"মুহাম্মদ ইবনে আবদুল ওয়াহাব" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্প্রসারণ, সংশোধন, পরিষ্কারকরণ, হালনাগাদ করা হল
(পরিষ্কারকরণ)
(সম্প্রসারণ, সংশোধন, পরিষ্কারকরণ, হালনাগাদ করা হল)
| other_names =
| birth_date = ১৭০০
| birth_place = [[উয়ান্নাউয়াইনা]], [[নজদ]]
| death_date = {{Death year and age|1792|1700}}
| death_place = [[দারিয়া আমিরশাহী]]
| era = ১৮তম১৮ তম শতকে
| region = [[নজদ]]
| denomination = [[সুন্নী ইসলাম]]
| doctrine. = [[সালাফি]](সুন্নী), [[আহলুল হাদিস]]
| school_tradition = [[ওয়াহাবীসুন্নী আন্দোলনইসলাম]]<ref>''The Salafis consider themselves to be 'non-imitators' or 'not attached to tradition', and therefore answerable to no school of law at all, observing instead what they would call the practice of early Islam. However, to do so does correspond to the ideal aimed at by Ibn Hanbal, and thus they can be said to be of his 'school'.'' [[#Gla03|Glassé 2003]]: 407</ref>
| main_interests =তাওহীদ, সুন্নাহর জাগরণ
| notable_ideas = ইসলামের মধ্যে প্রবর্তিত ([[বিদআত]]), ইসলামী একেশ্বরবাদ ([[তাওহিদ]]) এর জাগরণ এবং বহুদেববাদ ([[শিরক]]) বর্জন
| major_works =সমাজ সঙস্কার
| influences = [[ইবনে তাইমিয়া]]<br/>[[মোহাম্মাদ হায়াত আস-সিন্ধী]]<br/>[[ইবনেইবনুল কাইয়িম জাওযী]]
| influenced = [[আব্দুল আজিজ ইবনে বায]]<br/>[[মুহাম্মাদ ইবনে আল উসায়মীন]]<br/>[[মুহাম্মদ নাসিরুদ্দীন আল-আলবানী]]<br/>[[সায়্যেদ আহমেদ খান]]
|আন্দোলন=সালাফি (সুন্নী)}}
}}
 
'''শাইখুল ইসলাম ইমাম মুহাম্মদ ইবনইবনে আব্দুল ওয়াহহাব''' ([[ইংরেজি]]:Muhammad ibn Abd al-Wahhab ({{lang-ar|محمد بن عبد الوهاب}}; ১৭০০ --- ২২ জুন ১৭৯২)<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://www.alahazrat.net/islam/wahabi-salafi.php |শিরোনাম=Wahabi & Salafi |প্রকাশক=Alahazrat.net |তারিখ= |সংগ্রহের-তারিখ=17 September 2012 |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20120922152420/http://www.alahazrat.net/islam/wahabi-salafi.php |আর্কাইভের-তারিখ=২২ সেপ্টেম্বর ২০১২ |অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ }}</ref> মধ্য আরবের নাজদের একজন সুন্নী ধর্মীয় নেতা, [[ইমাম]], সমাজ সঙস্কারক এবং ইসলামী পন্ডিত, যিনি একটি ধর্মীয় আন্দোলন প্রবর্তন করেছিলেন যাযাকে বর্তমানে ওহাবীবাদ নামে পরিচিত।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.oxfordislamicstudies.com/article/opr/t125/e916|শিরোনাম=Ibn Abd al-Wahhab, Muhammad - Oxford Islamic Studies Online|ওয়েবসাইট=www.oxfordislamicstudies.com|সংগ্রহের-তারিখ=2020-05-30}}</ref> তিনি সেসময়েযদিও আরবেতিনি প্রচলিতনতুন কবরকোনো জিয়ারত,মতবাদ মাজারপ্রচার জিয়ারতকরেন নি। করা,তবুও প্রতিষ্ঠিতবৃটিশ সুন্নতউপনিবেশবাদীরা এবংতাঁর অনেকআন্দোলনকে উত্তমওহাবী বিদ‘আতেরআন্দোলন বিরোধিতাবলে করেছেন।<refআখ্যায়িত name="m-h">https://www.hadithbd.com/qaext.php?qa=6889</ref>করে। তারবর্তমানে বিরোধীরাযারা বিশেষত[[বেরলভী|ব্রেলভী]] সেসময়েরমতের মুসলিমদেরঅনুসারী প্রধাননয়, তুর্কী খলীফা এ আন্দোলনের বিরুদ্ধে ব্যাপক প্রচারণা চালান।<ref name="m-h"/> প্রাক্তন সৌদি বাদশাহতাদেরকে [[মুহাম্মদ বিন সৌদবেরলভী|মুহাম্মদ বিন সৌদেরব্রেলভী]] সাথে মুহাম্মদ বিন আব্দুল ওয়াহাব এরসম্পরদায়ের চুক্তিলোকেরা বর্তমানওহাবী সৌদিবলে রাষ্ট্রনিন্দা গঠনের জন্যসমালোচনা সহায়ককরে হয়েছিল।থাকে।
 
