"আলাউদ্দিন খিলজি" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন
(সংশোধন)
}}
 
'''আলাউদ্দিন-খিলজি'''(শাসন কালঃ[[১২৯৬]]-[[১৩১৬]])তিনি ছিলেন [[খিলজি রাজবংশ|খিলজি]] বংসেরবংশের দ্বিতীয় এবং সবচেয়ে শক্তিশালী শাসক। যিনি [[দিল্লি]]তে বসে ভারতীয় উপমহাদেশে খিলজি শাসন পরিচালনা করেছেন।তিনি চেয়েছিলেন ভারতীয় ইতিহাসেও একজন [[মহান আলেকজান্ডার|আলেকজেন্ডারের]] মতো শক্তিশালী কারো কথা উল্লেখ করা থাকুক। তাই তিনি নিজেকে ২য় আলেকজেন্ডার (সিকান্দার-এ-সানি) হিসেবে পরিচিত করার চেষ্টা চালিয়ে যান। তিনি নিজের নামে মুদ্রা প্রচলন করেন এবং জুম্মাহের খুতবার আগের বয়ানে নিজের কৃতিত্ব বর্ণনার আদেশ দেন।
 
আলাউদ্দিন খিলজি ছিলেন খিলজি বংশের প্রতিষ্ঠাতা [[জালালউদ্দিন খিলজি|জালালুদ্দিন]] খিলজির ভাতিজা এবং জামাতা। [[বীরভূম জেলা|বীরভূমদেরকে]] পরাজিত করে জালালুদ্দিন খিলজি যখন [[দিল্লি]] দখল করে নেন, তখন আলাউদ্দিন খিলজিকে আমির-ই-তুজুখ বা উদযাপন মন্ত্রী পদ দেওয়া হয়। ১২৯১ সালে জালালুদ্দিন খিলজি তার ভাতিজা আলাউদ্দিন খিলজির হাতে কারা্([[কানপুর|কানপুরের]] নিকটবর্তী এক এলাকা)নামক অঞ্চলের শাসনভার তুলে দেন। ১২৯৬ সালে আলাউদ্দিন খিলজি বসিলা অবরোধ করে জালালুদ্দিন খিলজির কাছে থেকে আবাধ([[উত্তরপ্রদেশ|উত্তর-প্রদেশ]]) দখল করেন। ১২৯৬ সালে দেভাগিরি অবরোধ করেন এবং জালালুদ্দিনের বিপুল পরিমানের সম্পদ দখল করে নেন। জালালুদ্দিন খিলজিকে হত্যা করে, তিনি দিল্লিতে নিজের শাসন প্রতিষ্ঠা করেন এবং পরবর্তীতে জালালুদ্দিনের ছেলের কাছ থেকে [[মুলতান]] দখল করে নেন।
১,৮৫৬টি

সম্পাদনা