"শহীদ আফ্রিদি" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

প্রকাশিত হতে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেটের সুপার স্টার শাহিদ আফ্রিদির আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’
(আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
(প্রকাশিত হতে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেটের সুপার স্টার শাহিদ আফ্রিদির আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
| country = পাকিস্তান
| fullname = শাহিবজাদা মোহাম্মাদ শহীদ খান আফ্রিদি
| nickname = বুম বুম, আফ্রিদি, লালা
|
ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |url=http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/8593514.stm |title=ICC World Twenty20 teams guide |publisher=BBC Sport |date=28 April 2010 |accessdate=21 February 2011}}</ref>
| heightft =5
}}
 
'''সাহিবজাদা মহম্মদ শাহিদ খান আফ্রিদি''' বা '''শাহিদ আফ্রিদি''' ({{lang-ur|{{Nastaliq|شاہد افریدی}}}}, {{lang-ps|{{Nastaliq|شاھد اپریدی}}}}; জন্ম: ০১ মার্চ ১৯৮০) একজন সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটার এবং [[পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দল|পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের]] সাবেক অধিনায়ক। তিনি ''বুম বুম আফ্রিদি'' নামেও পরিচিত। আফ্রিদি ১৯৯৬ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের হয়ে ২৭টি টেস্ট ম্যাচ, ৩৪৯টি ওডিআই ম্যাচ ও ৫৬টি টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন। ১৯৯৬ সালের ২রা অক্টোবর কেনিয়ার বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে এবং ১৯৯৮ সালের ২২শে অক্টোবর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওডিআই ক্রিকেটে তাঁর অভিষেক ঘটে। একজন সফল অলরাউন্ডার হিসেবে আফ্রিদি তাঁর সামঞ্জস্যপূর্ণ বোলিং এবং আগ্রাসী ব্যাটিং স্টাইলের জন্য সমাদৃত। আফ্রিদি ৩৭টি ডেলিভারিতে দ্রুততম ওডিআই সেঞ্চুরি করার বিশ্বরেকর্ডের অধিকারী ছিলেন এবং তিনি ওডিআই ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বাধিক ছক্কা হাঁকানোর সম্মানের অধিকারী।অধিকারী।প্রকাশিত হতে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেটের সুপার স্টার শাহিদ আফ্রিদির আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’
 
আফ্রিদি বেশি পরিচিত তার আক্রমণাত্মক ব্যাটিং ভঙ্গির এবং একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে দ্রুততম শতক ধরে রাখার জন্য। তিনি এক ওভারে করেছিলেন ৩২ রান, যা একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে এক ওভারে ২য় সর্বোচ্চ স্কোর। তাছাড়াও তিনি একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি ছয় মারার কৃতিত্ব অর্জন করেন। আফ্রিদি নিজেকে একজন ব্যাটসম্যানের চেয়ে বেশি বোলার মনে করেন। তিনি টেস্ট ৪৮টি [[উইকেট]], ৩৪৮টির বেশি একদিনের আন্তর্জাতিক উইকেট নিয়েছেন। বর্তমানে আফ্রিদি আন্তর্জাতিক টি২০-তে সবচেয়ে বেশি উইকেট শিকারি এবং তিনি ৫৬টি ম্যাচে ৬২টি উইকেট নিয়েছেন।
 
২০০৯ সালের জুন মাসে [[ইউনুস খান|ইউনুস খানের]] কাছে থেকে টি২০-এর [[অধিনায়ক (ক্রিকেট)|অধিনায়কত্ব]] পান। কিছুদিন পরে ২০১০ সালে নিয়োগপ্রাপ্ত হন একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচের জন্য। তার প্রথম একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে অধিনায়কত্বের অভিষেক হয় [[শ্রীলঙ্কা জাতীয় ক্রিকেট দল|শ্রীলঙ্কার]] বিরুদ্ধে যেখানে তার একটি শতক ও ছিল কিন্তু পাকিস্তান ম্যাচটি হেরেছিল ১৬ রানে।
প্রকাশিত হতে চলেছে পাকিস্তান ক্রিকেটের সুপার স্টার শাহিদ আফ্রিদির আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’
 
== ব্যক্তিগত জীবন ==
বেনামী ব্যবহারকারী