"ভারত" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা উচ্চতর মোবাইল সম্পাদনা
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
|population_density_rank = ৩১তম
|GDP_PPP_year = ২০১২
|GDP_PPP = $৩.৬৬৬ ট্রিলিয়ন<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=https://www.imf.org/external/pubs/ft/weo/2009/02/weodata/weorept.aspx?sy=2006&ey=2009&scsm=1&ssd=1&sort=country&ds=.&br=1&c=534&s=NGDPD,NGDPDPC,PPPGDP,PPPPC,LP&grp=0&a=&pr1.x=40&pr1.y=15|titleশিরোনাম=Report for Selected Countries and Subjects|authorলেখক=|dateতারিখ=|workকর্ম=www.imf.org|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=5 November 2019}}</ref>
|GDP_PPP_rank = ৯ম
|GDP_PPP_per_capita = $৩,৮৫১
|GDP_PPP_per_capita_rank = ১২৯তম
|GDP_nominal = $১.৯৪৭ ট্রিলিয়ন<ref name="imf.org">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=https://www.imf.org/external/pubs/ft/weo/2009/02/weodata/weorept.aspx?sy=2006&ey=2009&scsm=1&ssd=1&sort=country&ds=.&br=1&c=534&s=NGDPD,NGDPDPC,PPPGDP,PPPPC,LP&grp=0&a=&pr1.x=40&pr1.y=15|titleশিরোনাম=Report for Selected Countries and Subjects|authorলেখক=|dateতারিখ=|workকর্ম=www.imf.org|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=5 November 2019}}</ref>
|GDP_nominal_rank = ১0তম
|GDP_nominal_year = ২০১২
{{মূল নিবন্ধ|ভারতের ইতিহাস|ভারতীয় প্রজাতন্ত্রের ইতিহাস}}
===প্রাচীন ভারত===
[[মধ্যপ্রদেশ]] রাজ্যের [[ভীমবেটকা প্রস্তর ক্ষেত্র]] ভারতে মানববসতির প্রাচীনতম নিদর্শন। এক লক্ষ বছর আগেও এখানে মানুষের বসবাস ছিল।<ref>Javid, Ali and Javeed, Tabassum. ''World Heritage Monuments and Related Edifices in India''. 2008, page 19</ref><ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=http://originsnet.org/bimb1gallery/index.htm|titleশিরোনাম=Bhimbetka, Auditorium Cave, Madhya Pradesh: Acheulian Petroglyph Site, c. >100,000 - 500,000 BP|authorলেখক=|dateতারিখ=|workকর্ম=originsnet.org|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=5 November 2019}}</ref> প্রায় ৯০০০ বছর আগে এদেশে স্থায়ী মানববসতি গড়ে উঠে; যা কালক্রমে পশ্চিম ভারতের ইতিহাস-প্রসিদ্ধ [[সিন্ধু সভ্যতা|সিন্ধু সভ্যতার]] রূপ ধারণ করে।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |শিরোনাম = Introduction to the Ancient Indus Valley |ইউআরএল=http://www.harappa.com/indus/indus1.html
|সংগ্রহের-তারিখ = 2007-06-18 |বছর= 1996 |প্রকাশক = Harappa}}</ref> এই সভ্যতার আনুমানিক সময়কাল ৩৩০০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ। এরপর ভারতে [[বৈদিক যুগ|বৈদিক যুগের]] সূত্রপাত হয়। এই যুগেই [[হিন্দুধর্ম]] তথা প্রাচীন ভারতীয় সমাজের অন্যান্য সাংস্কৃতিক বৈশিষ্ট্যগুলির আবির্ভাব ঘটে। বৈদিক যুগের সমাপ্তিকাল আনুমানিক ৫০০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ। আনুমানিক ৫৫০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ নাগাদ ভারতে প্রতিষ্ঠিত হয় [[মহাজনপদ]] নামে অনেকগুলি স্বাধীন রাজতান্ত্রিক ও গণতান্ত্রিক রাজ্য।<ref>{{বই উদ্ধৃতি | লেখক= Krishna Reddy | শিরোনাম = Indian History | বছর= 2003 | প্রকাশক = Tata McGraw Hill | অবস্থান = New Delhi | আইএসবিএন = 0070483698 | পাতাসমূহ = A107 }}</ref>
 
{{আরো দেখুন|ভারতের ধর্ম|ভারতের ভাষা|দক্ষিণ এশীয় জনগোষ্ঠী}}
