"স্যামসন এইচ চৌধুরী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎জন্ম ও পারিবারিক জীবন: সমাধিস্থ করার তথ্যটি এই প্রবন্ধে অনুপস্থিত ছিল। বিধায় তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা ও সমবেদনা জ্ঞাপনের একটি ছবিসহ তথ্যটি সংযুক্ত করা হলো।
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
(→‎জন্ম ও পারিবারিক জীবন: সমাধিস্থ করার তথ্যটি এই প্রবন্ধে অনুপস্থিত ছিল। বিধায় তাঁর প্রতি শ্রদ্ধা ও সমবেদনা জ্ঞাপনের একটি ছবিসহ তথ্যটি সংযুক্ত করা হলো।)
 
== জন্ম ও পারিবারিক জীবন ==
স্যামসন এইচ চৌধুরীর জন্ম ১৯২৫ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর [[ফরিদপুর]] জেলায়। তার বাবা ইয়াকুন এইচহোসাইন চৌধুরী ও মা লতিকা চৌধুরী। তার স্ত্রীর নাম অনিতা চৌধুরী। তার তিন ছেলে - অঞ্জন চৌধুরী, [[তপন চৌধুরী (ব্যবসায়ী)|তপন চৌধুরী]] ও স্যামুয়েল চৌধুরী। <ref>[http://archive.prothom-alo.com/detailed/date/2012-01-06/news/214331 স্যামসন চৌধুরী আর নেই]{{অকার্যকর সংযোগ|তারিখ=এপ্রিল ২০১৯ |bot=InternetArchiveBot |ঠিক করার প্রচেষ্টা=yes }} প্রথম আলো, ৬ জানুয়ারি ২০১২</ref>
 
== শিক্ষাজীবন ==
স্যামসন এইচ চৌধুরীর বাবা ছিলেন আউটডোর ডিসপেনসারির মেডিক্যাল অফিসার। বাবার পেশার সুবাদে ছোটবেলা থেকেই ঔষুধ নিয়ে তিনি নাড়াচাড়া করেছেন। [[ভারত]] থেকে শিক্ষাজীবন শেষ করে ফিরে আসেন তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের পাবনার আতাইকুলা গ্রামে। ১৯৫২ খ্রিষ্টাব্দে চিন্তাভাবনা করে তিনি 'ফার্মেসি'কেই ব্যবসায় হিসেবে বেছে নিলেন; গ্রামের বাজারে দিলেন ছোট একটি দোকান। ১৯৫৮ খ্রিষ্টাব্দে [[যুক্তফ্রন্ট সরকার]] তখন ক্ষমতায় থাকাকালীন সময়ে পেয়ে যান ওষুধ কারখানা স্থাপনের একটা লাইসেন্স। তিনিসহ আরো তিন বন্ধুর সঙ্গে মিলে প্রত্যেকে ২০ হাজার টাকা করে মোট ৮০ হাজার টাকায় পাবনায় কারখানা স্থাপন করলেন স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস। স্কয়ারের নামকরণও করা হয়েছিল চার বন্ধুর প্রতিষ্ঠান হিসেবে। তাই এর লোগোও তাই বর্গাকৃতির। ১৯৫৮ খ্রিষ্টাব্দের স্থাপিত প্রতিষ্ঠানটিতে বর্তমানে ৩০ হাজার শ্রমিক কর্মরত।<ref>[http://archive.prothom-alo.com/detail/date/2012-01-05/news/214224 দৈনিক প্রথম আলো]</ref> শুধু ঔষুধেই নয়, এই শিল্প গ্রুপের ব্যবসায় সম্প্রসারিত হয়েছে প্রসাধনসামগ্রী, টেক্সটাইল, পোশাক তৈরী, কৃষিপণ্য, তথ্যপ্রযুক্তি, স্বাস্থ্যসেবা এমনকি মিডিয়াতেও। তিনি দেশের অন্যতম বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল [[মাছরাঙা (টিভি চ্যানেল)|মাছরাঙার]] চেয়ারম্যান ছিলেন। স্কয়ার গ্রুপ ২০০৯-১০ অর্থবৎসরে [[জাতীয় রাজস্ব বোর্ড]] কর্তৃক ''সেরা করাদাতা'' নির্বাচিত হয়েছিলো।<ref>[http://www.dailykalerkantho.com/print_news.php?pub_no=244&cat_id=1&menu_id=24&news_type_id=1&index=3 দৈনিক কালের কন্ঠ]</ref>
 
== শ্রদ্ধা ও সমাধি ==
পাবনার কাশিপুরস্থ খামারবাড়ী এস্ট্রাসে স্যামসন এইচ চৌধুরীকে সমাহিত করা হয়। সমাহিত করার পূর্বে ধর্মীয় আচার-অনুষ্ঠান অনুযায়ী বিশেষ প্রার্থনা করা হয়। সমাহিত করার মূহুর্তে পরিবারের সকল সদস্যবৃন্দসহ স্কয়ার পরিবারের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
[[চিত্র:High profiles are offering condolences to coffin at Square Premises in Pabna Town for Samson H Chowdhury before his burial at ASTRAS Firm House in Kashipur, Pabna.jpg|alt=High profiles are offering condolences to coffin at Square Premises in Pabna Town for Samson H Chowdhury before his burial at ASTRAS Firm House in Kashipur, Pabna|থাম্ব|260x260পিক্সেল|পাবনার কাশিপুর এ্যাস্ট্রাস খামারবাড়িতে স্যামসন এইচ চৌধুরীকে দাফনের আগে পাবনা শহরের স্কয়ার প্রাঙ্গনে কফিনে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ সমবেদনা জ্ঞাপন করছেন।]]
<br />
== সম্পৃক্ততা ==
* চেয়ারম্যান, [[স্কয়ার গ্রুপ]]
২৩টি

সম্পাদনা