ref name="কালের কণ্ঠনির্দেশিকা" /> কাজের বিনিময়ে অধ্যয়ন ব্যবস্থার অধীনে প্রায় ১২৫জন ছাত্র তাদের লেখাপড়া ও থাকার ব্যয় নির্বাহ করে।<ref name="বাংলাপিডিয়া"/>
 
=== নটর ডেম লিটারেসি স্কুল ===
| caption3 = [[প্রধানমন্ত্রী]] [[শেখ হাসিনা]]র কাছ থেকে অধ্যক্ষ হেমন্ত পিউস রোজারিও’র পদক গ্রহণ
}}
নটর ডেম কলেজ এ যাবৎ চারবার (১৯৫৯, ১৯৮৮, ১৯৯২, ১৯৯৭ খ্রিষ্টাব্দে) জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। পাকিস্তান আমলে ১৯৫৯ খ্রিষ্টাব্দে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পরীক্ষায় প্রশংসনীয় সাফল্য লাভের জন্য প্রতিষ্ঠানটি তৎকালীন [[পূর্ব পাকিস্তান|পূর্ব পাকিস্তানের]] শ্রেষ্ঠ কলেজ হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। ১৯৫২ থেকে ১৯৫৯ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত একটানা সাতবার প্রতিষ্ঠানটি [[উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট]] পরীক্ষায় প্রথম স্থান অধিকার করে।<ref name="বাংলাপিডিয়া" /> দেশ স্বাধীনের পর শিক্ষা বিস্তারের স্বীকৃতিস্বরূপ ১৯৮৮, ১৯৯২ ও ১৯৯৭ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠানটি জাতীয় পর্যায়ের শ্রেষ্ঠ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি পায়। ১৯৯৪ খ্রিষ্টাব্দে এই কলেজের [[পদার্থবিজ্ঞান|পদার্থবিজ্ঞানের]] [[অধ্যাপক]] সুশান্ত কুমার সরকারকে ও ২০১০ খ্রিষ্টাব্দে জীববিজ্ঞান বিভাগের গাজী আজমলকে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ কলেজ শিক্ষক হিসাবে পুরস্কৃত করা হয়।<ref name="ব্লু অ্যান্ড গোল্ড" /><ref>জীববিজ্ঞান, দ্বিতীয় পত্র: একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি; গাজী আজমল, গাজী আসমত; ষষ্ঠ রঙিন সংস্করণ, জুন ২০১৯, গাজী পাবলিশার্স, ঢাকা</ref><ref name="ব্লু অ্যান্ড গোল্ড" /> পরিবেশ সংরক্ষণে ব্যাপক অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দে চ্যানেল আই এবং ''প্রকৃতি ও জীবন'' ফাউন্ডেশন আয়োজিত ''প্রকৃতি মেলা''য় প্রতিষ্ঠানটির তৎকালীন অধ্যক্ষ হেমন্ত পিউস রোজারিওকে বিশেষ সম্মাননা জানানো হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.bd-pratidin.com/city/2014/01/19/38714|শিরোনাম=চ্যানেল আই প্রাঙ্গণে প্রকৃতি মেলা {{!}} বাংলাদেশ প্রতিদিন|শেষাংশ=|প্রথমাংশ=|তারিখ=|ওয়েবসাইট=[[দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন]]|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=জুন ২৭, ২০২০|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200628164917/https://www.bd-pratidin.com/city/2014/01/19/38714|আর্কাইভের-তারিখ=২৮ জুন ২০২০|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref>
২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে টোকিও আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের আমন্ত্রণে নটর ডেম কলেজের অধ্যক্ষ হেমন্ত পিউস রোজারিও বিশ্ববিদ্যালয়টি পরিদর্শনে যান।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.observerbd.com/details.php?id=195227|শিরোনাম=11 Bangladeshi school delegates visits TIU - Eduvista|ভাষা=ইংরেজি|অনূদিত-শিরোনাম=১১ বাংলাদেশি স্কুল প্রতিনিধির টিআইইউ পরিদর্শন |ওয়েবসাইট=দ্য ডেইলি অবজার্ভার|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৭-১০}}</ref>
 
 
=== রাজনীতি ও সামরিক ক্ষেত্র ===