[[চিত্র:Toda Hut.JPG|thumb|[[দক্ষিণ ভারত|দাক্ষিণাত্যের]] তোডা উপজাতির কুটির]]
ভারত বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বাধিক জনবহুল রাষ্ট্র। ২০১৮ সালে দেশটির আনুমানিক জনসংখ্যা প্রায় ১৩৫ কোটি। ভারতের জনসংখ্যা পৃথিবীর মোট জন সংখ্যার প্রায় ১৭.৭৪ শতাংশ। সাম্প্রতিক কালে বার্ষিক জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার প্রতি হাজার জনে ১১.১০ জন বা ১.১১ শতাংশ। গড়ে প্রতি দুই সেকেণ্ডে জনসংখ্যা একজন করে বাড়ে। যদিও সাম্প্রতিক দশকগুলিতে গ্রাম থেকে শহরে অভিবাসনের হার বৃদ্ধি পাওয়ায় ভারতে শহরাঞ্চলীয় জনসংখ্যা বহুল পরিমাণে বৃদ্ধি পেয়েছে, তথাপি প্রায় ৬৬.৮০ শতাংশ ভারতবাসী গ্রামাঞ্চলে বাস করেন। জনসংখ্যার ৩৩.২০ শতাংশ শহরে বসবাস করে। এ দেশে প্রতি বর্গকিলোমিটারে জনবসতি ৪৫৫ জন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=https://www.worldometers.info/world-population/india-population/|titleশিরোনাম=India Population (2019) - Worldometers|authorলেখক=|dateতারিখ=|workকর্ম=www.worldometers.info|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=5 November 2019}}</ref> ভারতের বৃহত্তম মহানগরগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল [[মুম্বই]] (পূর্বনাম বম্বে বা বোম্বাই), [[নতুন দিল্লি]], [[বেঙ্গালুরু]] (পূর্বনাম ব্যাঙ্গালোর), [[কলকাতা]], [[হায়দ্রাবাদ]] ও [[আহমদাবাদ]]।<ref name="LOC PROFILE">{{ওয়েব উদ্ধৃতি
|শিরোনাম = Country Profile: India
|ইউআরএল = http://lcweb2.loc.gov/frd/cs/profiles/India.pdf
|month= December | বছর= 2004
|বিন্যাস = PDF}}</ref>
২০১৩-১৫ কালপর্বে জাতীয় পর্যায়ে লিঙ্গানুপাত প্রতি হাজার পুরুষের বিপরীতে ৯০০ জন নারী।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=http://niti.gov.in/content/sex-ratio-females-1000-males|titleশিরোনাম=Sex Ratio (Females/ 1000 Males) - NITI Aayog|authorলেখক=|dateতারিখ=|workকর্ম=niti.gov.in|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=5 November 2019}}</ref> ২০১১-এর জনমিতি অনুযায়ী ভারতে সাক্ষরতার হার ৭৪.০৪ শতাংশ, যা পুরুষদের মধ্যে ৮২.১৪ শতাংশ এবং নারীদের মধ্যে ৬৫.৪৬ শতাংশ। সাক্ষরতার সর্বনিম্ন হার [[বিহার|বিহার রাজ্যে]]: ৬৩.৮২ শতাংশ।<ref>[http://worldpopulationreview.com/countries/india-population/ World Population Review]</ref> শহর-গ্রাম স্বা‌ক্ষরতার পার্থ‌ক্য ২০০১ সালে ছিল ২১.২ শতাংশ, যা ২০১১ সালে নেমে আসে ১৬.১ শতাংশে। গ্রামীন অঞ্চলগুলোতে স্বা‌ক্ষরতা বৃদ্ধির হার শহর এলাকার তুলনায় দ্বিগুণ।{{sfn|Chandramouli|2011}} সাক্ষরতার হার সর্বাধিক [[কেরল]] রাজ্যে (৯১%)।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.kerala.gov.in/education/|শিরোনাম=Kerala's literacy rate|প্রকাশক=[[Government of Kerala]]|সংগ্রহের-তারিখ=2007-12-13|কর্ম=kerala.gov.in|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20080417100819/http://www.kerala.gov.in/education/|আর্কাইভের-তারিখ=২০০৮-০৪-১৭|অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ}}</ref>
===ভাষা===
