"পেশাওয়ার" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

 
== জনসংখ্যা ==
১৯৯৮ সালে পেশাওয়ার জেলার জনসংখ্যা ছিল ২,০২৬,৮৫১ জন।<ref>{{cite web|title=Peshawar District Demographics|url=http://kp.gov.pk/page/peshawar_district_demographics|publisher=Govt of KPK|accessdate=4 April 2017}}</ref> শহরের বার্ষিক জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার প্রতি বছর ৩.২৯% অনুমান করা হয়, এবং পেশোয়ার জেলার ২০১৬ সালের জনসংখ্যা অনুমান করা হয় ৩,৪০৫,৪১৪। ২০১৭ সালের আদমশুমারি অনুসারে জনসংখ্যা ১,৯৭০,০৪২ জন, যা একে পাকিস্তানের ষষ্ঠ বৃহত্তম শহরে পরিণত করেছে।
 
পেশাওয়ারের মানুষের প্রাথমিক মাতৃভাষাগুলি হল পশতুন এবং হিন্দকো,<ref>{{Cite journal| last = Shackle| first = Christopher| author-link = Christopher Shackle| date = 1980| doi = 10.1017/S0041977X00137401| issn = 0041-977X| volume = 43| issue = 3| <!--pages = 482–510|--> title = Hindko in Kohat and Peshawar| journal = Bulletin of the School of Oriental and African Studies| url = http://www.journals.cambridge.org/abstract_S0041977X00137401| pages = 496–97}}</ref> যদিও শহরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে ইংরেজি ব্যবহৃত হয়, এবং উর্দু পুরো শহর জুড়েই বোঝা যায়।<ref name="Mills"/>
 
পেশাওয়ার জেলা অপ্রতিরোধ্যভাবে পশতু ভাষীদের দখলে, যদিও হিন্দকোভাষী সংখ্যালঘু পেশোয়ারের পুরানো শহরটিতে কেন্দ্রীভূত, পেশোয়ারের হিন্দকো বক্তারা তাদের বক্তৃতায় পশতুন এবং উর্দুর উপাদানগুলিকে ক্রমবর্ধমান করে তোলে।<ref>{{cite book|last1=Bashir|first1=Elena|last2=Hock|first2=Hans Henrich|title=The Languages and Linguistics of South Asia: A Comprehensive Guide|date=24 May 2016|publisher=Walter de Gruyter GmbH & Co KG|isbn=9783110423303|url=https://books.google.com/?id=PSFBDAAAQBAJ&dq=peshawar+hindko+pashto|accessdate=5 April 2017}}</ref>
 
পেশাওয়ার অতিমাত্রায় মুসলমান সংখ্যাগরিষ্ঠ শহর, যেখানে ১৯৯৮ সালের আদমশুমারী অনুযায়ী ৯৮.৫% মুসলামন জনসংখ্যা রয়েছে।<ref name="Pattan">{{cite book|title=Peshawar District: Socio-political Profile|date=2006|publisher=Pattan Development Organization}}</ref> প্রায় ২০,০০০ অনুগামী নিয়ে খ্রিস্টান দ্বিতীয় বৃহত্তম ধর্মীয় গোষ্ঠী গঠন করেছে, যখন পেশাওয়ারে আহমদিয়া মুসলিম সম্প্রদায়ের ৭,০০০ এর বেশি সদস্য বাস করে।<ref name="Pattan"/> হিন্দু এবং শিখ ধর্মের মানুষও শহরে পাওয়া যায় - যদিও শহরের বেশিরভাগ হিন্দু এবং শিখ সম্প্রদায় ১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ ভারত বিভাগের পরে ভারতে চলে গিয়েছিল।
 
== প্রশাসন ও রাজনীতি ==