"স্বেচ্ছাসেবী কাজ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ইউরোপের কিছু দেশের সরকারি আর বেসরকারি সংস্থাগুলো একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত হাসপাতাল, স্কুল, স্মারক বহনকারী এবং কল্যাণ প্রতিষ্ঠানের মতো জায়গায় একটি সহায়ক অবস্থান প্রদান করে। অন্যান্য স্বেচ্ছাসেবী কাজের সাথে এর পার্থক্য হলো, একটি কঠোর আইনী বিধিমালা আছে যে, কোন সংস্থাগুলো স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়োগ করতে পারবে আর কত সময়ের জন্য একজন স্বেচ্ছাসেবক স্বেচ্ছাসেবী কাজে নিয়োজিত থাকতে পারবে। এই ধরণের নিয়মের ফলে, একজন স্বেচ্ছাসেবক একটি নির্দিষ্ট পরিমান অর্থ সরকার থেকে আয় করতে পারে। ইউরোপের সব থেকে বড় জনশক্তি রয়েছে, জার্মান ফেডারেল ভলান্টিয়ার্স সার্ভিস এর (Bundesfreiwilligendienst), যেটি ২০১১ সালে যাত্রা শুরু করে, যার ২০১২ সালে ৩৫,০০০ এর বেশি ফেডারেল স্বেচ্ছাসেবক রয়েছে।[৩১] ভলান্টারী সোশ্যাল ইয়ার (Freiwilliges Soziales Jahr) হচ্ছে অস্ট্রিয়া আর জার্মানি- এর সবচে পুরোনো প্রতিষ্ঠান।[৩২][৩৩]   
 
=== '''বৃহত্তর ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় স্বেচ্ছাসেবী কাজ '''===
২০১৪ সালের সোচি উইন্টার অলিম্পিকসে ২৫,০০০ সোচি অলিম্পিকস স্বেচ্ছাসেবক কাজ করেছিল। তারা ২০ এরও বেশি কার্যক্ষেত্রে আয়োজকদের সাহায্য করেছিল: অতিথিদের সাথে অধিবেশন, নৌযাত্রায় সহযোগিতা, অনুষ্ঠানের শুরু আর সমাপ্তির আয়োজন, খাবার পরিবেশনদ্বারের আয়োজন, ইত্যাদি।স্বেচ্ছাসেবকদের আবেদন করার প্রক্রিয়া রাশিয়ার যেকোনো জাতি আর অন্যান্য দেশের জন্য উন্মুক্ত ছিল। সোচি ২০১৪ এর আয়োজক কমিটি প্রায় ২০০,০০০ আবেদনপত্র পেয়েছিলো, ৮ জন প্রার্থী প্রতি কার্যক্ষেত্রে জন্য। স্বেচ্ছাসেবকরা রাশিয়ার ১৭ টি শহরের ২৬ স্বেচ্ছাসেবক কেন্দ্রে প্রশিক্ষণ নিয়েছিল প্রায় এক বছরেরও বেশি সময় ধরে। অংশগ্রহণকারীদের অনেকের বয়স ১৭ থেকে ২২ বছর পর্যন্ত ছিল। এই সময়ই, ৫৫ বছরেরও বেশি বয়সের লোকেদের ৩০০০ আবেদনপত্র জমা পড়েছিল। ১৯৮০ সালের মস্কো অলিম্পিকসে এদের অনেকেই কাজ করেছিল। এটি সমসাময়িক রাশিয়াতে অনেক বড় স্বেচ্ছাসেবা কার্যক্রমের প্রথম অভিজ্ঞতা ছিল।
 
৩৬টি

সম্পাদনা