স্বাধীন ''[[বাংলাদেশের সংবিধান]] প্রণেতা'' খ্যাত আইনজীবী ও রাজনীতিবিদ [[কামাল হোসেন]] এ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী।<ref name="আলালদুলাল" /><ref name="প্রথম আলোয় কামাল">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.prothomalo.com/bangladesh/article/1493491/%E0%A6%A1.-%E0%A6%95%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B2-%E0%A6%B9%E0%A7%8B%E0%A6%B8%E0%A7%87%E0%A6%A8%E0%A6%B8%E0%A6%B9-%E0%A7%AC-%E0%A6%9C%E0%A6%A8%E0%A6%95%E0%A7%87-%E0%A6%B8%E0%A6%AE%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%B8%E0%A7%82%E0%A6%9A%E0%A6%95-%E0%A6%A1%E0%A6%BF%E0%A6%97%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%BF-%E0%A6%A6%E0%A6%BF%E0%A6%B2-%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B00|শিরোনাম=ড. কামাল হোসেনসহ ৬ জনকে সম্মানসূচক ডিগ্রি দিল নটর ডেম|ওয়েবসাইট=প্রথম আলো|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-১৯|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20181113151034/https://www.prothomalo.com/bangladesh/article/1493491/%e0%a6%a1.-%e0%a6%95%e0%a6%be%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%b2-%e0%a6%b9%e0%a7%8b%e0%a6%b8%e0%a7%87%e0%a6%a8%e0%a6%b8%e0%a6%b9-%e0%a7%ac-%e0%a6%9c%e0%a6%a8%e0%a6%95%e0%a7%87-%e0%a6%b8%e0%a6%ae%e0%a7%8d%e0%a6%ae%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a6%b8%e0%a7%82%e0%a6%9a%e0%a6%95-%e0%a6%a1%e0%a6%bf%e0%a6%97%e0%a7%8d%e0%a6%b0%e0%a6%bf-%e0%a6%a6%e0%a6%bf%e0%a6%b2-%e0%a6%a8%e0%a6%9f%e0%a6%b00|আর্কাইভের-তারিখ=২০১৮-১১-১৩|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref><ref name="আলালদুলাল" /> [[শেখ হাসিনার চতুর্থ মন্ত্রিসভা|বর্তমান মন্ত্রিসভার]] চার সদস্য - [[ইয়াফেস ওসমান|স্থপতি ইয়াফেস ওসমান]]<ref name="মাননীয় মন্ত্রী">{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://www.most.gov.bd/site/page/e7ad71f4-aa5b-44df-b219-f199b478b152/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A7%9F-%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80 |শিরোনাম=মাননীয় মন্ত্রী: স্থপতি ইয়াফেস ওসমান |ওয়েবসাইট=[[বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় (বাংলাদেশ)|বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়]] |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20170422140616/http://most.gov.bd/site/page/e7ad71f4-aa5b-44df-b219-f199b478b152/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A7%9F-%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80 |আর্কাইভের-তারিখ=২২ এপ্রিল ২০১৭ |সংগ্রহের-তারিখ=১১ এপ্রিল ২০১৭ |অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref>, [[গোলাম দস্তগীর গাজী]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://motj.gov.bd/site/biography/f8d2227c-669e-4ebd-810e-be66da8a62b2/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A6%AF%E0%A6%BC-%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80 |শিরোনাম=মাননীয় মন্ত্রী{{!}}জনাব গোলাম দস্তগীর গাজী, বীরপ্রতীক, এমপি |ওয়েবসাইট=বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর |সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-২১}}</ref>, [[জাহিদ মালেক স্বপন]] এবং [[মুরাদ হাসান]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://moi.gov.bd/site/office_head/c6be1c85-0cca-4ca6-9d79-a8011138a718/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A7%9F-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80 |শিরোনাম=মাননীয় প্রতিমন্ত্রী {{!