ভারতের দুটি প্রধান ভাষাগোষ্ঠী হল [[ইন্দো-আর্য ভাষাগোষ্ঠী|ইন্দো-আর্য]] (মোট জনসংখ্যার ৭৪%) ও [[দ্রাবিড় ভাষাগোষ্ঠী|দ্রাবিড়]] (মোট জনসংখ্যার ২৪%)। অপরাপর ভাষাগোষ্ঠীগুলি হল [[অস্ট্রো-এশিয়াটিক ভাষাগোষ্ঠী|অস্ট্রো-এশিয়াটিক]] ও [[তিব্বতি-বর্মী ভাষাগোষ্ঠী|তিব্বতি-বর্মী]] ভাষাগোষ্ঠী। ভারতের বৃহত্তম জনগোষ্ঠীয় ভাষা [[হিন্দি]]<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |শিরোনাম=Languages by number of speakers according to 1991 census|প্রকাশক= Central Institute of Indian Languages|ইউআরএল=http://www.ciil.org/Main/Languages/map4.htm|accessmonthday=August 2 |accessyear=2007}}</ref> যা কি-না কেন্দ্রীয় সরকারের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে নির্ধারিত।<ref>Mallikarjun, B. (Nov., 2004), [http://www.languageinindia.com/nov2004/mallikarjunmalaysiapaper1.html Fifty Years of Language Planning for Modern Hindi–The Official Language of India], [http://www.languageinindia.com/index.html ''Language in India''], Volume 4, Number 11. ISSN 1930-2940.</ref> “সহকারী দাপ্তরিক ভাষা” [[ইংরেজি]] প্রশাসন ও বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে বহুল ব্যবহৃত।<ref name=autogenerated1>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|শিরোনাম=Notification No. 2/8/60-O.L. (Ministry of Home Affairs), dated 27 April, 1960|2=|ইউআরএল=http://www.rajbhasha.gov.in/preseng.htm|accessmonthday=July 4|accessyear=2007|সংগ্রহের-তারিখ=৫ ডিসেম্বর ২০০৮|আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20071006230547/http://www.rajbhasha.gov.in/preseng.htm|আর্কাইভের-তারিখ=৬ অক্টোবর ২০০৭|অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ}}</ref> উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রেও ইংরেজির প্রাধান্য প্রশ্নাতীত। ভারতের সংবিধান [[বাংলা]]-সহ [[ভারতের রাষ্ট্রভাষা|২২টি ভাষাকে]] সরকারি ভাষার মর্যাদা দিয়েছে। এগুলি হয় প্রচলিত, নয় ধ্রুপদি ভাষা। প্রাচীনকাল থেকেই ভারতে ধ্রুপদি ভাষার মর্যাদা পেয়ে আসা [[তামিল]] ও [[সংস্কৃত]]<ref>{{Citation|last = Seaver | first = Sanford B. | title = The Dravidian Languages | year = 1998 | publisher = Taylor and Francis. Pp. 436 |isbn=0415100232 | url = http://books.google.com/books?id=CF5Qo4NDE64C&printsec=frontcover#PPA6,M1}}. Quote: "Tamil ... It is therefore one of India's two classical languages, alongside the more widely known Indo-Aryan language Sanskrit." 2. {{Citation|last=Ramanujan |first= A. K.| authorlink = A. K. Ramanujan | title = Poems of Love and War: From the Eight Anthologies and the Ten Long Poems of Classical Tamil | publisher= New York: Columbia University Press. Pp. 329 | year = 1985 | isbn = 0231051077|url =http://books.google.com/books?id=nIybE0HRvdQC&printsec=frontcover&source=gbs_summary_r&cad=0#PPR9,M1}} Quote: "Tamil, one of the two classical languages of India, is a Dravidian language spoken today by 50 million Indians, ..."</ref> এবং [[কন্নড়]] ও [[তেলুগু]] ভাষাকে ভারত সরকার নিজস্ব একটি যোগ্যতাসূচকবলে ধ্রুপদি ভাষার মর্যাদা দান করেছে।<ref name="antiquity">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://pib.nic.in/release/release.asp?relid=44340|শিরোনাম=Declaration of Telugu and Kannada as classical languages|কর্ম=Press Information Bureau|প্রকাশক=Ministry of Tourism and Culture, Government of India|সংগ্রহের-তারিখ=2008-11-19}}</ref> ভারতে উপ-ভাষার সংখ্যা ১,৬৫২টি।<ref name="Manorama">{{বই উদ্ধৃতি |প্রথমাংশ=K.M. |শেষাংশ=Matthew |শিরোনাম=Manorama Yearbook 2003 |প্রকাশক=[[Malayala Manorama]] |বছর=2006 |আইএসবিএন=81-89004-07-7 |পাতাসমূহ=pg 524}}</ref>
