থমাস পিনচন: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
সম্পাদনা সারাংশ নেই
সম্পাদনা সারাংশ নেই
লং আইল্যান্ডের শৈশব শেষে পিনচন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীতে দুই বছর চাকরি করেছিলেন এবং কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৫০ এর দশকের শেষের দিকে এবং ১৯৬০ এর দশকের শুরুর দিকে বেশ কয়েকটি ছোট গল্প প্রকাশের পরে, তিনি যে উপন্যাসগুলোর জন্য সবচেয়ে বেশি পরিচিত সেগুলো রচনা শুরু করেছিলেন: ভি (১৯৬৩), দি ক্রাইং অফ লট ৪৯ (১৯৬৬) এবং গ্র্যাভিটিজ রেইনবো (১৯৭৩)। তার ২০০৯ এর উপন্যাস ইনহেরেন্ট ভাইস কে ২০১৪ সালে পরিচালক পল থমাস অ্যান্ডারসন একই নামের একটি ফিচার ফিল্মে রূপান্তরিত করেছিলেন। পিনচন লোকচক্ষুর অন্তরালে থাকার জন্য বিখ্যাত; তাঁর কয়েকটি ছবি প্রকাশিত হয়েছে এবং তাঁর অবস্থান ও পরিচয় সম্পর্কে গুজব ১৯৬০ এর দশক থেকে প্রচারিত হয়েছিল। পিনচন এর সবচেয়ে সাম্প্রতিক উপন্যাস ব্লিডিং এজ ১৭ ই সেপ্টেম্বর ২০১৩ তে এ প্রকাশিত হয়েছিল।
<br>
{| class="wikitable"
|-
সূচীপত্র
|-
১. প্রথম জীবন
|-
১.১ শৈশব এবং শিক্ষা
|-
| ২. পেশা
|-
| ২.১ প্রারম্ভিক কর্মজীবন
|-
| ২.১.১ ভি
|-
| ২.১.২ দি ক্রাইং অফ লট ৪৯
|-
| ২.১.৩ গ্র্যাভিটিজ রেইনবো
|-
| ২.২ পরবর্তী কর্মজীবন
|-
| ২.২.১ ভিনল্যান্ড
|-
| ২.২.২ মেসন ও ডিকসন
|-
| ২.২.৩ এগেইনস্ট দা ডে
|-
| ২.২.৪ ইনহেরেন্ট ভাইস
|-
| ২.২.৫ ব্লিডিং এজ
|-
| ৩. লেখার ধরন
|-
| ৪. লেখার বিষয়বস্তু
|-
| ৫. প্রভাবক
|-
| ৫.১ পূর্ববর্তী
|-
| ৫.২ পরবর্তী
|-
| ৬. ব্যক্তিগত জীবনে মিডিয়ার প্রভাব
|-
| ৬.১ ১৯৭০ এবং ১৯৮০ এর দশক
|-
| ৬.২ ১৯৯০ এর দশক
|-
| ৬.৩ ২০০০ এর দশক
|-
| ৭. কাজের তালিকা
|-
| ৮. তথ্যসহায়িকা
|-
| ৯. আরো তথ্যসহায়িকা
|-
| ১০. বাহ্যিক লিঙ্কগুলি
|-
|}
 
{|
৫৫টি

সম্পাদনা