প্রধান মেনু খুলুন

পরিবর্তনসমূহ

 
=== শব্দটির ঐতিহাসিক ব্যবহার ===
* ১৪২৩ সাল থেকে ১৪২৬ সালের মধ্যে লিখিত ''স্কাজানিয়ে ইজয়াভলিয়েন্নো পিসমেনেহ'' কাজে বুলগেরীয় কাহিনীকার দার্শনিক কোনস্টানটাইন বুলগেরীয়, সার্বীয়, স্লোভেনীয়, চেক এবং ক্রোয়েশীয় ভাষা সঙ্গে বসনীয় ভাষারও উল্লেখ করেছেন।<ref name="Muhsin Rizvić 1996 6"/>
* ১৪৩৬ সালের ৩রা জুলাই কোটোর শহরের নোটারি বইয়ে বর্ণিত হয়েছে একজন ডিউক একটি মেয়েকে কিনছিলেন, যে "বসনিয়ান নারী, উৎপথগামী এবং বসনীয় ভাষায় যার নাম দিয়েভেনা"।<ref name="Muhsin Rizvić 1996 6">{{cite book|author= Muhsin Rizvić|title=Bosna i Bošnjaci: Jezik i pismo|publisher=Preporod|volume=|page=6|location=[[Sarajevo]]|url=http://www.muhsinrizvic.ba/sadrzaj/MRizvic-Bosna_i_Bosnjaci_%20jezik_i_pismo.pdf#page=6|year=1996}}
</ref><ref>
* জার্মান ইতিহাসবিদ এবং ভাষাবিদ হিয়েরোনিমুস মেগিসের দ্বারা রচিত ফ্র্যাঙ্কফুর্ট আম মাইনে প্রকাশিত ১৬০৩ সালের থিসোরাস পলিগ্লটাসে ডালমাশীয়, ক্রোয়েশীয় এবং সার্বীয়ের পাশাপাশি বসনীয় উপভাষারও উল্লেখ আছে।
Aleksandar Solovjev, ''Trgovanje bosanskim robljem do god. 1661''. - Glasnik Zemaljskog muzeja, N. S., 1946, 1, 151.</ref>
* বসনিয়া ও হার্জেগোভিনার আধুনিক সাহিত্যের প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে পরিচিত বসনীয় ফ্রান্সিসীয় মতিয়া দিভকোভিচ তাঁঁর ১৬১১ সালের "নাউক ক্রিস্তিয়ান্স্কি জা নারোদ স্লোভিনস্কি" ("স্লাভিক জাতির জন্য খ্রিস্টান মতবাদ") লেখায় দাবি করেন "আ প্রিভিদেঃ ইজ দিয়াচকোগু প্রাভি ই ইস্তিনিত ইয়েজিক বোসানস্কি" ("লাতিন থেকে প্রকৃত এবং খাঁঁটি বসনীয় ভাষায় অনূদিত")।
* জার্মান ইতিহাসবিদ এবং ভাষাবিদ হিয়েরোনিমুস মেগিসের দ্বারা রচিত ফ্র্যাঙ্কফুর্ট[[ফ্রাঙ্কফুর্ট|ফ্রাঙ্কফুর্ট আম মাইনে]] প্রকাশিত ১৬০৩ সালের ''থিসোরাস পলিগ্লটাসে'' ডালমাশীয়, ক্রোয়েশীয় এবং সার্বীয়ের পাশাপাশি বসনীয় উপভাষারও উল্লেখ আছে।<ref>V. Putanec, ''Leksikografija'', Enciklopedija Jugoslavije, V, 1962, 504.