}} ডা: মো: মুরাদ হাসান, এমপি |ওয়েবসাইট=তথ্য মন্ত্রণালয় |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20180709084610/http://www.moi.gov.bd/site/office_head/c6be1c85-0cca-4ca6-9d79-a8011138a718/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A7%9F-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A4%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%80 |আর্কাইভের-তারিখ=৯ জুলাই ২০১৮ |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর |সংগ্রহের-তারিখ=২২ মে ২০২০ |অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> এ প্রতিষ্ঠানের প্রাক্তন শিক্ষার্থী। তাছাড়া সাবেক [[বাংলাদেশের মন্ত্রিসভা|মন্ত্রীদের]] মধ্যে [[আব্দুল মঈন খান]], [[প্রমোদ মানকিন]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://m.bdnews24.com/amp/bn/detail/politics/1150072 |শিরোনাম=প্রোফাইল: প্রমোদ মানকিন |ওয়েবসাইট=বিডিনিউজ |সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-২১}}</ref>, [[হাসানুল হক ইনু]]<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://samakal.com/print/140881227/print?__cf_chl_jschl_tk__=c1f9256dc799143193dd97d5a0a53a0f728a0ada-1589889413-0-AcVo68hlCkTjCkH2YC7CYoeILyAF5mCZM0WP01d0VcEMV2bx1hGdhnkAPV-iF3yTYc1-XbxtKLP5XXgHuTNr5ENVETyI-eXPxVXFrP0reNvVzwkAuN3igYmq0Rq5Xc01YrZULJQPsmnuaAVmYD1Jw6sRg9fw5EsXRDZ9hi4-GHflPV8EG-qdhcceG5hWcybDkM44Rqmx_2rJwFiRJ1-SZ_HAlMo9WKykZ-HspBSSIrI3tfhpUj9ugXhaDjRnyjO9fKGXTJ2cQQ4n-8ohC2d4ctG_pLDRZPzFouMJGDsjl3Tx |শিরোনাম=নটর ডেমে মেধাবী মুখের মিলনমেলা |তারিখ=আগস্ট ২৪, ২০১৪ |কর্ম=[[দৈনিক সমকাল]] |সংগ্রহের-তারিখ=মে ১৯, ২০২০ |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর}}</ref> এবং প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও [[সংসদ সদস্য|সাংসদদের]] ভেতর [[আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.banglanews24.com/daily-chittagong/news/bd/750282.details|শিরোনাম=আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর মৃত্যুবার্ষিকী আজ|তারিখ=নভেম্বর ৪, ২০১৯|ওয়েবসাইট=বাংলানিউজ২৪|ভাষা=বাংলা|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200607163305/https://www.banglanews24.com/daily-chittagong/news/bd/750282.details|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৬-০৭|ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-২৮|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref>, [[শমসের মবিন চৌধুরী]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://samakal.com/todays-print-edition/tp-muktomoncha/article/1612255131|শিরোনাম=বাঙালি সৈন্যদের মধ্যেও স্বাধীনতার আকাঙ্ক্ষা সৃষ্টি হয়|শেষাংশ=চৌধুরী|প্রথমাংশ=সমশের মবিন|তারিখ=১১ ডিসেম্বর ২০১৬|ওয়েবসাইট=সমকাল|ভাষা=বাংলা|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200607163324/https://samakal.com/todays-print-edition/tp-muktomoncha/article/1612255131|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৬-০৭|ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-২৩|উক্তি=ঢাকার নটর ডেম কলেজে পড়ার সময়েই বুঝতে পারি- আমাদের এ বাংলাদেশ ভূখণ্ডের নিরাপত্তা নিয়ে পাকিস্তান সরকারের মাথাব্যথা নেই।|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref>, [[সালমান এফ রহমান]]<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://www.ekushey-tv.com/যেভাবে-শিল্পপতি-হলেন-সালমান-এফ-রহমান/69839 |শিরোনাম=যেভাবে শিল্পপতি হলেন সালমান এফ রহমান |তারিখ=২৩ মে ২০১৯ |কর্ম=একুশে টিভি |সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-২২ |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20190526125016/https://ekushey-tv.com/%E0%A6%AF%E0%A7%87%E0%A6%AD%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A7%87-%E0%A6%B6%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A7%8D%E0%A6%AA%E0%A6%AA%E0%A6%A4%E0%A6%BF-%E0%A6%B9%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%A8-%E0%A6%B8%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8-%E0%A6%8F%E0%A6%AB-%E0%A6%B0%E0%A6%B9%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8/69839 |আর্কাইভের-তারিখ=২০১৯-০৫-২৬ |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর |অকার্যকর-ইউআরএল=না }}</ref> নটর ডেম কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী।
 
