"২০০২ গুজরাত দাঙ্গা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
| image_size =
}}
'''২০০২ গুজরাট দাঙ্গা''' ছিল [[পশ্চিম ভারত|পশ্চিম ভারতের]] [[গুজরাত]] রাজ্যে তিন দিনের আন্ত-সাম্প্রদায়িক সহিংসতা, যা '''২০০২ গুজরাট সহিংসতা''' এবং '''গুজরাট সাম্প্রদায়িক সহিংসতা''' হিসাবেও পরিচিত। এটি মূলত গুজরাটের সাম্রদায়িক মুখ্যমন্ত্রী নরপশু নরেন্দ্র মোদির মাধ্যমেই সংগঠিত হয়, এই জন্যই নরেন্দ্র মোদিকে গুজরাট দাঙ্গার মুল হোতা বলা হয়।{{sfn|Ghassem-Fachand|2012|p=1-2}}<ref name="Bilgrami2013">{{cite book |authorlink=Akeel Bilgrami |last=Bilgrami |first=Akeel |title=Democratic Culture: Historical and Philosophical Essays |url=https://books.google.com/books?id=C4YSqkgAWUsC&pg=PA143 |date=1 February 2013 |publisher=Routledge |isbn=978-1-136-19777-2 |pages=143}}</ref><ref name="Berenschot2014">{{cite book |last=Berenschot |first=Ward |chapter=Rioting as Maintaining Relations: Hindu-Muslim Violence and Political Mediation in Gujarat, India |editor1=Jutta Bakonyi |editor2=Berit Bliesemann de Guevara |title=A Micro-Sociology of Violence: Deciphering Patterns and Dynamics of Collective Violence |chapter-url=https://books.google.com/books?id=-QjKAwAAQBAJ&pg=PA18 |date=11 June 2014 |publisher=Routledge |isbn=978-1-317-97796-4 |pages=18–37}}</ref><ref>{{cite book |author=Indian Social Institute |title=The Gujarat pogrom: compilation of various reports |year=2002 |url=https://books.google.com/books?id=M0ZuAAAAMAAJ}}</ref> প্রাথমিক ঘটনার পরে [[আহমেদাবাদ]] শহরে তিন মাস ধরে সহিংসতার আরও প্রকোপ ছড়িয়ে পড়ে; পরের বছর, রাজ্যব্যাপী, সংখ্যালঘু মুসলিম জনসংখ্যার বিরুদ্ধে সহিংসতার আরও প্রকোপ দেখা যায়।{{sfn|Ghassem-Fachand|2012|p=1-2}}<ref name="Escherle 2013"/> ২০০২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারি গোধড়ায় একটি ট্রেন জ্বালিয়ে দেওয়া হয়, যার ফলে কারণে অযোধ্যা থেকে ফিরে আসা ৫৯ জন হিন্দু তীর্থযাত্রী মারা যায়। এই ঘটনাকে গুজরাত সহিংসতার প্ররোচনা বলে উল্লেখ করা হয়।<ref>{{cite book|title=The Fundamentalist City?: Religiosity and the Remaking of Urban Space|url=https://books.google.com/books?id=uKnHBQAAQBAJ&pg=PT34|quote=godhra train burning which led to the gujarat riots of 2002|publisher=Routledge|page=34|author=Nezar AlSayyad, Mejgan Massoumi|isbn=9781136921209|date=13 September 2010}}</ref><ref>{{cite book|title=Communal Violence, Forced Migration and the State: Gujarat since 2002|quote=gujarat 2002 riots caused godhra burning|publisher=Cambridge University Press|page=98|url=https://books.google.com/books?id=MiW8CwAAQBAJ&pg=PA98|author=Sanjeevini Badigar Lokhande|isbn=9781107065444|date=13 October 2016}}</ref><ref>{{cite book|title=Resurgent India|url=https://books.google.com/books?id=8xxqCwAAQBAJ&pg=PA70|page=70|publisher=Prabhat Prakashan|isbn=9788184302011|year=2014}}</ref><ref>{{cite book|author= Isabelle Clark-Decès|publisher=John Wiley & Sons|url=https://books.google.com/books?id=98uLj5FpTHQC|title=A Companion to the Anthropology of India|quote=the violence occurred in the aftermath of a fire that broke out in carriage of the Sabarmati Express train|isbn=9781444390582|date=10 February 2011}}</ref>
 
সরকারী পরিসংখ্যান অনুসারে, দাঙ্গায় ১,০৪৪ জন নিহত, ২২৩ নিখোঁজ এবং ২,৫০০ আহত হয়। নিহতদের মধ্যে ৭৯০ জন মুসলমান এবং ২৫৪ হিন্দু ছিলেন।<ref name="Official death toll"/> সংশ্লিষ্ট নাগরিক ট্রাইব্যুনাল রিপোর্টে,<ref>{{cite web|title=Report on Godhra riots|url=http://www.sabrang.com/tribunal/|website=www.sabrang.com|publisher=Concerned Citizens Tribunal Report|accessdate=4 July 2017}}</ref> অনুমান করেছে যে প্রায় ১,৯২৬ জন নিহত হতে পারে।<ref name="teesta"/> অন্যান্য উত্স অনুসারে মৃতের সংখ্যা ২ হাজারেরও বেশি।<ref>{{cite journal|last=Jaffrelot|first=Christophe|title=Communal Riots in Gujarat: The State at Risk?|journal=Heidelberg Papers in South Asian and Comparative Politics|date=July 2003|page=16|url=http://archiv.ub.uni-heidelberg.de/volltextserver/4127/1/hpsacp17.pdf|accessdate=5 November 2013}}</ref> বহু নৃশংস হত্যাকাণ্ড ও ধর্ষণের পাশাপাশি ব্যাপক লুটপাট ও সম্পদ ধ্বংসের খবর পাওয়া যায়। গুজরাতের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী এবং পরবর্তীকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী [[নরেন্দ্র মোদী]]র বিরুদ্ধে এই সহিংসতা শুরু করার এবং প্রশ্রয় দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়, যেমন পুলিশ এবং সরকারী আধিকারিকরা যারা দাঙ্গাকারীদের নির্দেশনা দিয়েছিল এবং মুসলমানদের মালিকানাধীন সম্পত্তির তালিকা তাদেরকে দিয়েছিল।<ref name="Murphy 2011"/>
বেনামী ব্যবহারকারী