"হরিকা দ্রোণাভাল্লি" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(হটক্যাটের মাধ্যমে বিষয়শ্রেণী:দাবার গ্র্যান্ডমাস্টার অপসারণ)
 
{{পদক|Competition|[[মহিলাদের বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ]]}}
{{পদক ব্রোঞ্জ|[[মহিলাদের বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ ২০১৫|২০১৫ সোচি]]|একক}}
{{পদক প্রতিযোগিতা|[[Asianএশিয়ান Gamesগেমস]]}}
{{পদক|Bronze|[[২০১০ এশিয়ান গেমস]]|[[২০১০ এশিয়ান গেমসে দাবায় মহিলাদের একক]]}}
{{MedalBottom}}
'''হরিকা দ্রোণাভাল্লি''' (জন্ম ১২ই জানুয়ারী, ১৯৯১) একজন ভারতীয় দাবা [[গ্র্যান্ডমাস্টার (দাবা)|গ্র্যান্ডমাস্টার]]। তিনি ২০১২, ২০১৫ এবং ২০১৭ সালে মহিলা বিশ্ব দাবা চ্যাম্পিয়নশিপে তিনটি ব্রোঞ্জ পদক জিতেছেন।হরিকাজিতেছেন। হরিকা ২০০৭-০৮ সালে ভারত সরকার দ্বারা [[অর্জুন পুরস্কার|অর্জুন পুরস্কারে]] ভূষিত হয়েছেন<ref name="auto">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.thehindu.com/todays-paper/tp-national/tp-andhrapradesh/Harikarsquos-parents-on-cloud-nine/article15273259.ece|শিরোনাম=Harika’s parents on cloud nine|কর্ম=The Hindu|সংগ্রহের-তারিখ=2017-08-25|ভাষা=en}}</ref>। ২০১৬ সালে, তিনি [[গণচীন|চীনের]] চেংডুতে মহিলাদের ফিডে গ্রাঁ পি জিতেছেন এবং ফিডে বিশ্ব র্যানকিং-য়েক্রমপর্যায়ে পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছিলেন।হরিকারএসেছিলেন। হরিকার নিজের কথায়, [[ভ্লাদিমির ক্রামনিক|ভ্লাদিমির]] ক্রামনিক, [[জুডিট পোলগার]] এবং [[বিশ্বনাথন আনন্দ]] তাঁর দাবা খেলার অনুপ্রেরণা<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.youtube.com/watch?v=Q3a4j6Bx-78|শিরোনাম=Olympiad Tromsø 2014 - A quick chat with Harika Dronavalli|শেষাংশ=PowerPlayChess|প্রথমাংশ=|তারিখ=14 August 2014|প্রকাশক=|via=YouTube}}</ref>।২০১৯ সালে ক্রীড়া ক্ষেত্রে তাঁর সাফল্য ও অবদানের জন্য তিনি ভারতের চতুর্থ সর্ব্বোচ্চ পুরস্কার '[[পদ্মশ্রী]]' জয় করেছেন<ref>[http://www.newindianexpress.com/nation/2019/jan/26/heres-the-complete-list-of-padma-awardees-2019-1930046.html Here is the complete list of Padma awardees 2019- The New Indian Express]</ref>।
<br />
 
== প্রাথমিক জীবন ==
হরিকা ১৯৯১ সালের ১২ই জানুয়ারী,[[অন্ধ্রপ্রদেশ|অন্ধ্রপ্রদেশের]] [[গুন্টুর জেলা|গুন্টুরে]] শ্রী রমেশ এবং শ্রীমতী স্বর্ণা দ্রোণাভাল্লির ঘরে জন্মগ্রহণ করেন। তারতাঁর পিতা রমেশ দ্রোণাভাল্লি মঙ্গলগিরি উপবিভাগের একজন উপ-নির্বাহী প্রকৌশলপ্রকৌশলী রূপে কাজ করেন<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.thehindu.com/todays-paper/tp-national/tp-andhrapradesh/Harikarsquos-parents-on-cloud-nine/article15273259.ece|শিরোনাম=Harika’s parents on cloud nine|তারিখ=2008-08-06|কর্ম=The Hindu|সংগ্রহের-তারিখ=2018-05-03|ভাষা=en-IN|issn=0971-751X}}</ref> এবং তিনি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়-স্তরের একজন দাবা খেলোয়াড়।। হরিকা অন্ধ্র প্রদেশের গুন্টুরের শ্রী ভেঙ্কটেশ্বর বালা কুটিরের ছাত্রী ছিলেন<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=https://www.thehindu.com/sport/other-sports/calculated-moves/article2318689.ece|শিরোনাম=Calculated moves|শেষাংশ=Subrahmanyam|প্রথমাংশ=V. V.|তারিখ=2011-08-03|কর্ম=The Hindu|সংগ্রহের-তারিখ=2019-05-31|ভাষা=en-IN|issn=0971-751X}}</ref>। খুব ছোট বয়স থেকেই তাঁর দাবার প্রতি অসীম আগ্রহ ছিল। অনূর্ধ্ব নবম বয়সীদের জাতীয় স্তরের প্রতিযোগিতায় তিনি একটি পদক জয় করেন, তারপর বিশ্ব যুব দাবা প্রতিযোগিতায় অনূর্ধ্ব দশম বয়সীদের প্রতিযোগিতায় তিনি রৌপ্য পদক জয় করেন। তখন থেকেই তিনি এন ভি এস রামারাজুর অধীনে প্রশিক্ষণ নেওয়া শুরু করেন, যিনি হরিকার খেলার রীতিকে আরও পরিশীলিত করেন। [[হাম্পি কোনেরু হাম্পি]]<nowiki/>র পরে হরিকা দ্রোণাভাল্লিই দ্বিতীয় ভারতীয় মহিলা দাবা খেলোয়ারখেলোয়াড় যিনি গ্র্যাণ্ডমাস্টার উপাধি অর্জন করেছেন।
 