বাংলাদেশের বর্তমান [[বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সেনাপ্রধান|সেনাপ্রধান]] [[জেনারেল]] [[আজিজ আহমেদ (জেনারেল)|আজিজ আহমেদ]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://www.bd-pratidin.com/first-page/2018/06/19/338574 |শিরোনাম=লে. জেনারেল আজিজ আহমেদ নতুন সেনাপ্রধান |ওয়েবসাইট=[[দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন]] |ভাষা=ইংরেজি |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20190326181338/http://www.bd-pratidin.com/first-page/2018/06/19/338574 |আর্কাইভের-তারিখ=২০১৯-০৩-২৬ |সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-২০ |অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref>, বর্তমান [[বাংলাদেশ বিমান বাহিনী|বিমান বাহিনী]] প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল [[মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://dailyinqilab.com/article/135118/মাসিহুজ্জামান-সেরনিয়াবাত-বিমানবাহিনীর-নতুন-প্রধান |শিরোনাম=মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত বিমানবাহিনীর নতুন প্রধান |তারিখ=৬ জুন ২০১৮ |ওয়েবসাইট=ইনকিলাব |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর |সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-২৩ |উক্তি=নটরডেমিয়ান এ কর্মকর্তা সামরিক বাহিনীর দীর্ঘ চাকুরীজীবনে দেশে ও বিদেশে পেশাগত বিভিন্ন কোর্সে অংশগ্রহণ করেন। |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200618134317/https://dailyinqilab.com/article/135118/%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%B9%E0%A7%81%E0%A6%9C%E0%A7%8D%E0%A6%9C%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8-%E0%A6%B8%E0%A7%87%E0%A6%B0%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A6%BE%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%A4-%E0%A6%AC%E0%A6%BF%E0%A6%AE%E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%AC%E0%A6%BE%E0%A6%B9%E0%A6%BF%E0%A6%A8%E0%A7%80%E0%A6%B0-%E0%A6%A8%E0%A6%A4%E0%A7%81%E0%A6%A8-%E0%A6%AA%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A6%A7%E0%A6%BE%E0%A6%A8 |আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৬-১৮ |অকার্যকর-ইউআরএল=না }}</ref> ও সাবেক সেনাপ্রধান [[হাসান মশহুদ চৌধুরী]] এ কলেজের শিক্ষার্থী ছিলেন। সাবেক [[রাষ্ট্রদূত]] [[জন গোমেজ]]<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://www.thedailystar.net/news-detail-252397 |শিরোনাম=John Gomes new envoy to the Phillipines|অনূদিত-শিরোনাম=জন গোমেজ ফিলিপাইনে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত |তারিখ=৪ অক্টোবর ২০১২ |কর্ম=[[দ্য ডেইলি স্টার]] |সংগ্রহের-তারিখ=১৫ অক্টোবর ২০১৮ |ভাষা=ইংরেজি |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200607163333/https://www.thedailystar.net/news-detail-252397 |আর্কাইভের-তারিখ=৭ জুন ২০২০ |অকার্যকর-ইউআরএল=না }}</ref> ও [[মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://www.bdembassyusa.org/index.php?page=biography |শিরোনাম=ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত |ওয়েবসাইট=বাংলাদেশ দূতাবাস, যুক্তরাষ্ট্র |ভাষা=ইংরেজি |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20170906134624/http://www.bdembassyusa.org/index.php?page=biography |আর্কাইভের-তারিখ=২০১৭-০৯-০৬ |সংগ্রহের-তারিখ=২০১৭-০৯-০৯ |অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref> নটর ডেম কলেজে লেখাপড়া করেছিলেন।
