নৈরঞ্জনা ঘোষ: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
সম্পাদনা সারাংশ নেই
| title = সাংবাদিক, সংবাদ উপস্থাপক
}}
'''নৈরঞ্জনা ঘোষ''' হলেন একজন [[ভারতীয়]] [[সাংবাদিক]] এবং [[টেলিভিশন উপস্থাপক]]। ২০০৪ সালে ক্যারিয়ারকর্মজীবন শুরু করার পর থেকে এপর্যন্ত তিনি [[স্টার আনন্দ]] (বর্তমানে [[এবিপি আনন্দ]]), [[কলকাতা টিভি]] এবং [[নিউজ টাইম|নিউজ টাইমের]] সাথে কাজ করেছেন। প্রাইম টাইম সংবাদ উপস্থাপক হিসাবে তিনি বিভিন্ন সংবাদ কাহিনী নিয়ে বিভিন্ন আলোচনার আয়োজন করেছেন বিতর্কএবং সৃষ্টিবিতর্কসভা করেছেনউপস্থাপন এবংকরেছেন। তিনি [[ভারতীয় উপমহাদেশ|ভারতীয় উপমহাদেশের]] বিভিন্ন রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক এবং সামাজিক গল্পেরঘটনার বিস্তৃত বিবরণেপ্রতিবেদন ব্যাপকভাবে রিপোর্টউপস্থিত করেছেন। ২০০৭ সালে তিনি ভারতের কলকাতার [[টেলি সিনে পুরস্কার|টেলি সিনে পুরস্কারে]] "সেরা সংবাদ উপস্থাপক" বিভাগে মনোনয়ননির্বাচিত পেয়েছিলেন।হয়েছিলেন।
 
== প্রারম্ভিক জীবন ==
নৈরঞ্জনা ঘোষ ১৩ই ফেব্রুয়ারি তারিখে [[ভারত|ভারতের]] [[পশ্চিমবঙ্গ|পশ্চিমবঙ্গের]] [[কলকাতা|কলকাতায়]] জন্মগ্রহণ করেছেন। তিনি তারতাঁর জন্মভূমিজন্মস্থান কলকাতাতেই তারতাঁর শৈশব অতিবাহিত করেছেন।
 
== শিক্ষা ==
নৈরঞ্জনা কলকাতার [[লোরেটো স্কুল, কলকাতা|লোরেটো স্কুল]] এবং কলকাতার [[মডার্ন হাই স্কুল ফর গার্লস]] হতে তাঁর স্কুল জীবনের শিক্ষা সম্পন্ন করেছেন। তিনি কলকাতার [[সেন্ট জেভিয়ার'স কলেজ, কলকাতা|সেন্ট জেভিয়ার'স কলেজ]] থেকে [[ইংরেজি সাহিত্য]] বিভাগেবিষয়ে ডিগ্রি নিয়ে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন। তিনি [[কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়]] থেকে [[সাংবাদিকতা]] ও [[গণ যোগাযোগ]] বিভাগে স্নাতকোত্তর এবং [[যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়]] থেকে গণযোগাযোগ বিভাগে স্নাতকোত্তর ডিপ্লোমা সম্পন্ন করেছেন।
 
== পেশা ==
নৈরঞ্জনা ২০০৪ সালের ডিসেম্বর মাসে [[স্টার আনন্দ|স্টার আনন্দে]] (বর্তমানে [[এবিপি আনন্দ]]) একজন সাংবাদিক ও সংবাদ উপস্থাপক হিসাবে তাঁর ক্যারিয়ারকর্মজীবন শুরু করেছিলেন। তিনি ২০০৫ সালের জুন মাসে চ্যানেলটি উদ্বোধন করার সময় থেকেই চ্যানেলটির সাথে সংযুক্ত ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি [[কলকাতা টিভি|কলকাতা টিভিতে]] জ্যেষ্ঠবরিষ্ঠ সংবাদ উপস্থাপক এবং সাংবাদিক হিসাবে যোগদান করেছিলেন। এখানেও, তিনিই চ্যানেলটির প্রতিষ্ঠাতাপ্রতিষ্ঠার সদস্যসময় ছিলেনথেকে চ্যানেলেছিলেন। যোগদানএখানেও করেছেন এবংতিনি বিভিন্ন সংবাদের গল্পের রিপোর্টপ্রতিবেদন করার পাশাপাশি বিতর্ক এবং আলোচনামূলক অনুষ্ঠানের উপস্থাপনা করেছেন। তারতাঁর জনপ্রিয় অনুষ্ঠানগুলোর মধ্যে ''জিরো আওয়ার'', ''স্টেডিয়াম'', ''কলকাতা লাইভ'', ''আটটার খবর'' অন্যতম ছিল। চ্যানেলটি চালু করারহবার প্রচারণারসময় প্রচারপ্রচারণার মুখ হওয়া ছাড়াও তিনি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের উপস্থাপনার দায়িত্ব পালন এবং চ্যানেলের সংবাদ নীতিমালা তৈরি করেছেন। [[নিউজ টাইম]] নৈরঞ্জনার কাছ থেকে অনেক সৃজনশীল ধারণা গ্রহণ করেছিল।
 
== পুরস্কার এবং সম্মাননা ==
নৈরঞ্জনা ২০০৭ সালে ভারতের কলকাতা [[টেলি সিনে পুরস্কার|টেলি সিনে পুরস্কারে]] "সেরা সংবাদ উপস্থাপক" বিভাগে পুরস্কার জয়লাভলাভ করেন। ২০০৭ সালে, [[কলকাতা টিভি]] তাকেতাঁকে "বাংলার মুখ" (বাংলার মুখ) উপাধি দিয়ে ভূষিত করেছিল। ২০০৮ সালে তিনি [[দিয়েগো মারাদোনা|দিয়েগো আরমান্দো মারাদোনার]] কলকাতা সফরের একচেটিয়া সাক্ষাৎকারপ্রতিবেদন গ্রহণকরার করেছিলেন।দায়িত্ব পেয়েছিলেন। নৈরঞ্জনা নিউজ টাইমের জন্য সাবেকপ্রাক্তন ভারতীয় [[টেস্ট ক্রিকেট|টেস্ট]] [[অধিনায়ক (ক্রিকেট)|অধিনায়ক]] [[সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়|সৌরভ গাঙ্গুলীর]] সাথে মিলিত হয়েযৌথভাবে [[২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপ|২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপের]] বিশ্লেষণাত্মক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন। নৈরঞ্জনা ২৪ ঘণ্টা চলমান ৩টি আলাদা নিউজ চ্যানেলের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য হয়ে একটি বিরল কীর্তি অর্জন করেছেন।
 
== তথ্যসূত্র ==