"পেশাওয়ার" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

 
'''পেশাওয়ার''' ({{pronunciation|Peshawar pronunciation.ogg}}; {{lang-ps|پېښور}}) পাকিস্তানের [[খাইবার পাখতুনখোয়া]] প্রদেশের রাজধানী।<ref name="nwfp">{{ওয়েব উদ্ধৃতি| ইউআরএল=http://www.nwfp.gov.pk/AIS-page.php?pageName=Introduction&DistId=1&DeptId=1&LangId=1| শিরোনাম=NWFP Introduction| প্রকাশক=Government of Khyber-Pakhtunkhwa| সংগ্রহের-তারিখ=12 December 2007| আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20071030055502/http://www.nwfp.gov.pk/AIS-page.php?pageName=Introduction&DistId=1&DeptId=1&LangId=1| আর্কাইভের-তারিখ=৩০ অক্টোবর ২০০৭| অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ}}</ref> আফগানিস্তান- পাকিস্তান সীমান্তের নিকটবর্তী ঐতিহাসিক খাইবার পাসের পূর্ব প্রান্তের নিকটবর্তী পেশোয়ারের প্রশস্ত উপত্যকায় শহরটি অবস্থিত। পেশাওয়ারের রেকর্ড করা ইতিহাসটি খ্রিস্টপূর্ব ৫৩৯-এর পূর্ববর্তী, এটি পাকিস্তানের প্রাচীনতম শহর এবং দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম প্রাচীনতম শহর হিসাবে পরিচিত। প্রাচীন ভারতীয় উপমহাদেশে শহরটি পুরুষপুরা নামে পরিচিত ছিল এবং কুশন সাম্রাজ্যের রাজধানী হিসাবে কাজ করত; এটি কনিষ্ক স্তূপের আবাসস্থল ছিল। পেশাওয়ারে মুসলিম সাম্রাজ্যের আগমনের আগে হোয়াইট হুনদের দ্বারা বরখাস্ত করা হয়েছিল। ১৭৫৭ সাল থেকে আফগানিস্তান দুররানি সাম্রাজ্যের শীতকালীন রাজধানী হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত মুঘল আমলে এই শহরটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্য কেন্দ্র ছিল, ১৮৪৫ সালে শিখ সাম্রাজ্যের দ্বারা শহরটি দখল না করা পর্যন্ত চলে, ১৮৪৯ সালে ব্রিটিশরা তাদের অনুসরণ করেছিল। ২০১৪ সালের আদমশুমারি অনুসারে পেশাওয়ার শহরের জনসংখ্যা হল ১,৯৭০,০৪২, এটি খাইবার পাখতুনখোয়ার বৃহত্তম এবং পাকিস্তানের ষষ্ঠ বৃহত্তম শহর হিসাবে গড়ে উঠেছে। যদিও পেশোয়ার জেলার জনসংখ্যা ৪,২৯৯,০৭৯ জন।
 
== জনসংখ্যা ==
 
==তথ্যসূত্র ==