তিনি ১১১৫ হিজরিতে নজদের উয়াইনাহ শহরে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর দাদা ছিলেন [[হানবালি|হাম্বলী]] [[মাযহাব|মাযহাবের]] প্রসিদ্ধ ফকীহ ও বিচারক। তিনি বাল্যকালে তাঁর পিতা আব্দুল ওয়াহহাব বিন সুলাইমানের কাছে ধর্মীয় শিক্ষা পান। দশ বছর বয়সে সমগ্র কুরআন মুখস্ত করেন। অতঃপর তাফসীর ও হাদীস চর্চায় লিপ্ত হন। মদীনার আলেমদের নিকট ইসলামের নানা বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করেন। মক্কা-মদীনায় তিনি বিখ্যাত আলিম আব্দুল্লাহ বিন ইবরাহীম ও ভারতবর্ষের আলিম আব্দুল ওয়াহহাব হায়াতের কাছে জ্ঞান অর্জন করেন।
 
তিনি ইসলামের প্রাথমিক যুগের মৌলিক শিক্ষা পুনর্জাগরণের আন্দোলনের সূচনা করেন। তিনি দেখলেন যে, তাঁর দেশের মানুষ নানা রকম কুসঙস্কার, শীরক, বিদ'আত, কবর-মাজার পূজায় ব্যস্ত। তিনি দেখলেন মক্কা-মদীনায় [[সাহাবা|সাহাবিদের]] কবরকে ইবাদতের স্থানে পরিণত করা হয়েছে। নারীরা খেজুর গাছের কাছে স্বামী-সন্তান চাচ্ছে।
 
তিনি ইসলামের মৌলিক দাওয়াত দিতে গিয়ে বাধার সম্মুখীন হন। অতঃপর তিনি বসরা গমন করেন। বসরা থেকে ফিরে এসে তিনি তাঁর বাবার সাথে হুরায়মিয়া শহরে থাকতে শুরু করেন। সেসময় তাঁর বিখ্যাত কিতাব 'কিতাবুত তাওহীদ' রচনা করেন। তাঁর ছয়জন ছেলে ছিল ।একজন বাল্যকালে মারা যায়।
 
[[মুহাম্মদ বিন সৌদ|মুহাম্মাদ বিন সৌদ]] তাঁর দ্বারা প্রভাবিত হন ও পরে [[সৌদি আরব]] প্রতিষ্ঠা করেন। অতঃপর [[সৌদি আরব]] থেকে পীর-মুরিদি ,মাজার, সূফিবাদি কর্মকান্ড কঠোর হস্তে দমন করেন।
 