স্বাধীনোত্তর ভারতকে একটি দরিদ্র রাষ্ট্র বলে বিবেচনা করা হলেও, স্বাধীনতা অর্জনের পাঁচ দশকের মধ্যেই এই দেশ প্রযুক্তিগতভাবে দক্ষিণ এশিয়ার এক মহাশক্তিধর রাষ্ট্রে পরিণত হয়। সাক্ষরতার হার ও কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি এবং নগরকেন্দ্রের উদ্ভব ভারতের এই প্রযুক্তিগত উত্থানের কারণ। ১৯৭৫ সালে প্রথম কৃত্রিম উপগ্রহ [[আর্যভট্ট (উপগ্রহ)|আর্যভট্টের]] উৎক্ষেপণ, তার পূর্ববর্তী বছরে [[স্মাইলিং বুদ্ধ]] নামে এক ভূগর্ভস্থ পারমাণবিক পরীক্ষণ, দূরসংযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, পারমানবিক চুল্লি ও হোমি জাহাঙ্গির ভাবা পরিচালিত বিএআরসি-এর মতো গবেষণা কেন্দ্রের বিকাশ ভারতের উল্লেখযোগ্য বৈজ্ঞানিক সাফল্য বলে বিবেচিত হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি |শিরোনাম=Indian Atomic Research Program |ইউআরএল=http://www.dae.gov.in/res.htm |সংগ্রহের-তারিখ=২১ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ |আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20090201220750/http://www.dae.gov.in/res.htm |আর্কাইভের-তারিখ=১ ফেব্রুয়ারি ২০০৯ |অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ }}</ref> লো-আর্থ, মেরু ও জিওস্টেশনারি কক্ষপথে উপগ্রহ উৎক্ষেপণের এক দেশীয় প্রযুক্তি উদ্ভাবন করে ভারত। এএসএলভি, পিএসএলভি, জিএসএলভি ও সর্বোপরি [[ইনস্যাট]] কৃত্রিম উপগ্রহ সিরিজগুলি ভারতের সফল মহাকাশ-কর্মসূচির স্বাক্ষর। ২০০৮ সালে চাঁদের মাটিতে অবতীর্ণ হয় প্রথম ভারতীয় মহাকাশযান [[চন্দ্রযান-১]]। চন্দ্রযানের পাঠানো তথ্য থেকে [[নাসা|নাসার]] তত্ত্বাবধানে ব্রাউন ইউনিভার্সিটিতে মুন মিনারেলজি ম্যাপার যন্ত্রে বিস্ময়করভাবে প্রভূত পরিমাণ হাইড্রক্সিল আয়ন এবং বরফের অস্তিত্ব ধরা পড়েছে।<ref>[মনোরমা ইয়ারবুক ২০১৮|ISSN 0975-2250]</ref> দেশীয় বিমানশক্তির ক্ষেত্রে বৈকল্পিক শক্তি হিসেবে অ্যাডভান্সড লাইট হেলিকপ্টার ও এলসিএ তেজস-এর নাম করা যায়। লারসেন অ্যান্ড টাব্রো, ডিএফএল-এর মতো কোম্পানিগুলির সাহায্যে আবাসন ও পরিকাঠামো শিল্পেও ভারত আজ উল্লেখযোগ্যভাবে অগ্রসর।
 
২০০৩ সালে সেন্টার ফর ডেভেলপমেন্ট অফ অ্যাডভান্সড কম্পিউটিং তৈরি করে ভারতের প্রথম সুপারকম্পিউটার ''পরম পদ্ম।'' এটি পৃথিবীর দ্রুততম সুপারকম্পিউটারগুলির অন্যতম।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=http://timesofindia.indiatimes.com/World/The|titleশিরোনাম=United States/India hosts worlds fourth fastest supercomputer/articleshow/2538928.cms Param Padma Supercomputer unveiled|authorলেখক=|dateতারিখ=|workকর্ম=indiatimes.com|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=5 November 2019}}</ref> ১৯৯০-এর দশকে [[ভারতে অর্থনৈতিক উদারীকরণ|অর্থনৈতিক উদারীকরণ]] এবং [[তথ্য প্রযুক্তি]] বিপ্লব তথ্যপ্রযুক্তির দুনিয়ায় এক অগ্রণী রাষ্ট্র হিসেবে ভারতকে বিশ্বের মঞ্চে উপস্থাপিত করে। বর্তমানে [[আই বি এম]], [[মাইক্রোসফট]], সিসকো সিস্টেমস, ইনফোসিস, টাটা কনসালটেন্সি সার্ভিস, উইপ্রো ও অন্যান্য নেতৃস্থানীয় ভারতীয় ও আন্তর্জাতিক কোম্পানিগুলি ভারতের [[বেঙ্গালুরু]], [[হায়দ্রাবাদ]], [[চেন্নাই]] প্রভৃতি শহরে তাদের প্রধান কার্যালয় স্থাপন করেছে।
 
=== খেলাধূলা ===
১,৭৭,৩৮৩টি

সম্পাদনা