"চণ্ডী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
"অসুরগণের সঙ্গে দীর্ঘ যুদ্ধের পর দেবতারা পরাজিত হলে দেবী পার্বতী কত্যায়ানি রূপে নিজের অংশ তাদের দান করেন ও সেই শক্তিকে কায়া রূপ দিতে বলেন,দেবতাদের দেহসঞ্জাত তেজঃপুঞ্জ হতে মহাদেবীর উৎপত্তি। দেবগণের শক্তি সম্মিলিত হয়ে এক মহাজ্যোতির সৃষ্টি করলে দশদিক আলোকে উদ্ভাসিত হয়ে ওঠে। সেই অভূতপূর্ব ত্রিলোক-উদ্ভাসনকারী আলোক এক হয়ে নারীমূর্তি ধারণ করে।"
 
"এই দেবী ছিলেন মহাশক্তি। তিনি ত্রিনয়না, তাঁর কপালে অর্ধচন্দ্র শোভিত। দেবীর বহু হাতে বহু প্রকার অস্ত্র, গাত্রে বহুমূল্য অলংকার ও মালা। সকলই দেবগণ দেবীকে উপহার দিয়েছিলেন। তাঁর সোনার অঙ্গ সহস্র সূর্যের ন্যায় উজ্জ্বল। এইরূপে সিংহবাহিনী দেবী চণ্ডী হয়ে উঠলেন বিশ্বশক্তির মূর্তিস্বরূপ।"আবার অন্য কিছু পুরান অনুসারে দেবী চন্ডী কেবল দেবতাদের অঙ্গ সম্ভূতা তিনি দেবী পার্বতীর অংশ নন কিন্তু দেবী পার্বতী আদি পরাশক্তি সর্বোচ্চ দেবী সত্তা যিনি মহামায়া তাই মহাশক্তি চন্ডী দেবী মহিষাসুরের সঙ্গে যুদ্ধান্তে দেবী আদি পরাশক্তি পার্বতীর দেহে বিলীন হয়ে যান এবং দেবী পার্বতীর রূপে পরিণত হন পরবর্তী সময়ে দেবী পার্বতী শুম্ভ নিশুম্ভা বধে তাকে নিজের কৃষ্ণ কোষ থেকে সৃষ্টি করেন পুনরায় এবং তিনি দেবী পার্বতীর ললাট সম্ভুতা কালীর সঙ্গে অসুর বধ করেন ও দেবী পার্বতীর দেহে আবার বিলীন হয়ে যান। <ref>Mookerjee, Ajit, Kali, The Feminine Force, p 49</ref> <ref>Wilkins p.255-7</ref> স্কন্দ পুরাণ এই কাহিনিটি রয়েছে। এই পুরাণে আরও বলা হয়েছে যে দেবী পার্বতী দেহসম্ভুুুতা এক দেবী চন্ড ও মুন্ড নামক অসুরদ্বয়কে বধ করেন।<ref>Wilkins p.260</ref> এবং এর থেকে তার নাম হয় চামুন্ডা।
 
অন্য একটি কাহিনি অনুযায়ী, কালি [[রক্তবীজ]] দৈত্যবধে দেবী পার্বতীকে সহায়তা করেন। রক্তবীজের রক্ত মাটিতে পড়লে সহস্র সহস্র রক্তবীজ অসুরের সৃষ্টি হত। কৃৃৃৃষ্ণবর্ণা দেবী রক্তবীজের রক্ত পান করেন। এই সময় ভূপতিত রক্ত থেকে সৃষ্ট অসুরদের ধ্বংস করেন কালিকা এবং শেষে তিনিই রক্তবীজকে বধ করেন।<ref>Wilkins p.255-7</ref> [[স্কন্দ পুরাণ|স্কন্দ পুরাণেও]] এই কাহিনিটি রয়েছে। এই পুরাণে আরও বলা হয়েছে যে দেবী পার্বতী দেহসম্ভুুুতা এক দেবী চন্ড ও মুন্ড নামক অসুরদ্বয়কে বধ করেন।<ref>Wilkins p.260</ref> এবং এর থেকে তার নাম হয় চামুন্ডা।
 
এই চামুুন্ডা বা কালিকা দেবীর চন্ডীরই অপর রূপ।
বেনামী ব্যবহারকারী