"চাক বেরি" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
}}
 
'''চার্লস এডওয়ার্ড অ্যান্ডারসন বেরি''' (১৮ অক্টোবর, ১৯২৬ – ১৮ মার্চ, ২০১৭), যিনি '''চাক বেরি''' নামেই অধিক পরিচিত, একজন [[মার্কিন]] গায়ক, গীতিকার এবং [[রক সংগীত|রক এ্যান্ড রোল]] সংগীতের একজন প্রবর্তক<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল= http://bonikbarta.net/bangla/news/2017-03-31/112077/%E0%A6%9A%E0%A6%BE%E0%A6%95-%E0%A6%AC%E0%A7%87%E0%A6%B0%E0%A6%BF,-%E0%A6%95%E0%A6%BF%E0%A6%82%E0%A6%AC%E0%A6%A6%E0%A6%A8%E0%A7%8D%E0%A6%A4%E0%A6%BF-%E0%A6%86%E0%A6%B0-%E0%A6%B0%E0%A6%95-%E0%A6%8F%E0%A6%A8-%E0%A6%B0%E0%A7%8B%E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%B0-%E0%A6%95%E0%A6%A5%E0%A6%95-/ |শিরোনাম=চাক বেরি, কিংবদন্তি ও রক এ্যান্ড রোলের কথক |কর্ম=বণিক বার্তা |তারিখ=১৮ মার্চ ২০১৭ |সংগ্রহের-তারিখ=২৬ মে ২০১৯ |অকার্যকর-ইউআরএল=না }}</ref>। "[[মেবিলিন (চাক বেরির গান)|মেবিলিন]]" (১৯৫৫), "[[রোল ওভার বিঠোফেন]]" (১৯৫৬), "[[রক এ্যান্ড রোল মিউজিক]]" (১৯৫৭) এবং "[[জনি বি. গুড]]" (১৯৫৮) এর মতো গান সৃষ্টি করে বেরি [[রিদম এ্যান্ড ব্লুজ]] সংগীতকে পরিমার্জিত ও উন্নত করে, যার গুরুত্বপূর্ণ কিছু উপাদান রক এ্যান্ড রোল সংগীতকে স্বাতন্ত্র‍্যসূচক করে তুলেছে। কিশোর জীবন ও স্বার্থসংরক্ষণ নিয়ে গান রচনা করে এবং গিটারে সলো অন্তর্ভুক্ত করে এমন একটি সংগীত শৈলী বিকাশ করে, যা বেরি'কে পরবর্তীতে রক সংগীতে একজন প্রভাবশালী শিল্পী হিসেবে গড়ে তুলে।
 
