"শ্রীকৃষ্ণকীর্তন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(→‎কবি: সংশোধনী)
[[Image:RadheShyam07.jpg|thumb|right|250px|অষ্টাদশ শতাব্দীর রাজস্থানী চিত্রকলায় রাধা ও কৃষ্ণ]]
'''শ্রীকৃষ্ণকীর্তন''' [[বড়ুচণ্ডীদাস]] নামক জনৈক মধ্যযুগীয় কবি রচিত রাধাকৃষ্ণের প্রণয়কথা বিষয়ক একটি আখ্যানকাব্য। [[১৯০৯]] সালে [[বসন্তরঞ্জন রায় বিদ্বদ্বল্লভ]] [[বাঁকুড়া জেলা|বাঁকুড়া জেলার]] কাঁকিল্যা গ্রাম থেকে এই কাব্যের একটি পুথি আবিষ্কার করেন। [[১৯১৬]] সালে তাঁরই সম্পাদনায় [[বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ]] থেকে ‘শ্রীকৃষ্ণকীর্তন’ নামে পুথিটি প্রকাশিত হয়। যদিও কারও কারও মতে মূল গ্রন্থটির নাম ছিল ‘শ্রীকৃষ্ণসন্দর্ভ’।
 
[[কৃষ্ণ|কৃষ্ণের]] জন্ম, [[বৃন্দাবন|বৃন্দাবনে]] [[রাধা|রাধার]] সঙ্গে তাঁর প্রণয় এবং অন্তে বৃন্দাবন ও রাধা উভয়কে ত্যাগ করে কৃষ্ণের চিরতরে [[মথুরা|মথুরায়]] অভিপ্রয়াণ – এই হল ‘শ্রীকৃষ্ণকীর্তন’ কাব্যের মূল উপজীব্য। আখ্যানভাগ মোট এগারোটি খণ্ডে বিভক্ত। পুথিটি খণ্ডিত বলে কাব্যরচনার তারিখ জানা যায় না। তবে কাব্যটি আখ্যানধর্মী ও সংলাপের আকারে রচিত বলে প্রাচীন বাংলা নাটকের একটি আভাস মেলে এই কাব্যে। গ্রন্থটি স্থানে স্থানে আদিরসে জারিত ও গ্রাম্য অশ্লীলতাদোষে দুষ্ট হলেও আখ্যানভাগের বর্ণনানৈপূণ্য ও চরিত্রচিত্রণে মুন্সিয়ানা আধুনিক পাঠকেরও দৃষ্টি আকর্ষণ করে।