দ্য টাইমস: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(0টি উৎস উদ্ধার করা হল ও 1টি অকার্যকর হিসেবে চিহ্নিত করা হল। #IABot (v2.0beta10ehf1))
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
| website = [http://www.thetimes.co.uk/ www.thetimes.co.uk]
| circulation = ৫০২,৪৩৬ (মার্চ ২০১০)<ref name="abc">{{সংবাদ উদ্ধৃতি
| lastশেষাংশ = Tryhorn
| firstপ্রথমাংশ = Chris
| titleশিরোনাম = April ABCs: ''Financial Times'' Dips for Second Month
| workকর্ম = [[The Guardian]]
| dateতারিখ = 9 May 2008
| urlইউআরএল = http://www.guardian.co.uk/media/2008/may/09/abcs.pressandpublishing1
| accessdateসংগ্রহের-তারিখ = 24 May 2008
}}</ref>
}}
'''দ্য টাইমস''' ([[ইংরেজী|ইংরেজীতে]]: The Times) যুক্তরাজ্যের একটি দৈনিক। ১৭৮৫ সালে পত্রিকাটি যুক্তরাজ্যে প্রথম প্রকাশিত হয়। সেসময় এটি ''দ্য ডেইলি ইউনিভার্সাল রেজিস্টার'' নামে পরিচিত ছিল।
''দ্য টাইমস'' এবং ''দ্য সানডে টাইমস'' উভয়ই টাইমস নিউজপেপারস লিমিটেড কর্তৃক প্রকাশিত হয়। টাইমস নিউজপেপারস লিমিটেড [[নিউজ ইন্টারন্যাশনাল|নিউজ ইন্টারন্যাশনালের]] একটি অঙ্গপ্রতিষ্ঠান। নিউজ ইন্টারন্যাশনালের স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান হল [[নিউজ কর্পোরেশন|নিউজ কর্পোরেশন গ্রুপ]]। ঐতিহ্যগতভাবে পত্রিকাটি [[কনজার্ভেটিভ পার্টি|কনজার্ভেটিভ পার্টির]] সমর্থক। তবে ২০০১ ও ২০০৫ সালের সাধারণ নির্বাচনে এটি [[লেবার পার্টি]] সমর্হতন করেছিল।<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি | author1লেখক১ = Ben Hall | author2লেখক২ = Tim Burt | author3লেখক৩ = Fiona Symon | urlইউআরএল = http://news.ft.com/cms/s/417fa1a2-ab60-11d9-893c-00000e2511c8,dwp_uuid=fdb2b318-aa9e-11d9-98d7-00000e2511c8.html | titleশিরোনাম = UK Election - Election 2005: What the papers said | workকর্ম = FT.com | newspaperসংবাদপত্র = [[Financial Times]] | archive URL = http://web.archive.org/web/20080605162948/http://www.ft.com/cms/s/2/417fa1a2-ab60-11d9-893c-00000e2511c8,dwp_uuid=fdb2b318-aa9e-11d9-98d7-00000e2511c8.html | archive date = 2008-06-05 }}
</ref> একটি গবেষণা জরিপে দেখা গেছে যে, দ্য টাইমস এর ৪০% পাঠক কনজার্ভেটিভ পার্টিস সমর্থক, ২৯% পাঠক লিবারেল ডেমোক্রেটস-এর সমর্থক এবং ২৬% লেবার পার্টিস সমর্থক।<ref name="MORI survey">{{ওয়েব উদ্ধৃতি
|urlইউআরএল = http://www.ipsospublicaffairs.co.uk/researchpublications/researcharchive/poll.aspx?oItemId=755
|titleশিরোনাম = MORI survey of newspaper readers
|accessdateসংগ্রহের-তারিখ = 2009-07-18
}}{{অকার্যকর সংযোগ|তারিখ=ফেব্রুয়ারি ২০১৯ |bot=InternetArchiveBot |ঠিক করার প্রচেষ্টা=yes }}</ref>
 
দ্য টাইমস “টাইমস” নামের মূল সংবাদপত্র। অন্যায় পত্রিকা যেমন- ''[[দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস]]'', ''[[দ্য লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমস]]'', ''[[দ্য ডেইলি টাইমস]]'', ''[[দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া]]'', ''[[দ্য স্ট্রেইট টাইমস]]'', ''[[দ্য টাইমস অফ মালটা]]'', এবং ''[[দ্য আইরিশ টাইমস]]'' এই পত্রিকা হতেই “টাইমস” শব্দটি গ্রহণ করেছে। উত্তর আমেরিকায় দ্য টাইমস “লন্ডন টাইমস” বা “দ্য টাইমস অফ লন্ডন” নামেও পরিচিত।<ref name="Times of London" /><ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি
| dateতারিখ = 26 May 2000
| authorলেখক = Jeffrey Meyers <!-- not Gore Vidal, who is the subject of the article. The headings are misleading -->
| titleশিরোনাম = Fighting, fornication and fiction
| urlইউআরএল = http://www.timeshighereducation.co.uk/story.asp?storyCode=156212&sectioncode=26
| workকর্ম = Times Higher Education
| publisherপ্রকাশক = [[News Corporation]]
}}
</ref> দ্য টাইমস পত্রিকার মাধ্যমেই বিশ্বব্যাপী টাইমস রোমান [[ফন্ট|ফন্টের]] প্রচলন শুরু হয়।
 
২১৯ বছর ধরে দ্য টাইমস [[ব্রডশিট]] আকারে প্রকাশিত হত। তরুণ পাঠকদের আকর্ষণ এবং গণপরিবহনে সুবিধাজনকভাবে পড়ার জন্য ২০০৪ সাল থেকে পত্রিকাটি ট্যাবলয়েড আকারে প্রকাশিত হয়ে আসছে। দ্য টাইমসের মার্কিন সংস্করণ ২০০৬ এর ৬ জুন হতে প্রকাশিত হচ্ছে।<ref name = "Times of London">{{সংবাদ উদ্ধৃতি
| dateতারিখ = 27 May 2006
| authorলেখক = Eric Pfanner
| titleশিরোনাম = Times of London to Print Daily U.S. Edition
| urlইউআরএল = http://www.nytimes.com/2006/05/27/business/media/27paper.html
| workকর্ম = [[The New York Times]]
| প্রকাশক =
| publisher =
| accessdateসংগ্রহের-তারিখ = 2008-11-04
}}
</ref>
১,৯৬,০১৪টি

সম্পাদনা