"লক্ষ্মী" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
}}
[[File:Lakshmi Puja Arnab Dutta.jpg|thumb|লক্ষ্মীপূজা]]
'''লক্ষ্মী''' ([[সংস্কৃত ভাষা|সংস্কৃত]]: लक्ष्मी) হলেন একজন [[হিন্দুধর্ম|হিন্দু]] [[দেবী]]। তিনি ধনসম্পদ, আধ্যাত্মিক সম্পদ, সৌভাগ্য ও সৌন্দর্যের দেবী। তিনি [[বিষ্ণু|বিষ্ণুর]] পত্নী। তাঁরতার অপর নাম [[মহালক্ষ্মী]]।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|শেষাংশ=Das|প্রথমাংশ=Subhamoy|শিরোনাম=Lakshmi: Goddess of Wealth & Beauty!|ইউআরএল=http://hinduism.about.com/od/hindugoddesses/p/lakshmi.htm|প্রকাশক=Hinduism.about.com|সংগ্রহের-তারিখ=2012-11-09}}</ref> [[জৈনধর্ম|জৈন]] স্মারকগুলিতেও লক্ষ্মীর ছবি দেখা যায়। লক্ষ্মীর বাহন পেঁচা।
 
লক্ষ্মী ছয়টি বিশেষ গুণের দেবী। তিনি বিষ্ণুর শক্তিরও উৎস। বিষ্ণু [[রাম]] ও [[কৃষ্ণ]] রূপে অবতার গ্রহণ করলে, লক্ষ্মী [[সীতা]] ও [[রাধা]] রূপে তাঁদেরতাদের সঙ্গিনী হন।<ref>[http://books.google.co.in/books?id=mfTE6kpz6XEC&pg=PA199&dq=goddess+lakshmi ''Encyclopaedia of Hindu Gods and Goddesses'']; by Suresh Chandra</ref><ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.festivalsinindia.net/goddesses/radha.html |শিরোনাম=Radha - Goddess Radha, Sri Radharani, Radha-Krishna, Radhika |প্রকাশক=Festivalsinindia.net |তারিখ= |সংগ্রহের-তারিখ=2012-11-09}}</ref><ref>Radha in Hinduism, the favourite mistress of the god Krishna, and an incarnation of Lakshmi. In devotional religion she represents the longing of the human soul for God: ''The Oxford Dictionary of Phrase and Fable'' (2006); Elizabeth Knowles |</ref> কৃষ্ণের দুই স্ত্রী [[রুক্মিণী]] ও [[সত্যভামা]]ও লক্ষ্মীর অবতার রূপে কল্পিত হন।<ref>''Essential Hinduism''; by Steven Rosen (2006); p. 136</ref>
 
লক্ষ্মীর পূজা অধিকাংশ হিন্দুর গৃহেই অনুষ্ঠিত হয়। [[দীপাবলি]] ও [[কোজাগরী পূর্ণিমা|কোজাগরী পূর্ণিমার]] দিন তাঁরতার বিশেষ পূজা হয়। এটি [[কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা]] নামে খ্যাত। বাঙালি হিন্দুরা প্রতি বৃহস্পতিবার লক্ষ্মীপূজা করে থাকেন।
 
==ধ্যানমন্ত্র==
==== বৃহস্পতিবারের ব্রতকথা ====
[[চিত্র:Lakshmi 02349.JPG|thumb|পেচকবাহিনী লক্ষ্মী]]
[[বাঙালি জাতি|বাঙালি]] [[হিন্দু|হিন্দুরা]] প্রতি [[বৃহস্পতিবার]] লক্ষ্মীর সাপ্তাহিক পূজা করে থাকেন। এই পূজা সাধারণত বাড়ির সধবা স্ত্রীলোকেরাই করে থাকেন। "বৃহস্পতিবারের ব্রতকথা"-য় এই বৃহস্পতিবারের লক্ষ্মীব্রত ও পূজা প্রচলন সম্পর্কে একটি যে লৌকিক গল্পটি রয়েছে, তা এইরকম: এক [[দোলযাত্রা|দোলপূর্ণিমার]] রাতে [[নারদ]] [[বৈকুণ্ঠ|বৈকুণ্ঠে]] লক্ষ্মী ও [[নারায়ণ|নারায়ণের]] কাছে গিয়ে মর্ত্যের অধিবাসীদের নানা দুঃখকষ্টের কথা বললেন। লক্ষ্মী মানুষের নিজেদের কুকর্মের ফলকেই এই সব দুঃখের কারণ বলে চিহ্নিত করলেন।. কিন্তু নারদের অনুরোধে মানুষের দুঃখকষ্ট ঘোচাতে তিনি মর্ত্যলোকে লক্ষ্মীব্রত প্রচার করতে এলেন। অবন্তী নগরে ধনেশ্বর নামে এক ধনী বণিক বাস করতেন। তাঁরতার মৃত্যুর পর তাঁরতার ছেলেদের মধ্যে বিষয়সম্পত্তি ও অন্যান্য ব্যাপার নিয়ে ঝগড়া চলছিল। ধনেশ্বরের বিধবা পত্নী সেই ঝগড়ায় অতিষ্ঠ হয়ে বনে আত্মহত্যা করতে এসেছিলেন। লক্ষ্মী তাঁকেতাকে লক্ষ্মীব্রত করার উপদেশ দিয়ে ফেরত পাঠালেন। ধনেশ্বরের স্ত্রী নিজের পুত্রবধূদের দিয়ে লক্ষ্মীব্রত করাতেই তাঁদেরতাদের সংসারের সব দুঃখ ঘুচে গেল। ফলে লক্ষ্মীব্রতের কথা অবন্তী নগরে প্রচারিত হয়ে গেল। একদিন অবন্তীর সধবারা লক্ষ্মীপূজা করছেন, এমন সময় শ্রীনগরের এক যুবক বণিক এসে তাদের ব্রতকে ব্যঙ্গ করল। ফলে লক্ষ্মী তার উপর কুপিত হলেন। সেও সমস্ত ধনসম্পত্তি হারিয়ে অবন্তী নগরে ভিক্ষা করতে লাগল। তারপর একদিন সধবাদের লক্ষ্মীপূজা করতে দেখে সে অনুতপ্ত হয়ে লক্ষ্মীর কাছে ক্ষমা চাইল। লক্ষ্মী তাকে ক্ষমা করে তার সব ধনসম্পত্তি ফিরিয়ে দিলেন। এইভাবে সমাজে লক্ষ্মীব্রত প্রচলিত হল।<ref>"শ্রীশ্রীলক্ষ্মীদেবীর ব্রতকথা ও পাঁচালী", ''মেয়েদের ব্রতকথা'', কালীকিশোর বিদ্যাবিনোদ সম্পাদিত, অক্ষয় লাইব্রেরি, কলকাতা, ২০১১, পৃ. ১৮৬-৯১</ref>
 
== পাদটীকা ==
১,৮৬,১২৭টি

সম্পাদনা