"সূরা ক্বারিয়াহ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বিষয়বস্তু যোগ
(→‎top: বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
(বিষয়বস্তু যোগ)
== বিষয়বস্তুর বিবরণ ==
এ সূরায় আমলের ওজন ও তার হালকা এবং ভারী হওয়ার প্রেক্ষিতে জাহান্নাম অথবা জান্নাত লাভের বিষয় আলোচিত হয়েছে। আমলের সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা সূরা আ'রাফের শুরুতে করা হয়েছে। সেখানে লিখিত হয়েছে যে, বিভিন্ন [[হাদিস|হাদীস]] আয়তের মধ্যে সমন্বয় সাধন করে জানা যায়, আমলের ওজন সম্ভবতঃ দুবার হবে। প্রথমতঃ ওজন করে মুমিন ও কাফেরের মধ্যে পার্থক্য নিরূপণ করা হবে। মুমিনের পাল্লা ভারী ও কাফেরর পাল্লা হালকা হবে। এরপর মুমিনদের মধ্যে সৎকর্ম ও অসৎকর্মের পার্থক্য বিধানের জন্যে হবে দ্বিতীয় দফা ওজন করা হবে। এ সূরায় বাহ্যতঃ প্রথম ওজন বোঝানো হয়েছে, যাতে প্রত্যেক মুমিনের পাল্লা ঈমানের অভাবে হালকা হবে, সে যদিও কিছু সৎকর্ম করে থাকে। যার আমল আন্তরিকতাপূর্ণ ও সুন্নতের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ, সংখ্যায় কম হলেও তার আমলের ওজন বেশি হবে। পক্ষান্তরে যে ব্যক্তি সংখ্যায় তো [[নামাজ|নামায]], [[রোজা|রোযা]], সদকা-যাক্বাত, [[হজ্জ]] অনেক করে, কিন্তু আন্তরিকতা ও সুন্নতের সাথে সামঞ্জস্য কম, তার আমলের ওজন কম হবে।<ref নাম="ক্বোরআন">তফসীর মাআরেফুল ক্বোরআন (১১ খণ্ডের সংক্ষিপ্ত ব্যাখ্যা)।</ref>
 
== আয়াত সমূহ ==
الْقَارِعَةُ
 
করাঘাতকারী,
 
مَا الْقَارِعَةُ
 
করাঘাতকারী কি?
 
وَمَا أَدْرَاكَ مَا الْقَارِعَةُ
 
করাঘাতকারী সম্পর্কে আপনি কি জানেন ?
 
يَوْمَ يَكُونُ النَّاسُ كَالْفَرَاشِ الْمَبْثُوثِ
 
যেদিন মানুষ হবে বিক্ষিপ্ত পতংগের মত
 
وَتَكُونُ الْجِبَالُ كَالْعِهْنِ الْمَنفُوشِ
 
এবং পর্বতমালা হবে ধুনিত রঙ্গীন পশমের মত।
 
فَأَمَّا مَن ثَقُلَتْ مَوَازِينُهُ
 
অতএব যার পাল্লা ভারী হবে,
 
فَهُوَ فِي عِيشَةٍ رَّاضِيَةٍ
 
সে সুখীজীবন যাপন করবে।
 
وَأَمَّا مَنْ خَفَّتْ مَوَازِينُهُ
 
আর যার পাল্লা হালকা হবে,
 
فَأُمُّهُ هَاوِيَةٌ
 
তার ঠিকানা হবে হাবিয়া।
 
وَمَا أَدْرَاكَ مَا هِيَهْ
 
আপনি জানেন তা কি?
 
نَارٌ حَامِيَةٌ
 
প্রজ্জ্বলিত অগ্নি!
 
== তথ্যসূত্র ==
৪,২৭৭টি

সম্পাদনা