বেরি সেন্ট লুইস, [[মিসৌরি]]র মধ্যবিত্ত আফ্রিকান-আমেরিকান পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://www.rockhall.com/inductees/chuck-berry|শিরোনাম=চাক বেরি – রক এ্যান্ড রোল হল অব ফেম|কর্ম=দ্য রক এ্যান্ড রোল হল অব ফেম|সংগ্রহের-তারিখ=২০১৯-০৬-০৯}}</ref><ref>{{harvtxt|পেগ|২০০৩|pp=১১৯–১২৭}}</ref>। অল্প বয়সেই তিনি সঙ্গীতে আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন এবং সামনার উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রথম মঞ্চে গান পরিবেশন করেছিলেন। উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র থাকাকালে তিনি সশস্ত্র ডাকাতির দোষী সাব্যস্ত হন এবং তাকে একটি সংস্কারমূলক প্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়, যেখানে তিনি ১৯৪৪ থেকে ১৯৪৭ পর্যন্ত ছিলেন। মুক্তির পর, বেরি বিবাহিত জীবনে আবদ্ধ হন এবং একটি অটোমোবাইল সমাবেশ তৈরিতে কাজ করেছিলেন। ১৯৫৩ সালের প্রথম দিকে ব্লুজ সঙ্গীতশিল্পী টি-বোন ওয়াকারের গিটার রিফ কৌশল দ্বারা প্রভাবিত হয়ে বেরি, জনি জনসন ত্রয়ীর সাথে কাজ শুরু করেন<ref name="ব্রিটানিকা">{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=https://www.britannica.com/biography/Chuck-Berry |শিরোনাম=চাক বেরি - ব্রিটানিকা |কর্ম=ব্রিটানিকা|তারিখ= |সংগ্রহের-তারিখ=২৭ মে ২০১৯ |ভাষা=en |অকার্যকর-ইউআরএল=না }}</ref>। ১৯৫৫ সালের মে মাসে শিকাগো ভ্রমণের সময় তিনি মাডি ওয়াটার্সের সাথে সাক্ষাৎ করেছিলেন, যিনি চেস রেকর্ডসের লেওনার্ড চেসের সাথে তাকে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। চেসের সাথে তিনি "মেবিলিন" রেকর্ড করেছিলেন, যা এক মিলিয়ন কপি বিক্রি করেছিল এবং ''বিলবোর্ড'' ম্যাগাজিনের রিদম এ্যান্ড ব্লুজ চার্টে এক নম্বরে পৌছেছিল<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://www.billboard.com/articles/news/7728700/chuck-berry-dead |শিরোনাম=রক এ্যান্ড রোল সঙ্গীতের প্রবর্তক, চাক বেরি, ৯০ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেছেন |কর্ম=বিলবোর্ড |সংগ্রহের-তারিখ=৪ জুন ২০১৯ |ভাষা=en}}</ref>। ১৯৫০ এর দশকের শেষভাগে, বেরি বেশ কয়েকটি হিট রেকর্ড, চলচ্চিত্রের উপস্থিতি এবং আকর্ষণীয় ভ্রমণ করে একজন প্রতিষ্ঠিত তারকা হয়ে যান। তিনি নিজের সেন্ট লুইস নাইটক্লাব, বেরির ক্লাব ব্যান্ডস্ট্যান্ড প্রতিষ্ঠা করেছিলেন<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://www.sltrib.com/home/5076088-155/chuck-berry-a-rock-n-roll |শিরোনাম=রক এ্যান্ড রোল সঙ্গীতের একজন প্রবর্তক, চাক বেরি মৃত্যুবরণ করেছেন |কর্ম=দ্য সল্ট লেক ট্রিবিউন |সংগ্রহের-তারিখ=৪ জুন ২০১৯ |ভাষা=en}}</ref>। মানবাধিকার আইনের অধীনে ১৯৬২ সালের জানুয়ারি মাসে তাকে তিন বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছিল — কারণ, তিনি ১৪ বছরের এক মেয়েকে রাষ্ট্রের সীমানা জুড়ে নিয়ে যান। ১৯৬৩ সালে তার মুক্তির পর, "নো পার্টিকুলার প্লেস টু গো", "ইউ নেভার ক্যান টেল" এবং "ন্যাডিন" সহ আরো কয়েকটি হিট গান বের হয়, কিন্তু তা ১৯৫০-এর দশকের গানগুলোর সমান সফলতা বা প্রভাব অর্জন করে না। ১৯৭০-এর দশকে তিনি নস্টালজিক অভিনেতা হিসাবে আরও বেশি জনপ্রিয়তা লাভ করেন, পরিবর্তনশীল মানের স্থানীয় ব্যাকআপ ব্যান্ডগুলির সাথে তার অতীত হিটগুলি বিভিন্ন ক্লাব অনুষ্ঠানে গেয়েছিলেন<ref name="ব্রিটানিকা"/>। ১৯৭২ সালে তিনি "মাই ডিং-এ-লিং" গানটি লিখে ''বিলবোর্ড'' ম্যাগাজিনে এক নম্বর স্থান অর্জন করেন এবং তিনি কৃতিত্বের একটি নতুন স্তর অর্জন করেন<ref name=":08">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|প্রথমাংশ=Mahid|শেষাংশ=Ul Ibad|শিরোনাম=চাক বেরির অজানা দশ|ইউআরএল=https://bangla.bdnews24.com/glitz/article1305735.bdnews|প্রকাশক=bdnews24.com|সংগ্রহের-তারিখ=২১ জুন ২০১৯|তারিখ=১৯ মার্চ ২০১৭}}</ref>। কর ফাঁকি দেওয়ার জন্য ১৯৭৯ সালে চার মাসের কারাদন্ড ও কমিউনিটি সার্ভিসে নগদ অর্থ প্রদানের বিষয়ে তার উপর জোর দেওয়া হয়েছিল।
৪০১টি

সম্পাদনা