"বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

(Reverted 1 edit by 2A03:2880:30FF:10:0:0:FACE:B00C (talk) to last revision by Al Riaz Uddin Ripon (TwinkleGlobal))
ট্যাগ: পূর্বাবস্থায় ফেরত
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে বাংলাদেশে ইতিহাসের নৃশংসতম গণহত্যা চালানো হয়। ২৫শে মার্চের কালোরাতে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর শুরু করা [[অপারেশন সার্চলাইট]] নামক ধ্বংসযজ্ঞ বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পূর্ব পর্যন্ত চলে এবং এ নয় মাসে বাংলাদেশি কিছু ঘাতক দোসরদের সহায়তায় বিপুল সংখ্যক বাঙালিকে হত্যা করা হয়।
 
মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে কত মানুষ প্রাণ হারিয়েছে তা নিয়ে গণমাধ্যমে বিভিন্ন রকম পরিসংখ্যান প্রচলিত রয়েছে। বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন বিশ্বকোষ ও বইতে এই সংখ্যাটিকে ২,০০,০০০ থেকে শুরু করে ৩০,০০,০০০ পর্যন্ত উল্লেখ করা হয়েছে।<ref name=MW/>১৯৭২ বাংলাদেশেসালে মুক্তিযুদ্ধেপাকিস্তান শহীদের সংখ্যাটিকে ৩০সরকার,০০,০০০ হিসেবে অনুমান করা হয়। যুদ্ধের সময় প্রায় এক কোটি শরণার্থী ভারতে আশ্রয় গ্রহণ করে, যারা সে সময় দেশত্যাগ না করলে হয়তো গণহত্যার শিকার হত।<ref name="Rummel-8-2">Rummel, Rudolph J., [http://www.Hawaii.edu/powerkills/SOD.CHAP8.HTM "Statistics of Democide: Genocide and Mass Murder Since 1900"], {{আইএসবিএন|3-8258-4010-7}}, Chapter 8, [http://www.hawaii.edu/powerkills/SOD.TAB8.2.GIF Table 8.2 Pakistan Genocide in Bangladesh Estimates, Sources, and Calcualtions]: lowest estimate two million claimed by Pakistan (reported by Aziz, Qutubuddin. ''Blood and tears'' Karachi: United Press of Pakistan, 1974. pp. 74,226), all the other sources used by Rummel suggest a figure of between 8 and 10 million with one (Johnson, B. L. C. ''Bangladesh''. New York: Barnes & Noble, 1975. pp. 73,75) that "could have been" 12 million.</ref>
বাংগালি বংশভুত পাকিস্তানের সাবেক প্রধান বিচারপতি হামুদুর রহমানের নেতৃত্বে হামুদুর রহমান কমিশন গঠন করে। এই কমিশনকে "গণহত্যা এবং ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের পারিপার্শ্বিক সকল ঘটনা এবং অবস্থার পুর্নাঙ্গ প্রতিবেদন তৈরি" এবং সেই সঙ্গে "পূর্ব হাইকমান্ডের কমান্ডার কোন অবস্থায় আত্মসমর্পণ করে" সেটাও খতিয়ে দেখতে বলা হয়। "এই কমিশনের রিপোর্ট এ গনহত্যার বিষয়টি কিছুক্ষেত্রে উঠে আসলেও পাকিস্তান সেনাবাহিনী কতৃক ৩০ লাখ মানুষ হত্যা এবং ২ লাখ ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। কমিশন, হতাহতের সংখ্যা ২৬,০০০ বলে দাবি করে।<ref name="deathcount-pakistani">Rahman Commission Report, chapter 2, paragraph 33</ref>
 
 
<ref name=MW/> বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যাটিকে ৩০,০০,০০০ হিসেবে অনুমান করা হয়। যুদ্ধের সময় প্রায় এক কোটি শরণার্থী ভারতে আশ্রয় গ্রহণ করে, যারা সে সময় দেশত্যাগ না করলে হয়তো গণহত্যার শিকার হত।<ref name="Rummel-8-2">Rummel, Rudolph J., [http://www.Hawaii.edu/powerkills/SOD.CHAP8.HTM "Statistics of Democide: Genocide and Mass Murder Since 1900"], {{আইএসবিএন|3-8258-4010-7}}, Chapter 8, [http://www.hawaii.edu/powerkills/SOD.TAB8.2.GIF Table 8.2 Pakistan Genocide in Bangladesh Estimates, Sources, and Calcualtions]: lowest estimate two million claimed by Pakistan (reported by Aziz, Qutubuddin. ''Blood and tears'' Karachi: United Press of Pakistan, 1974. pp. 74,226), all the other sources used by Rummel suggest a figure of between 8 and 10 million with one (Johnson, B. L. C. ''Bangladesh''. New York: Barnes & Noble, 1975. pp. 73,75) that "could have been" 12 million.</ref>
স্বাধীনতা লাভের প্রাক্কালে ১৪ ডিসেম্বর রাজাকার, [[আল-বদর]] ও [[আল-শামস]] বাহিনী<ref name="2006-06-18">Many of the eyewitness accounts of relations that were picked up by "Al Badr" forces describe them as Bengali men. The only survivor of the Rayerbazar killings describes the captors and killers of Bengali professionals as fellow Bengalis. See 37 Dilawar Hossain, account reproduced in ‘Ekattorer Ghatok-dalalera ke Kothay’ (Muktijuddha Chetona Bikash Kendro, Dhaka, 1989)</ref> পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর নির্দেশে বাংলাদেশের প্রায় ৩০০ জন বুদ্ধিজীবীকে - যাঁদের মধ্যে ছিলেন শিক্ষক, ডাক্তার, প্রকৌশলী, শিল্পী, কবি, সাহিত্যিক, বিজ্ঞানী - ধরে নিয়ে যায় এবং নির্মমভাবে হত্যা করে।<ref name="nyt12-19-1971">{{সংবাদ উদ্ধৃতি
|শিরোনাম = 125 Slain in Dacca Area, Believed Elite of Bengal
৫৩টি

সম্পাদনা