"লক্ষ্মী মিত্তাল" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(১টি উৎস উদ্ধার করা হল ও ০টি অকার্যকর হিসেবে চিহ্নিত করা হল।) #IABot (v2.0)
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
 
'''লক্ষ্মীনারায়ণ মিত্তাল''' (ইংরেজি: Lakshmi Narayan Mittal, রাজস্থানী: लक्ष्मी मित्तल; জন্ম: ১৫ই জুন, ১৯৫০)<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি | ইউআরএল=http://www.arcelormittal.com/index.php?lang=en&page=256&width=420&height=500&tb0=1 | শিরোনাম=Lakshmi N. Mittal / Chairman of the Board of Directors and CEO | প্রকাশক=Arcelor Mittal | সংগ্রহের-তারিখ=7 October 2010 | আর্কাইভের-ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20100609132934/http://www.arcelormittal.com/index.php?lang=en&page=256&width=420&height=500&tb0=1 | আর্কাইভের-তারিখ=৯ জুন ২০১০ | অকার্যকর-ইউআরএল=হ্যাঁ }}</ref> একজন ভারতীয় [[ইস্পাত]] ব্যবসায়ী। তিনি বিশ্বের বৃহত্তম ইস্পাত প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান [[আর্সেলরমিত্তাল|আর্সেলরমিত্তালের]]<ref name="forbes1"/> চেয়ারম্যান এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা।
 
জুলাই ২০১০ পর্যন্ত হিসাব মতে মিত্তাল ইউরোপের প্রথম এবং বিশ্বের পঞ্চম শীর্ষ ধনী এবং তার ব্যক্তিগত সম্পদের মূল্যমান ২৮.৭ বিলিয়ন ইউএস ডলার বা ১৯.৩ বিলিয়ন ইউরো। দি ফাইন্যান্সিয়াল টাইমস তাকে ২০০৬ সালের "পার্সন অফ দ্য ইয়ার" ঘোষনাঘোষণা করে। ২০০৭ সালের মে মাসে টাইম ম্যাগাজিন তাকে বিশ্বের শীর্ষ ১০০ প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় স্থানদেয়।
 
তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিশ্ব প্রবাসী ভারতীয় উপদেষ্টা পরিষদের একজন সদস্য। তিনি গোল্ডম্যান স্যাকস, ইএডিএস ও আইসিআইসিআই ব্যাংক অনির্বাহী পরিচালক এবং ওয়ার্ল্ড স্টিল অ্যাসোসিয়েনের ভাইস চেয়ারম্যান। এছাড়াও তিনি কাজাখস্তানের বৈদেশিক বিনিয়োগ কাউন্সিল, দক্ষিণ আফ্রিকার আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ কাউন্সিল, বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য কাউন্সিল এবং আন্তর্জাতিক লৌহ ও ইস্পাত ইন্সিটিটিউটের নির্বাহী পরিষদের একজন সদস্য। তিনি Kellogg School of Management এর উপদেষ্টা পরিষদ এবং সেইন্ট জেভিয়ার্স কলেজ, কলকাতা এ্যালামনাই এসোসিয়েশন লন্ডন চ্যাপ্টারের ও একজন সদস্য।
১,৭৬,৪২২টি

সম্পাদনা