"প্রফুল্ল চন্দ্র রায়" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
[[১৮৭৪]] খ্রিস্টাব্দে প্রফুল্লচন্দ্র কলকাতায় ফিরে যেয়ে অ্যালবার্ট স্কুলে ভর্তি হন। এই স্কুল থেকেই [[১৮৭৮]] খ্রিস্টাব্দে তিনি সকুল ফাইনার তথা [[প্রবেশিকা পরীক্ষায়]] প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। এরপর তিনি [[ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর]] কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত '''মেট্রোপলিটন কলেজে''' (বর্তমান [[বিদ্যাসাগর কলেজ]]) ভর্তি হন। [[১৮৮১]] খ্রিস্টাব্দে সেখান থেকে কলেজ ফাইনাল তথা ''এফ এ'' পরীক্ষায় (ইন্টারমিডিয়েট বা এইচএসসি) ''দ্বিতীয় বিভাগে'' পাশ করে তিনি [[প্রেসিডেন্সী কলেজ|প্রেসিডেন্সী কলেজে]] বি এ ক্লাসে ভর্তি হন। প্রেসিডেন্সী থেকে [[গিলক্রিস্ট বৃত্তি]] নিয়ে তিনি [[স্কটল্যান্ড|স্কটল্যান্ডের]] [[এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়|এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ে]] পড়াশোনা করতে যান। এই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি বি এসসি পাশ করেন
 
[[File:Young P.C. Ray.jpg|thumb|যুবক প্রফুল্ল চন্দ্র রায়]]
পরবর্তীকালে এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়েই ডি এসসি ডিগ্রী লাভের জন্য গবেষণা শুরু করেন। তাঁর সেই গবেষণার বিষয় ছিল ''কপার ম্যাগনেসিয়াম শ্রেণীর সম্মিলিত সংযুক্তি পর্যবেক্ষণ'' (Conjugated Sulphates of Copper Magnesium Group: A Study of Isomorphous Mixtures and Molecular Combination)। দুই বছরের কঠোর সাধনায় তিনি এই গবেষণা সমাপ্ত করেন এবং পিএইচ ডি ও ডি এসসি ডিগ্রী লাভ করেন। এমনকি তার এই গবেষণাপত্রটি শ্রেষ্ঠ মনোনীত হওয়ায় তাকে [[হোপ প্রাইজ|হোপ প্রাইজে]] ভূষিত করা হয়। [[এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়|এডিনবরা বিশ্ববিদ্যালয়ে]] অধ্যয়নকালেই [[১৮৮৫]] খ্রিস্টাব্দে ''সিপাহী বিদ্রোহের আগে ও পরে'' (India Before and After the Sepoy Mutiny) এবং ভারতবিষয়ক বিভিন্ন নিবন্ধ লিখে ভারতবর্ষ এবং [[ইংল্যান্ড|ইংল্যান্ডে]] সাড়া ফেরে দেন।
 
৮৪৩টি

সম্পাদনা