মাটি: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বিষয়বস্ত যোগ
(Setu Kumar Acharjee-এর সম্পাদিত সংস্করণ হতে NahidSultanBot-এর সম্পাদিত সর্বশেষ সংস্করণে ফেরত)
ট্যাগ: পুনর্বহাল SWViewer [1.3]
(বিষয়বস্ত যোগ)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
[[File:Road side view at chalna, Khulna - 24.jpg|থাম্ব|চৈত্রদিনে বাংলাদেশে ফেটে যাওয়া মাটি]]
[[চিত্র:Stagnogley.JPG|thumb|Surface-water-[[Gley soil|gley]] developed in [[glacial till]], Northern Ireland]]
'''মাটি''' বা '''মৃত্তিকা''' হলো পৃথিবীর উপরিভাগের নরম ও দানাদার আবরণ। পাথর গুঁড়ো হয়ে সৃষ্ট [[খনি|খনিজ পদার্থ]] এবং [[জৈব যৌগ]] মিশ্রিত হয়ে মাটি গঠিত হয়। জৈব পদার্থের উপস্থিতিতে ভূমিক্ষয় আবহবিকার, বিচূর্ণিভবন ইত্যাদি প্রাকৃতিক ও রাসায়নিক পরিবর্তনের মাধ্যমে পাথর থেকে মাটির উদ্ভব হয়েছে। সে কারণে অতি প্রাচীন কালের মাটি পৃথিবীতে পাওয়া যায় না । ভূ-ত্বক, জলস্তর, বায়ুস্তর এবং জৈবস্তরের মিথস্ক্রিয়ার মাধ্যমে পাথর থেকে মাটি তৈরি হয়। <ref name=Chesworth2008>{{Citation| last = Chesworth | first = Edited by Ward| year = 2008| title = Encyclopedia of soil science| pages = xxiv | isbn = 1402039948| publisher = Springer| location = Dordrecht, Netherland| nopp = true}}</ref> শুকনোDokuchaievহয়। গুঁড়ো<ref মাটিকে(1900)রাশিয়ানname=Chesworth2008>{{Citation| সাধারণভাবেবিজ্ঞানী(যাকেlast ধুলামৃত্তিকা= বলাবিজ্ঞানেরChesworth জনক| বলাfirst হয়)এর= মতে Edited -by Ward| Soilyear = is2008| title a natural body composed= Encyclopedia of soil mineralscience| pages and= xxiv organic| isbn constituents,= 1402039948| havingpublisher = aSpringer| location definite= Dordrecht, genesisNetherland| nopp and= true}}</ref> a.মাটি সম্পর্কে বিভিন্ন বিজ্ঞানী বিভিন্ন মত দিলেও সবচেয়ে ভালো জানা যায় Kellogg এর সংঙ্গা দ্বারা।Kellogg এর সংঙ্গায়ন নিম্নরূপবলা হয়।
"Soil is a collection of natural bodies occupying a portion of the earth surface that supports plant growth and that has properties due to the integrated effect of climate and vegetation acting upon parent material, as conditioned by relief, over a period of time." Kellogg ( 1960 )।
শুকনো গুঁড়ো মাটিকে সাধারণভাবে ধুলা বলা হয়।
 
মাটিতে খনিজ এবং জৈব পদার্থের মিশ্রণ রয়েছে। এর উপাদানগুলো কঠিন, তরল ও বায়বীয় অবস্থায় মাটিতে বিদ্যমান ।<ref>Voroney, R. P., 2006. The Soil Habitat ''in'' Soil Microbiology, Ecology and Biochemistry, Eldor A. Paul ed. ISBN=0125468075</ref><ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |শিরোনাম=James A. Danoff-Burg, Columbia University The Terrestrial Influence: Geology and Soils |ইউআরএল=http://www.columbia.edu/itc/cerc/seeu/atlantic/restrict/modules/module10_content.html |সংগ্রহের-তারিখ=৪ মার্চ ২০০৯ |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20090217132023/http://www.columbia.edu/itc/cerc/seeu/atlantic/restrict/modules/module10_content.html |আর্কাইভের-তারিখ=১৭ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ |অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ }}</ref> মাটির কণাগুলো আলগাভাবে যুক্ত্ ফলে এর মধ্যে বাতাস ও জল চলাচলের যথেষ্ট জায়গা রয়েছে।<ref>Taylor, S. A., and G. L. Ashcroft. 1972. Physical Edaphology</ref> এজন্য মাটিকে বিজ্ঞানীরা ত্রি-দশা পদার্থ (Three state system) বলে অভিহিত করেন।<ref>McCarty, David. 1982. Essentials of Soil Mechanics and Foundations</ref> অধিকাংশ এলাকার মাটির [[ঘনত্ব]] ১ থেকে ২ গ্রাম/ঘন সে.মি.। <ref>http://www.pedosphere.com/resources/bulkdensity/triangle_us.cfm</ref> পৃথিবীর উপরিভাগের অধিকাংশ মাটিই [[টারশিয়ারি যুগ]]ের পরে গঠিত হয়েছে। আর কোনো স্থানেই প্লেস্টোসিন যুগের পুরানো মাটি নেই।<ref name=Buol73>{{বই উদ্ধৃতি | শেষাংশ = Buol | প্রথমাংশ = S. W. | লেখক-সংযোগ = | coauthors = Hole, F. D. and McCracken, R. J. | শিরোনাম = Soil Genesis and Classification | সংস্করণ = First |তারিখ=1973 | প্রকাশক = Iowa State University Press | অবস্থান = Ames, IA | আইএসবিএন = 0-8138-1460-X}}.</ref>
৬টি

সম্পাদনা