"শামীম হায়দার পাটোয়ারী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎জন্ম ও শিক্ষাজীবন: বানান ঠিক করা হয়েছে
(লিংক সংযোজন)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
(→‎জন্ম ও শিক্ষাজীবন: বানান ঠিক করা হয়েছে)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল অ্যাপ সম্পাদনা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সম্পাদনা
 
==জন্ম ও শিক্ষাজীবন==
শামীম হায়দার পাটোয়ারীর জন্ম [[গাইবান্ধা জেলা|গাইবান্ধা জেলায়]]।
 
পৈতৃক নিবাস রংপুরের পীরগাছা থানায়। বাবা প্রফেসর ড. মফিজুন ইসলাম পাটোয়ারী ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক।
 
ব্যারিস্টার শামীম উদয়ন বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করার পর ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে এলএলবি (অর্নাস) সম্পন্ন করেন। এরপর ইউনিভার্সিটি অব লন্ডন থেকেও এলএলবি (অর্নাস) করেছেন। একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিজি সার্টিফিকেট অন ইনটেলেকঢুয়াল প্রোপাটি ল’ ডিগ্রি নেন। বিভিসি (পিজি ডিপ্লোমা ইন প্রফেশনাল অ্যান্ড লিগ্যাল স্কিলস) করেছেন সিটি ইউনিভার্সিটির ইনস অব কোর্ট স্কুল অব ল’ (আইসিএসএল) থেকে। এছাড়া ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে হিউম্যান রাইটসের ওপর ডিপ্লোমা করেছেন।
 
২০০৭ সাল থেকে বাংলাদেশের সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত। সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার আমীর-উল-ইসলামের সরাসরি তত্ত্বাবধানে তাঁর প্রধান সহকারী হিসেবে চার বছর কাজ করেছেন। বর্তমানে পাটোয়ারী জুরিস্ট অ্যান্ড এসোসিয়েটসের হেড অব চেম্বার।
 
দেশে-বিদেশে আয়োজিত আইন ও মানবাধিকার বিষয়ক প্রচুর আন্তর্জাতিক কনফারেন্স, সেমিনার ও ওয়ার্কশপে অংশ নিয়েছেন তিনি। পত্র-পত্রিকায় নিয়মিত আইন বিষয় কলাম লিখেন তিনি। টেলিভিশন আলোচনায়ও তার উপস্থিতি প্রায় নিয়মিত।
 
 
 
 
[[গাইবান্ধা জেলা|গাইবান্ধা জেলায়]]।
 
==কর্মজীবন==
৭টি

সম্পাদনা