"যোগিনী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(5টি উৎস উদ্ধার করা হল ও 0টি অকার্যকর হিসেবে চিহ্নিত করা হল। #IABot (v2.0beta14))
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
[[File:Sandstone Yogini from Madhya Pradesh.JPG|thumb|left| [[মধ্যপ্রদেশ]] থেকে প্রাপ্ত বেলেপাথরের যোগিনী।]]
 
[[বেদ]]ে, [[উষা]] (ভোর), [[পৃথ্বী]] (পৃথিবী), [[অদিতি]] (মহাজাগতিক নৈতিক নিয়ম), [[সরস্বতী]] (নদী, জ্ঞান), [[বাক]] (শব্দ), [[নিঋতি]] (ধ্বংস), [[রাত্রি]] (রাত), [[অরণ্যানী]] (জঙ্গল) সহ অসংখ্য দেবীর অন্তর্ভুক্তি রয়েছে, এবং অন্যদের মধ্যে দিনশনা, রাকা, পুরমধী, পরেন্দী, ভারতী ও মহীর মতো দানশীল দেবীদের ঋগ্বেদে উল্লেখ করা হয়েছে। <ref name=kinsley717>David Kinsley (2005), Hindu Goddesses: Vision of the Divine Feminine in the Hindu Religious Traditions, University of California Press, ISBN 978-8120803947, pages 6-17, 55-64</ref> যাইহোক, নারীদেরকে পুরুষদের মত বারংবার আলোচনা করা হয়নি।<ref name=kinsley717/> সমস্ত দেবতা ও দেবীদের বৈদিক কালে ভাগ করা হয় ,<ref name=kinsley18>David Kinsley (2005), Hindu Goddesses: Vision of the Divine Feminine in the Hindu Religious Traditions, University of California Press, ISBN 978-8120803947, pages 18, 19</ref> কিন্তু উত্তর-বৈদিক গ্রন্থে, বিশেষত মধ্যযুগীয় সময়ের সাহিত্যে, তাঁদেরকেতাদেরকে শেষপর্যন্ত এক সর্বজনীন শক্তি, পর[[ব্রহ্ম]]ের দিক বা প্রকাশ হিসাবে দেখা যায়।<ref>Christopher John Fuller (2004), The Camphor Flame: Popular Hinduism and Society in India, Princeton University Press, ISBN 978-0691120485, page 41</ref>
 
 
যোগী এবং তাদের আধ্যাত্মিক ঐতিহ্যের প্রাথমিক সাক্ষ্য, কারল ওয়ার্নারের মতে, [[বেদ]]ের কেশীন সূক্তে পাওয়া যায়, যেখানে এই যোগীগণ প্রশংসিত হন।<ref>Karel Werner (1977), Yoga and the Ṛg Veda: An Interpretation of the Keśin Hymn (RV 10, 136), Religious Studies, Vol. 13, No. 3, page 289; '''Quote:''' The Yogis of Vedic times left little evidence of their existence, practices and achievements. And such evidence as has survived in the Vedas is scanty and indirect. Nevertheless, the existence of accomplished Yogis in Vedic times cannot be doubted."</ref> যাইহোক, এখানে উল্লেখ নেই যে এই বৈদিক যুগের যোগীরা নারীদের অন্তর্ভুক্ত করতেন কিনা। পণ্ডিতরা মনে করেন যে, কিছু প্রাচীন বৈদিক ঋষি ছিলেন নারী।<ref>Swami [[Vivekananda]] public lecture, Vedanta Voice of Freedom, ISBN 0-916356-63-9, p.43</ref><ref>Daughters of the Goddess: Women Saints of India, by Linda Johnsen PhD., Yes Int'l Publishers, 1994, pg. 9.</ref> একজন মহিলা ঋষি ''ঋষিকা'' নামে পরিচিত হন।<ref>The Shambhala Encyclopedia of YOGA, p.244</ref>
 
''যোগিনী'' শব্দটি গোরক্ষনাথ প্রতিষ্ঠিত নাথ যোগী ঐতিহ্যের অন্তর্ভুক্ত একজন নারীকে বোঝাতে উল্লেখ করা হয়েছে।{{sfn|White|2012|p=8-9}} তাঁরাতারা সাধারণত শৈব ঐতিহ্যের অন্তর্গত, কিন্তু কিছু [[নাথ বৈষ্ণব]] ঐতিহ্যের অন্তর্গত।<ref name=lorenzenmunozx>David N. Lorenzen and Adrián Muñoz (2012), Yogi Heroes and Poets: Histories and Legends of the Naths, SUNY Press, ISBN 978-1438438900, pages x-xi</ref> উভয় ক্ষেত্রে, ডেভিড লরেনজেন বলেন যে, তাঁরাতারা [[যোগ (হিন্দুধর্ম)|যোগ]] অনুশীলন করেন এবং তাদের প্রধান [[ঈশ্বর]] নির্গুণ হতে থাকেন, ইনি এমন এক ঈশ্বর যিনি আকারবিহীন এবং অর্ধ-অদ্বৈতবাদী,<ref name=lorenzenmunozx/> মধ্যযুগীয় সময়ে হিন্দুধর্মের [[অদ্বৈত বেদান্ত]] বিদ্যালয়, বৌদ্ধধর্মের [[মাধ্যমিক]] ঘরানা, সেইসাথে তন্ত্র এবং যোগাভ্যাসে প্রভাব ফেলেছিলেন।<ref>David Lorenzen (2004), Religious Movements in South Asia, 600-1800, Oxford University Press, ISBN 978-0195664485, pages 310-311</ref><ref>David N. Lorenzen and Adrián Muñoz (2012), Yogi Heroes and Poets: Histories and Legends of the Naths, SUNY Press, ISBN 978-1438438900, pages 24-25</ref> নারী যোগিনীরা এই ঐতিহ্যের একটি বৃহৎ অংশ ছিলেন, এবং অনেক ২য়-সহস্রাব্দের চিত্রকর্ম তাঁদেরতাদের এবং তাঁদেরতাদের যোগচর্চা সম্বন্ধে বর্ণনা করে। ডেভিড লরেনজেন বলেছেন যে, দক্ষিণ এশিয়ায় ([[ভারত]]ের উত্তর, দক্ষিণ ও পশ্চিম অঙ্গরাজ্যসমূহ এবং [[নেপাল]]ে) গ্রামাঞ্চলের জনতার মধ্যে নাথ যোগীরা খুব জনপ্রিয়, মধ্যযুগীয় সময়ের কাহিনী ও গল্পে সমসাময়িক আবহে তাঁদেরতাদের স্মরণ রাখার মধ্য দিয়ে।<ref name=lorenzenmunozx/>
 
[[কথাসরিৎসাগর]]ের মতো মধ্যযুগীয় পুরাণে, ''যোগিনী'' যাদুশক্তিধর নারী ও [[পরী]]দের একটি শ্রেণীর নাম, যাদের বেশিরভাগ চরিত্রকে ক্বচিৎ ৮, ৬০, ৬৪ বা ৬৫ সংখ্যার হিসাবে গণনা করা হয়।<ref>[[Monier-Williams]], ''Sanskrit Dictionary'' (1899).</ref> ''হঠ-যোগ-প্রদীপিকা'' গ্রন্থে যোগিনীদের উল্লেখ করা হয়েছে।<ref>The Shambhala Encyclopedia of Yoga, Georg Feurstein Ph.D., Shambhala Publications, Boston 2000, p.350</ref>
১,৮৬,১২৭টি

সম্পাদনা