হরিকা তাঁর পড়াশোনা সম্পূর্ণ করেননি যেহেতু তিনি তাঁর পরিবারের সহায়তায় দাবাতে সম্পূর্ণ মনোনিবেশ করার সচেতন সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।
 
২০১৮ সালের আগস্ট মাসে তিনি কার্তিক চন্দ্রের সাথে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।বিয়েরহন। বিয়ের সময় তারতাঁর আন্তর্জাতিক খেলোয়াড় জীবনে প্রথমবারের মত একমাসের বিরতি নেন তিনি। <ref>https://www.chess.com/news/view/harika-dronavallis-wonderful-wedding</ref>
 
হরিকা বিশ্বের প্রায় ৪০টিরও বেশি দেশে ভ্রমণ করেছেন।তিনিকরেছেন। তিনি মনে করেন যে রাশিয়ানরা দাবা সম্পর্কে সবচেয়ে আগ্রহী।হরিকারআগ্রহী। হরিকার ভ্রমণের জন্য প্রিয় স্থান হ'ল নর্ডিক দেশগুলি – আইসল্যান্ড, নরওয়ে এবং সুইডেন। যখন খেলা থাকে না, তখন তিনি এই মনোরম দেশগুলিতে গ্রামাঞ্চলে এবগ্নএবং সমুদ্রতীরে সাইকেল চালাতে ভালবাসেন।আন্তর্জাতিকভালবাসেন। আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা চলাকালীন, হরিকা সাধারণত তাঁর খাদ্যাভ্যাস নিয়ে সচেতন থাকেন এবং সঙ্গে করে খাবার বানিয়ে নেওয়ার মত বাসন বয়ে নিয়ে যান যাতে নিজের জন্য সহজ দক্ষিণ ভারতীয় খাবার প্রস্তুত করে নিতে পারেন। হারিকারহরিকার প্রিয় ভ্রমণ সঙ্গী তারতাঁর বাবা-মা এবং তারতাঁর দিদিমাও অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ প্রতিযোগিতায় তাঁর সাথে ভ্রমণ করেছেন।
 
== সাফল্য ==
* ফিডে মহিলাদের গ্রাঁ পি, চেংদু, [[চীন]] - স্বর্ণ পদক.
* এশিয়ান মহিলাদের দলগত দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ, [[সংযুক্ত আরব আমিরাত]]
** ভারতীয় দলের সদস্য রূপে র্যাপিডর‍্যাপিড রীতিতে ব্রোঞ্জ পদক
** র্যাপিডর‍্যাপিড রীতিতে ব্যক্তিগত স্বর্ণ পদক
** ঐতিহ্যশালী রীতিতে টপ বোর্ডে ব্যক্তিগত রৌপ্য পদক
 
 
* বিশ্ব মহিলা অনলাইন ব্লিতজ চ্যাম্পিয়নশিপ, [[রোম]] - স্বর্ণ পদক.
* এশিয়ান র্যাপিডর‍্যাপিড মহিলা দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ, [[সংযুক্ত আরব আমিরাত]] - ব্রোঞ্জ পদক.
* বিশ্ব মহিলা দলগত দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ, [[চীন]]
** ভারতীয় দলের সদস্য রুপেরূপে চতুর্থ স্থান
*** ব্যক্তিগত রৌপ্য পদক দ্বিতীয় বোর্ড
* বিশ্ব মহিলা দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ, [[সোচি]] - ব্রোঞ্জ পদক.
** ভারতীয় দলের সদস্য রূপে রৌপ্য পদক
** টপ বোর্ডে ব্যক্তিগত স্বর্ণ পদক
** র্যাপিডর‍্যাপিড রীতিতে দলগত রৌপ্য পদক
** ব্লিতজব্লিটজ রীতিতে দলগত স্বর্ণ পদক
 
=== ২০১২ ===
** ভারতীয় দলের সদস্য রূপে ব্রোঞ্জ পদক
* মহিলা দাবা অলিম্পিয়াড, [[তুরস্ক]]
** ভারতীয় দলের সদস্য রুপেরূপে চতুর্থ স্থান
* বিশ্ব মহিলাদের দলগত দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ, [[তুরস্ক]]
** ব্যক্তিগত রৌপ্য পদক
** তৃতীয় এশিয়ান ইনডোর গেমস, [[ভিয়েতনাম]]
** মহিলাদের ব্যক্তিগত র‌্যাপিড দাবা - ব্রোঞ্জ পদক।
** টিম ব্লিটজ দাবার সদস্য্রূপেসদস্যরূপে - ব্রোঞ্জ পদক।
** দলগত র‌্যাপিড দাবা - ব্রোঞ্জ পদক
**
* বিশ্ব জুনিয়র বালিকাদের দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ, [[তুরস্ক]] - স্বর্ণপদক।
* এশিয়ান মহিলা দলগত দাবা চ্যাম্পিয়নশিপ, [[বিশাখাপত্তনম]]
** ভারতীয় দলের অধিনায়ক্রূপেঅধিনায়করূপে রৌপ্য পদক জয়
** টপ বোর্ডে ব্যক্তিগত রৌপ্য পদক
**