"ব্যুত্থান" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন, রচনাশৈলী, হালনাগাদ করা হল
(সংশোধন ও তথ্য যোগ)
(সংশোধন, রচনাশৈলী, হালনাগাদ করা হল)
{{Infobox martial art
| logo = বুত্থান লোগো.jpeg
| logocaption = ব্যুত্থান মার্শাল আর্টের লোগো
| logosize =150px
| name image =
| image imagecaption =
| imagecaptionimagesize =
| name = ব্যুত্থান
| imagesize =250px
| aka =
| focus = সঙ্কর
| focus = [[আঘাত (আক্রমণ)|আঘাত করা]]
| country = {{পতাকাflag আইকনicon|Bangladesh}} [[বাংলাদেশ]]
| hardness =
| hardness = দৃঢ় ও নমনীয়তার সম্মিলন
| country = {{পতাকা আইকন|Bangladesh}} [[বাংলাদেশ]]
| creator = [[ইউরী বজ্রমুনি|আচার্য ম্যাক ইউরী বজ্রমুনি]]
| parenthood =
| parenthood =[[ভারমা কালাই]], [[বেনডো]], [[বজ্রমুষ্টি]], [[তিব্বতীয় এবং চীনা কেমপো]], [[কালারিপায়াত্তু]], [[বানশায়]], [[যোগাসন]], [[সিলাম্বাম]] এবং অন্যান্য।
| famous_practfamous pract =
| olympic descendant arts =
| formation =সহ -প্রতিযোগিতা
| website = {{URL|www.butthan.net/home.html}}
| ancestor arts =ভার্মা কালাই, বান্দো, বজ্র-মুষ্টি, চৈনিক মার্শাল আর্ট
| hardness martialart =
| website = [http://www.ibufhq.org/ আন্তর্জাতিক ব্যুত্থান ফেডারেশন]
}}
'''ব্যুত্থান''' (অর্থ ‘স্বতন্ত্রের সাথে প্রতিরোধ’ অথবা ‘উত্থান লাভ করা’) একটি বাংলাদেশী মার্শাল আর্ট এবং কমব্যাট স্পোর্টস। এটি 'আত্মরক্ষা ও ব্যক্তিগত উন্নয়নের পদ্ধতিগত কলাকৌশল' যার শেকড় দক্ষিণ এশিয় ঐতিহ্যে প্রোথিত।<ref name="banglatribune.com">''[http://www.banglatribune.com/sport/news/64651/ জাতীয়-ব্যুত্থান-সমাপ্ত]'', ব্যুত্থান প্রতিযোগিতা, বাংলা ট্রিবিউন। বাংলা ট্রিবিউন থেকে প্রকাশের তারিখ: ২৬-১২-২০১৫ খ্রিস্টাব্দ।</ref> সুপারহিউম্যান ম্যাক ইউরি, একজন আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত মার্শাল আর্ট গ্র্যান্ড মাস্টার ও ‘ব্যুত্থানের’ স্থপতি। ব্যুত্থানকে বলা হয় সংঘাত রহিতকরণ ও জীবন ক্ষমতায়নের পথ যা শারীরিক, মানসিক এবং আত্মিক ভারসাম্য তৈরি করে। আন্তর্জাতিক ব্যুত্থান ফেডারেশনের নির্দেশনায় এই মার্শাল আর্ট পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে একটি কমব্যাট স্পোর্টস হিসেবে অনুশীলিত হয়ে আসছে।<ref name="prothomalo.com">''[http://www.prothomalo.com/bangladesh/article/722970/ ব্যুত্থান]'',জাতীয়-ব্যুত্থান-প্রতিযোগিতা-সমাপ্ত,। প্রথম আলো থেকে প্রকাশের তারিখ: ২৭-১২-২০১৫ খ্রিস্টাব্দ।</ref>