"কলকাতা পৌরসংস্থা" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎ইতিহাস: অগস্ট বানানটি আগস্ট লিখতে হবে।
(→‎ইতিহাস: অগস্ট বানানটি আগস্ট লিখতে হবে।)
|}
 
কলকাতায় [[ইংরেজ]] বসতি স্থাপিত হয় [[১৬৯০]] সালে। এরপর থেকেই এই অঞ্চলে দ্রুত নগরায়ণ শুরু হয়। তবে প্রথমদিকে কলকাতায় কোনও পৌর প্রশাসনিক ব্যবস্থা গড়ে ওঠেনি। বিচারকাজ সম্পাদনের উদ্দেশ্যে [[১৭২৬]] সালে প্রথম রাজকীয় সনদবলে একটি ‘মেয়রস কোর্ট’ বা মেয়রের আদালত চালু হয়। এই সংস্থা কিছু পৌর পরিষেবার দায়িত্বও গ্রহণ করেছিল। [[১২ অগস্টআগস্ট]] [[১৭৬৫]] তারিখে [[ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি|ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি]] বাংলার দেওয়ানি লাভ করলে, কিছু পৌর প্রশাসনিক সংস্কার সাধনের ক্ষমতাও লাভ করে। [[১৭৭৩]] সালে কলকাতাকে ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী ঘোষণা করা হলে একটি শক্তিশালী পৌরসংগঠনের দাবি জোরালো হয়। সেই সময় ছোটখাট একটি পরিষেবা ব্যবস্থা ও একটি ক্ষুদ্রাকার পুলিশ ব্যবস্থা স্থাপিত হয়। [[১৭৯৪]] সালে পৌর প্রশাসনের দায়িত্ব কালেক্টরের হাত থেকে ‘জাস্টিস অফ দ্য পিস ফর দ্য টাউন’-এর হাতে তুলে দেওয়া হয়।
 
উনিশ শতকে কলকাতা ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের দ্বিতীয় নগরে পরিণত হলে বাংলার গভর্ণর-জেনারেল নানাভাবে শহরের পৌরকাঠামোর উন্নতিসাধনের চেষ্টা করতে থাকেন। [[১৮৪৭]] সালে করদাতাদের দ্বারা নির্বাচিত ৭জন বেতনভুক কর্মচারীর অধীনে একটি পৌরবোর্ড স্থাপিত হয়। এই বোর্ড শহরের উন্নয়নের জন্য সম্পত্তি ক্রয় ও রক্ষণ, রাস্তা-সংস্কার এবং নিকাশি-সংস্কারের দায়িত্ব পায়। [[১৮৫২]] সালে দুজন নির্বাচিত ও দুজন সরকার মনোনীত সদস্যযুক্ত নতুন একটি বোর্ড এই বোর্ডের স্থলাভিষিক্ত হয়। গৃহনির্মাণ, আলো, ঘোড়া ও গাড়ির উপর কর ধার্য হয়। [[১৮৬৩]] সালে আরেকটি নতুন বোর্ড স্থাপিত হয় যেটি তার নিজস্ব ভাইস-চেয়ারম্যান নির্বাচন করে ও একজন নিয়মিত স্বাস্থ্য আধিকারিক, ইঞ্জিনিয়ার, সার্ভেয়ার, ট্যাক্স কালেক্টর ও অ্যাসেসর নিয়োগ করে। এই সময়েই নিকাশি ও জলসরবরাহ ব্যবস্থার উন্নতি ঘটে। [[১৮৭৪]] সালে নিউ মার্কেট ও [[১৮৬৬]] সালে মিউনিসিপ্যাল স্লটার হাউস স্থাপিত হয়। ফুটপাথ নির্মাণসহ, রাস্তাঘাটের উন্নতি ঘটে।
৩১৯টি

সম্পাদনা