২০১১ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ জানুয়ারি যাত্রা শুরু করে ''নটর ডেম অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন'' সংক্ষেপে ''এনডিএএ''। অবশ্য ১৯৫৯ খ্রিষ্টাব্দে তৎকালীন অধ্যক্ষ জে. এল. মার্টিন এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে একটি খসড়া গঠনতন্ত্র তৈরি করেছিলেন। ১৯৯৯ খ্রিষ্টাব্দে কলেজের ৫০ বছর (সুবর্ণ জয়ন্তী) এবং ২০০৯ খ্রিষ্টাব্দে ৬০ বছর (হীরক জয়ন্তী) উদযাপনের সময় ছাত্ররা এ ব্যাপারে পুনরায় আগ্রহ প্রকাশ করলে তৎকালীন অধ্যক্ষ বেঞ্জামিন কস্তা ২০১১ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ জানুয়ারি কলেজের প্রাক্তন ১৬জন ছাত্রের সাথে একটি সভা করে এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন। পরবর্তীতে, কলেজের প্রাক্তন ছাত্র কামাল হোসেনকে সাম্মানিক সভাপতি, বেঞ্জামিন কস্তাকে সভাপতি, অধ্যাপক [[রশিদ উদ্দিন আহমদ|রাশিদ উদ্দিন আহমেদকে]] সহসভাপতি (১ম), ড. [[আব্দুল মঈন খান]]কে সহসভাপতি (২য়), [[ফিলিপাইন|ফিলিপাইনে]] বাংলাদেশের [[রাষ্ট্রদূত]] অবসরপ্রাপ্ত [[মেজর জেনারেল]] [[জন গোমেজ]]কে সাধারণ সম্পাদক, বকুল এস. রোজারিও-কে কার্যকরী সাধারণ সম্পাদক এবং অ্যাডাম এস. পেরেরা-কে কোষাধ্যক্ষ করে সর্বমোট ১৯জন সদস্য নিয়ে গঠিত অ্যাড-হক কমিটি দিয়ে যাত্রা শুরু হয় সংগঠনের।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://www.prothom-alo.com/detail/date/2011-03-07/news/136544 |শিরোনাম=গঠিত হলো নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন |ওয়েবসাইট=প্রথম আলো |প্রকাশনার-স্থান=ঢাকা |প্রকাশনার-তারিখ=৭ মার্চ ২০১১ |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20110312062805/http://www.prothom-alo.com/detail/date/2011-03-07/news/136544 |আর্কাইভের-তারিখ=২০১১-০৩-১২ |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর |সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৫-১৩ |অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ }}</ref> এরপর ২০১২ খ্রিষ্টাব্দের ২২ ডিসেম্বর কলেজ প্রাঙ্গণে বার্ষিক সাধারণ সম্মেলন আয়োজনের মধ্য দিয়ে সংগঠনের যাত্রার আনুষ্ঠানিক প্রচারণা করা হয়।<ref name="dhakanews24" /> সংগঠনের গঠনতন্ত্র হিসেবে জে. এল. মার্টিন কর্তৃক ১৯৫৯ খ্রিষ্টাব্দের ৮ ডিসেম্বর প্রণীত গঠনতন্ত্রের ২০১২ খ্রিষ্টাব্দের ৩০ জুনের পরিমার্জিত সংস্করণ গ্রহণ করা হয়।<ref>{{বই উদ্ধৃতি |শিরোনাম=স্মরণিকা |বছর=২০১২ |প্রকাশক=নটর ডেম এ্যালামনাই এসোসিয়েশন (এনডিএএ) |অবস্থান=নটর ডেম কলেজ, ঢাকা |প্রকাশনার-তারিখ=২২ ডিসেম্বর ২০১২ |ইউআরএল-অবস্থা=কার্যকর}}</ref><ref>{{বই উদ্ধৃতি |শিরোনাম=নটর ডেম অ্যালুমনাই অ্যাসোসিয়েশনের গঠনতন্ত্র |শেষাংশ=মার্টিন |প্রথমাংশ=জে. এল. |তারিখ=ডিসেম্বর ৮, ১৯৫৯ |প্রকাশক=নটর ডেম অ্যালুমনাই অ্যাসোসিয়েশন |অবস্থান=ঢাকা |প্রকাশনার-তারিখ=জুন ৩০, ২০১২ |nopp=হ্যাঁ}}</ref>
 
নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হবেন অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি। সে অনুযায়ী সংগঠনের বর্তমান সভাপতি হলেন বর্তমান অধ্যক্ষ হেমন্ত পিউস রোজারিও। তাঁর তত্ত্বাবধানে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন নতুন করে সক্রিয় হয়ে ওঠে।<ref name="ব্লু অ্যান্ড গোল্ড"/> তাঁর প্রচেষ্টায়ই ২০১৮ সালের ২ মার্চ তারিখে কলেজে অ্যালামনাই পুনর্মিলনী আয়োজিত হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.jagonews24.com/campus/news/404400|শিরোনাম=নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাইয়ের পুনর্মিলনী ২ মার্চ|ওয়েবসাইট=jagonews24.com|ভাষা=en-US|সংগ্রহের-তারিখ=2020-07-21}}</ref>
 