তিনি ১২০৬ হিজরিতে মৃত্যবরণ করেন।
 
== তাঁর রচিত গ্রন্থাবলি ==
<br />
 
* '''কিতাবুত তাওহীদঃ''' আকিদাহ বিষয়ক একটি প্রসিদ্ধ পুস্তক। এই গ্রন্থের অনেকগুলো ব্যাখ্যা রচনা করেছেন পরবর্তীকালের উলামায়ে কেরাম। এর মধ্যে বিখ্যাত ২ টি ব্যাখ্যা হচ্ছেঃ আহমাদ ইবনু হুসাইনের আল দুররুন নাদীদ; এবং শায়খ সুলাইমানের ফাতহুল মাজিদ ফি শারহে কিতাবুত তাওহীদ।
* '''কাশফুশ শুবুহাতঃ''' এই গ্রন্থটিও বহু ভাষায় অনূদিত হয়েছে। এটাও তাওহীদ সংক্রান্ত বই। বাংলায় এর একাধিক অনুবাদ হয়েছে, "সংশয় নিরসন" নামে। বিখ্যাত অ্যামেরিকান স্কলার ডঃ [[ইয়াসির কাযী]] এর একটা ব্যাখ্যা ইংরেজিতে রচনা করেছেন।
* '''আল-উসুলুস ছালাছাহ ওয়া আদিল্লাতুহাঃ''' (তিনটি মৌলনীতি ও এর প্রমাণাদি) তিনটি আবশ্যকীয় জ্ঞান যা অর্জন করা প্রত্যেক মানুষের জন্য জরুরি, সেই বিষয়ের ওপর রচিত হয়েছে এ গ্রন্থ।
* '''শুরুতুস সালাহ ওয়া আরকানুহাঃ''' ছালাতের শর্ত ও রোকন গুলোর বিস্তারিত বিবরণ দিয়ে লেখা হয়েছে এ বইটি।
* '''আল-কাওয়াঈদ আল-আরবা'আহঃ''' চারটি মূলনীতি নিয়ে এই গ্রন্থ রচিত।
* '''উসুলুল ঈমানঃ''' ঈমানের মূলনীতি বিষয়ক গ্রন্থ।
* '''কিতাব ফযলিল ইসলাম'''
* '''কিতাবুল কাবায়িরঃ''' (কবিরা গুনাহ সমূহ)
* '''নসীহাতুল মুসলিমীনঃ''' (মুসলিমদের প্রতি উপদেশ)
* '''ছিত্তাতু মাওয়াযি' মিনাস সীরাহ'''
* '''তাফসীরুল ফাতিহাহ'''
* '''মাসায়েলুল জাহিলিয়্যাহ'''
* '''তাফসীরুশ শাহাদাহ'''
* '''কিতাবুস সীরাহ (সিরাত গ্রন্থ)'''
* '''আল-হাদীয়ুন নববী'''
* '''মুখতাসারু ফাতহিল বারীঃ''' [[ইবনে হাজার আসক্বালানী|ইবনে হাজার আস্কলানি]] রহঃ রচিত [[সহীহ বুখারী|সহীহ আল-বুখারির]] প্রসিদ্ধ শরাহ (ব্যাখ্যাগ্রন্থ) ফাতহুল বারীর সারসংক্ষেপ।
* '''মুখতাসারুল শারহুল কাবীর'''
* '''ফাযায়েলুল কু'আন'''
* '''মুখতাসারুল মিনহাজ'''
* '''মুখতাসারুল ইনসাফ'''
* '''মুফিদুল মুসতাফিদ'''
* '''আহাদীছুল ফিতান'''
* '''মুখতাসারুস সাওয়ায়িক'''
* '''আদাবুল মাশই ইলাস সালাত'''
* '''আল রাদ্দ 'আলাল রাফিদা'''
* '''আল-উসুলুস সিত্তাহ'''
* '''মুখতাসার আস-সীরাতুর রাসূল'''
* '''মুখতাসার আল-ঈমান'''
 
আবদুল ওয়াহহাব নজদী কোরআন-হাদিসের মনগড়া অপব্যাখ্যা করে তার সমসাময়িক আলেম-উলামা এবং মুসলিমদের কাফের ঘোষণা দিয়েছিল। ইবনে মুহাম্মদ নামে একজন বিখ্যাত আলিম ইবনে আব্দুল ওয়াহহাবকে মুসায়লামা আল কাজ্জাব এর সাথে তুলনা করেছেন।<ref name=":0">{{বই উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://books.google.de/books?id=U7loMhnI5S8C&pg=PA91&dq=Zayni+Dahlan+ibn+Abdul+Wahhab&hl=en&sa=X&redir_esc=y#v=onepage&q=Zayni%20Dahlan%20ibn%20Abdul%20Wahhab&f=false|শিরোনাম=Ottoman Reform and Muslim Regeneration|শেষাংশ=Zachs|প্রথমাংশ=Weismann|তারিখ=2005-03-24|প্রকাশক=Bloomsbury Academic|ভাষা=en|আইএসবিএন=978-1-85043-757-4}}</ref> প্রসিদ্ধ হাম্বলী পন্ডিত ফায়রুজ আল-তামিমি (মৃত্যু: 1801/1802) ইবনে আব্দুল ওয়াহহাবের ভ্রান্ত মতবাদ কে প্রকাশ্যে প্রত্যাখ্যান করেছিলেন এবং তার নিকট দূত প্রেরণ করে তাকে নজদের খারেজী বলে আখ্যায়িত করেছিলেন।<ref name=":0" /> আব্দুল ওয়াহহাব তার উদ্ভাবিত উগ্রপন্থী ও খারিজি মতবাদ যারা গ্রহণ করেনি, তাদেরকে কাফের-মুশরিক এমনকি তাদের হত্যা করাকেও জায়েজ মনে করতেন।<ref name=":0" /> তার অনুসারীরা ব্রিটিশদের সহায়তায় মক্কা-মদিনায় ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ এবং লুণ্ঠন চালিয়েছিল।<ref name=":0" />
 
{{আরো দেখুন|ইবনে আব্দিল ওয়াহহাব রচিত গ্রন্থসমূহ}}
৬৭টি

সম্পাদনা