"বাইবার্স‌" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
 
==সিংহাসনে আরোহণ==
১২৫০ সালে মানসূরাহ্ এর যুদ্ধে সুলতান রুকনউদ্দীন বাইবারস ক্রুসেডের নেতৃত্ব দানকারী সম্রাট ৯ম লুই-কে স্বপারিষদে বন্দী করেন। এটা ছিল বিরাট এক সাফল্য কারণ ক্রুসেডের ইতিহাসে এই প্রথম বারের ক্রুসেডের নেতৃত্ব দানকারী কোন সম্রাটকে স্বপারিষদে বন্দী করা গেল। ক্রুসেডের নেতৃত্ব দানকারী খোদ ফ্রান্সের সম্রাট বন্দী সুলতান রুকনউদ্দীন বাইবারস এর কাছে!
বাইবার্স এর আশা ছিল আইন জালুতের যুদ্ধে বীরত্বের পুরস্কার হিসেবে সুলতান কুতুয তাকে আলেপ্পোর শাসনভার দেবেন। কিন্তু সুলতান কোন এক কারনে তার সেই আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে পারেননি। ফলে সেই ক্ষোভ ও পূর্ব বিরোধের জেরে এক ষরযন্ত্রের মাধ্যমে সুলতান কুতু্যকে হত্যা করে ২৪ অক্টোবর ১২৬০ খ্রীস্টাব্দে তার স্থলে আল মালিকুজ জাহির উপাধি নিয়ে মিশরের সিংহাসনে আরোহণ করেন। তার অসাধারন রণনৈপূণ্যে মামলুক সালতানাত দূর্ধর্ষ বার্বার,মঙ্গোল,ক্রুসেডার এবং গুপ্তঘাতকদে হাত থেকে নিরাপদ হয়ে পরবর্তী আড়াই শত বছর পর্যন্ত টিকে ছিল।
 
সুলতান রুকনউদ্দীন বাইবারস চাইছিলেন যে সম্রাটকে মুক্তি দেওয়ার শর্ত হবে ১টাই- সেটা অল কান্ট্রি অব ত্রিপোলী মুসলিমদের কাছে ছেড়ে দিতে হবে। কিন্তু সুলতান তুরান শাহ্ সম্রাট ৯ম লুইকে অর্থের বিনিময়ে মুক্ত করে দিলে সুলতান রুকনউদ্দীন বাইবারস এতই ক্রুদ্ধ হন যে, – সুলতান তুরান শাহকে হত্যাই করে ফেলেন। কারণ তার মতে অর্থের বিনিময়ে সম্রাট ৯ম লুইকে মুক্ত করে দেওয়া ছিল মুসলিমদের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা। তার অসাধারন রণনৈপূণ্যে মামলুক সালতানাত দূর্ধর্ষ বার্বার,মঙ্গোল,ক্রুসেডার এবং গুপ্তঘাতকদে হাত থেকে নিরাপদ হয়ে পরবর্তী আড়াই শত বছর পর্যন্ত টিকে ছিল।
 
==রণাঙ্গনে বাইবার্স==
বেনামী ব্যবহারকারী