* বসনিয়াক কবি এবং লেখক মুহামেদ হেভায়ি উস্কুফি বোস্নেভি তাঁঁর ১৬৩২ সালের মাগবুলি-আরিফ অভিধানে ভাষাটিকে বসনীয় হিসাবে উল্লেখ করেছেন।
</ref><ref>
{{cite book|author= Muhsin Rizvić|title=Bosna i Bošnjaci: Jezik i pismo|publisher=Preporod|volume=|page=7|location=[[Sarajevo]]|url=http://www.muhsinrizvic.ba/sadrzaj/MRizvic-Bosna_i_Bosnjaci_%20jezik_i_pismo.pdf#page=7|year=1996}}</ref>
* বসনিয়া ও হার্জেগোভিনার আধুনিক সাহিত্যের প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে পরিচিত বসনীয় ফ্রান্সিসীয় [[মাতিয়া দিভকোভিচ]]<ref name=Lovrenovic>
{{cite web |title=DIVKOVIĆ: OTAC BOSANSKE KNJIŽEVNOSTI, PRVI BOSANSKI TIPOGRAF |url=http://ivanlovrenovic.com/2012/01/divkovic-otac-bosanske-knjizevnosti-prvi-bosanski-tipograf/ |publisher=IvanLovrenovic.com |accessdate=30 August 2012 |author=Ivan Lovrenović |date=2012-01-30 |archive-url=https://web.archive.org/web/20120712170534/http://ivanlovrenovic.com/2012/01/divkovic-otac-bosanske-knjizevnosti-prvi-bosanski-tipograf/ |archive-date=12 July 2012 |dead-url=yes }}
</ref><ref name=hrvatska-rijec>
{{cite web |title= Matija Divković – otac bosanskohercegovačke i hrvatske književnosti u BiH |url= http://www.hrvatska-rijec.com/2011/04/matija-divkovic-otac-bosansko-hercegovacke-i-hrvatske-knjizevnosti-u-bih/ |publisher= www.hrvatska-rijec.com |accessdate= 30 August 2012 |author= hrvatska-rijec.com |language= Serbo-Croatian |date= 17 April 2011 |deadurl= yes |archiveurl= https://web.archive.org/web/20120117002803/http://www.hrvatska-rijec.com/2011/04/matija-divkovic-otac-bosansko-hercegovacke-i-hrvatske-knjizevnosti-u-bih/ |archivedate= 17 January 2012 |df= }}</ref> তাঁঁর ১৬১১ সালের "''নাউক ক্রিস্তিয়ান্স্কি জা নারোদ স্লোভিনস্কি''" ("স্লাভিক জাতির জন্য খ্রিস্টান মতবাদ") লেখায় দাবি করেন "আ প্রিভিদেঃ ইজ দিয়াচকোগু প্রাভি ই ইস্তিনিত ইয়েজিক বোসানস্কি" ("লাতিন থেকে প্রকৃত এবং খাঁঁটি বসনীয় ভাষায় অনূদিত")।<ref name="Muhsin Rizvić 1996 24">{{cite book|author= Muhsin Rizvić|title=Bosna i Bošnjaci: Jezik i pismo|publisher=Preporod|volume=|page=24|location=[[Sarajevo]]|url=http://www.muhsinrizvic.ba/sadrzaj/MRizvic-Bosna_i_Bosnjaci_%20jezik_i_pismo.pdf#page=24|year=1996}}</ref>
* বসনিয়াক কবি এবং লেখক [[মুহামেদ হেভায়ি উস্কুফি বোস্নেভি]] তাঁঁর ১৬৩২ সালের ''মাগবুলি-আরিফ'' অভিধানে ভাষাটিকে বসনীয় হিসাবে উল্লেখ করেছেন।<ref>{{cite web|title=ALJAMIADO AND ORIENTAL LITERATURE IN BOSNIA AND HERZEGOVINA (1463-1878)|url=http://www.pozitiv.si/dividedgod/texts/Aljamiado%20and%20Oriental%20Literature%20in%20BiH.pdf|publisher=pozitiv.si|deadurl=yes|archiveurl=https://web.archive.org/web/20140202111003/http://www.pozitiv.si/dividedgod/texts/Aljamiado%20and%20Oriental%20Literature%20in%20BiH.pdf|archivedate=2014-02-02|df=}}</ref>
* প্রথম ব্যাকরণবিদদের মধ্যে একজন, খ্রিস্টীয় পাদ্রি বার্তোলোমেও কাসিও তাঁঁর ১৬৪০ সালের "রিতুয়াল রিমস্কি" ("রোমান আচার") ভাষাটিকে বলেছেন "নাশকি" ("আমাদের ভাষা") বা বোসানস্কি ("বসনীয়")। চাকাভীয় অঞ্চলে জন্মগ্রহণ করলেও তিনি "বসনীয়" শব্দটি ব্যবহার করেছিলেন।
* ইতালীয় ভাষাবিজ্ঞানী ইয়াকোভ মিকালিয়া (১৬০১-১৬৫৪) তাঁঁর ১৬৪৯ সালের ব্লাগু ইয়েজিকা স্লোভিন্সকোগা (থিসোরাস লিঙ্গুয়া ইলিরিকে) অভিধানে বলেছেন যে তিনি "সবচেয়ে সুন্দর শব্দ" অন্তর্ভুক্ত করতে চান, "সমস্ত ইলিরীয় ভাষাগুলির মধ্যে বসনীয় সবচেয়ে সুন্দর", এবং সমস্ত ইলিরীয় লেখকদের সেই ভাষায় লিখতে চেষ্টা করা উচিত।