"বার্মায় ব্রিটিশ শাসন" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
 
ব্রিটিশদের বর্মা বিজয় এবং উপনিবেশ স্থাপনের পূর্বে শাসনরত [[কোনবাউং রাজবংশ]] সেখানে দৃৃঢ়সংলগ্ন কেন্দ্রীভূত শাসনব্যবস্থা স্থাপন করতে সক্ষম হয়৷ রাজা মূখ্য কার্যনির্বাহকের ভূমিকা পালন করতেন যার সিদ্ধান্তই সকলক্ষেত্রে অন্তিম ও সর্বজনগ্রাহ্য বলে ধরা হতো৷ তবে তিনি প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক বিষয়ে আদেশ দিতে পারলেও নতুন আইন বলবৎ করতে অপারক ছিলেন৷ দেশটিতে তিন ধরণের আইন কোড চলতো, সেগুলি হলো, "রাজথট", "দম্মাথট" এবং "হ্লুত্তউ"৷ কেন্দ্রীয় সরকার তিনটি শাখায় বিভক্ত ছিলো যথা; রাজকোষসম্বন্ধীয়, সম্পাদন-শাস্তিমূলক এবং বিচারবিভাগীয়৷ তথ্যপ্রমাণ অনুসারে হ্লুত্তউ আইনের ভারপ্রাপ্ত সর্বেসর্বা ছিলেন রাজা নিজেই এবং রাজার একাধিপত্য দমন করার জন্য যতক্ষণ না কোনো স্থানে বা কোনো বিষয়ে হ্লুত্তউ আইন বলবৎ হচ্ছে ততক্ষণ সেই স্থানের অধিবাসীবৃৃন্দ রাজার হুকুম মানতে বাধ্য নয়৷ দেশটি একাধিক ক্ষুদ্র প্রদেশে বিভক্ত ছিলো যা রাজার হ্লুত্তউ আইনের অধীনে প্রশাসনিক ব্যক্তিত্ব দ্বারা নিয়োগ করা হতো৷ আবার আলাদা আলাদাভাবে গ্রামাঞ্চলগুলিতে রাজা বা ঐ প্রদেশের ভারপ্রাপ্ত ব্যক্তির নির্বাচিত শিরোমণি পরিবারের যোগ্য সদস্য দ্বারা শাসিত হতো৷<ref name="Encyclopædia Britannica">Encyclopædia Britannica</ref>
 
==বর্মায় ব্রিটিশের আগমন==
[[File:Battle of rangoon.jpg|thumb|left|১৮২৪ খ্রিস্টাব্দের মে মাসে [[ইয়াঙ্গুন|রেঙ্গুন]] নৌবন্দরে ব্রিটিশ নৌবাহিনীর প্রবেশ]]
 
[[কোনবাউং রাজবংশ|কোনবাউং রাজবংশের]] শাসকরা [[ব্রিটিশ ভারত|ব্রিটিশ ভারতের]] অধীনস্ত [[চট্টগ্রাম]] নৌবন্দর বেষ্টন করে আসাম রাজ্য পর্যন্ত [[রাখাইন রাজ্য|আরাকান]] রাজ্যের সীমানা প্রসারিত করতে চাইলে বর্মার রাজবংশ ও [[ব্রিটিশ ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি]]র মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে৷ ১৭৮৪ থেকে ১৭৮৫ খ্রিস্টাব্দের মধ্রে বর্মী সেন্যবাহিনীর হাত থেকে [[আরাকান সাম্রাজ্য]] বেদখল হওয়ার পর ১৮২৩ খ্রিস্টাব্দে তারা আবার তা পুণর্দখল করার চেষ্টা করে ও সীমান্ত অতিক্রম করে৷ এটিই ছিলো ১৮২৪ থেকে ১৮২৬ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে ঘটে যাওয়া [[প্রথম ইঙ্গ-বর্মা যুদ্ধ]]র অন্যতম প্রধান কারণ৷ ব্রিটিশরা এসময় [[ইয়াঙ্গুন|রেঙ্গুন]] পর্যন্ত একটি বৃৃহৎ সমুদ্রচালিত অভিযান চালালে ১৮২৪ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে বিনাযুদ্ধে তারা রেঙ্গুন দখল করে৷ [[মান্দালয়|মান্দালয়ের]] নিকট [[আভা]](ইনোয়া)-এর দক্ষিণে অবস্থিত [[দনুব্যু]] অঞ্চলে বর্মী সেনাধ্যক্ষ [[মহা বন্ধুল]] নিহত হন ও তার সেনাবাহিনী নিকেষ করা হয়৷ বর্মা আসাম সহ উত্তর দিকের প্রদেশগুলি ব্রিটিশদের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হয়৷<ref name="World Book Encyclopedia">World Book Encyclopedia</ref> ১৮২৬ খ্রিস্টাব্দে [[ইয়াণ্ডাবু সন্ধি]]র মাধ্যমে ব্রিটিশ ভারতে দীর্ঘতর, বিপুল অর্থক্ষয়ী এবং অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রথম ইঙ্গ-বর্মা যুদ্ধের পরিসমাপ্তি ঘটে৷ সরকারী হিসাবে পনেরো হাজার ইউরোপীয় এবং ভারতীয় সৈন্য সহ অগণিত বর্মী সৈন্য ও সাধারণের মৃৃত্যু হয় এবং উভয়পক্ষেরই বহু মানুষ আহত হয়৷<ref>{{cite book | title=The Making of Modern Burma | pages=18| author=Thant Myint-U|year=2001|publisher=Cambridge University Press |isbn=0-521-79914-7}}</ref> হিসাব মতো ব্রিটিশ সৈন্যবাহিনীর সেনাছাউনি বাবদ খরচ হয় ৫ মলিয়ন পাউন্ড এবং সর্বমোট খরচ ১৩ মিলিয়ন পাউন্ড, যার বর্তমান মূল্য ২০০৬ খ্রিস্টাব্দের বাজারদরে প্রায় ১৮.৫ এবং ৪৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার৷<ref name=rlf-113>{{cite book | title=The River of Lost Footsteps—Histories of Burma | pages=113, 125–127| author=Thant Myint-U|year=2006|publisher=Farrar, Straus and Giroux |isbn=978-0-374-16342-6}}</ref> এই বিপুল পরিমান অর্থক্ষয় ১৮৩৩ খ্রিস্টাব্দ অবধি ব্রিটিশ ভারতে অর্থনীতিকে চরম সঙ্কটাপন্ন করে৷<ref name=webster>{{cite book | title=Gentlemen Capitalists: British Imperialism in South East Asia, 1770–1890 | first=Anthony|last= Webster | publisher=I.B.Tauris | year=1998 | pages=142–145 | isbn=978-1-86064-171-8}}</ref>
 
==তথ্যসূত্র==