সারাবিশ্বে ছড়িয়ে থাকা নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা স্বীয় স্থানে অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের শাখা প্রতিষ্ঠা ও কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। [[অস্ট্রেলিয়া]]য় অবস্থানরত নটরডেমিয়ানদের সংগঠন ''নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের অস্ট্রেলিয়া'' ২৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ [[সিডনি]]র রাইডের সিভিল হলে ২৭৫ অতিথির অংশগ্রহণে পুনর্মিলনী আয়োজন করে, যাতে অধ্যক্ষ হেমন্ত পিউস রোজারিও উপস্থিত ছিলেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.prothomalo.com/durporobash/article/1638427/%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%A1%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B0-%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%AE-%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A6%A8%E0%A7%80-%E0%A7%A8%E0%A7%AF|শিরোনাম=সিডনিতে নটর ডেম অ্যালামনাইয়ের পুনর্মিলনী ২৯ ফেব্রুয়ারি|ওয়েবসাইট=প্রথম আলো|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-১৭|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200617123935/https://www.prothomalo.com/durporobash/article/1638427/%E0%A6%B8%E0%A6%BF%E0%A6%A1%E0%A6%A8%E0%A6%BF%E0%A6%A4%E0%A7%87-%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B0-%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%AE-%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%87%E0%A6%AF%E0%A6%BC%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A6%A8%E0%A7%80-%E0%A7%A8%E0%A7%AF|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৬-১৭|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref><ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.prothomalo.com/durporobash/article/1648476/%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B0-%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%AE-%E0%A6%95%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9C-%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%87-%E0%A6%85%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A6%A8%E0%A7%80|শিরোনাম=নটর ডেম কলেজ অ্যালামনাই অস্ট্রেলিয়ার পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত|ওয়েবসাইট=প্রথম আলো|ভাষা=বাংলা|সংগ্রহের-তারিখ=২০২০-০৬-১৭|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20200617135532/https://www.prothomalo.com/durporobash/article/1648476/%E0%A6%A8%E0%A6%9F%E0%A6%B0-%E0%A6%A1%E0%A7%87%E0%A6%AE-%E0%A6%95%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%9C-%E0%A6%85%E0%A7%8D%E0%A6%AF%E0%A6%BE%E0%A6%B2%E0%A6%BE%E0%A6%AE%E0%A6%A8%E0%A6%BE%E0%A6%87-%E0%A6%85%E0%A6%B8%E0%A7%8D%E0%A6%9F%E0%A7%8D%E0%A6%B0%E0%A7%87%E0%A6%B2%E0%A6%BF%E0%A7%9F%E0%A6%BE%E0%A6%B0-%E0%A6%AA%E0%A7%81%E0%A6%A8%E0%A6%B0%E0%A7%8D%E0%A6%AE%E0%A6%BF%E0%A6%B2%E0%A6%A8%E0%A7%80|আর্কাইভের-তারিখ=২০২০-০৬-১৭|অকার্যকর-ইউআরএল=না}}</ref>
|শেষাংশ=গিলেসপি |প্রথমাংশ=চার্লস পি |শেষাংশ২=পিশোতো |প্রথমাংশ২=জোসেফ এস |বছর=২০০১ |প্রকাশক=প্রোভিনশিয়াল হাউজ |অবস্থান=ঢাকা |oclc=51547028}}
* {{বই উদ্ধৃতি |শিরোনাম=স্মৃতির স্মরণ নিকুঞ্জ |শেষাংশ=খান |প্রথমাংশ=অধ্যাপক গরীব নেওয়াজ |আইএসবিএন-ত্রুটি-উপেক্ষা-করুন=হ্যাঁ |বছর=২০০৯ |প্রকাশক=লেখাপ্রকাশ |আইএসবিএন=984-7-0338-0100-3 }}
* {{বই উদ্ধৃতি |ইউআরএল= https://books.google.com.bd/books/about/Forty_Years_in_Bangladesh.html?id=ggrZAAAAMAAJ&redir_esc=y |শিরোনাম=Forty Years in Bangladesh: Memoirs of Father Timm |শেষাংশ=টিম |প্রথমাংশ=রিচার্ড উইলিয়াম |authorলেখক-linkসংযোগ= রিচার্ড উইলিয়াম টিম |asin=B0006F9QUO |প্রকাশক=কারিতাস বাংলাদেশ |ভাষা=en}}
 
== বহিঃসংযোগ ==
৩,৪২,৭০০টি

সম্পাদনা