পলাশ: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

১টি উৎস উদ্ধার করা হল ও ০টি অকার্যকর হিসেবে চিহ্নিত করা হল।) #IABot (v2.0
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
(১টি উৎস উদ্ধার করা হল ও ০টি অকার্যকর হিসেবে চিহ্নিত করা হল।) #IABot (v2.0)
পলাশ গাছ সর্বোচ্চ ১৫ মিটার পর্যন্ত উঁচু হয়ে থাকে। শীতে গাছের পাতা ঝরে যায়। এর বাকল ধূসর। শাখা-প্রশাখা ও কাণ্ড আঁকাবাঁকা। নতুন পাতা রেশমের মতো সূক্ষ্ম। গাঢ় সবুজ পাতা ত্রিপত্রী, দেখতে অনেকটা [[মান্দার|মান্দার গাছের]] পাতার মতো হলেও আকারে বড়।
 
বসন্তে এ গাছে ফুল ফোটে। টকটকে লাল ছাড়াও হলুদ ও লালচে কমলা রঙের পলাশ ফুলও দেখা যায়। পলাশ ফুল ছোট, ফুল ২ থেকে ৪ সেঃ মিঃ লম্বা হয়।<ref name="মঞ্জরি">{{সংবাদ উদ্ধৃতি |শেষাংশ=আওয়াল |প্রথমাংশ=শেখ আব্দুল |ইউআরএল=http://web.dailyjanakantha.com/details/article/409095/অরণ্যে-অগ্নিশিখা-ফোটে-বসন্তে-লম্বা-মঞ্জরি/print/ |শিরোনাম=অরণ্যে অগ্নিশিখা ফোটে বসন্তে লম্বা মঞ্জরি |কর্ম=[[দৈনিক জনকণ্ঠ]] |অবস্থান=ঢাকা |প্রকাশক=এম এ খান মাসুদ |তারিখ=2019-03-12 |সংগ্রহের-তারিখ=2019-10-06 |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20191006055441/http://web.dailyjanakantha.com/details/article/409095/%25E0%25A6%2585%25E0%25A6%25B0%25E0%25A6%25A3%25E0%25A7%258D%25E0%25A6%25AF%25E0%25A7%2587-%25E0%25A6%2585%25E0%25A6%2597%25E0%25A7%258D%25E0%25A6%25A8%25E0%25A6%25BF%25E0%25A6%25B6%25E0%25A6%25BF%25E0%25A6%2596%25E0%25A6%25BE-%25E0%25A6%25AB%25E0%25A7%258B%25E0%25A6%259F%25E0%25A7%2587-%25E0%25A6%25AC%25E0%25A6%25B8%25E0%25A6%25A8%25E0%25A7%258D%25E0%25A6%25A4%25E0%25A7%2587-%25E0%25A6%25B2%25E0%25A6%25AE%25E0%25A7%258D%25E0%25A6%25AC%25E0%25A6%25BE-%25E0%25A6%25AE%25E0%25A6%259E%25E0%25A7%258D%25E0%25A6%259C%25E0%25A6%25B0%25E0%25A6%25BF/print/ |আর্কাইভের-তারিখ=২০১৯-১০-০৬ |অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ }}</ref>
 
পলাশের ফল দেখতে অনেকটা [[শিম|শিমের]] মতো। [[বাংলাদেশ|বাংলাদেশে]] প্রায় সব জায়গাতে কমবেশি পলাশ গাছ দেখতে পাওয়া যায়।<ref name="ক" />
১,১৮,২৮২টি

সম্পাদনা