ঈশ্বরগঞ্জ কলেজ: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন
(এম এ রেহমান তুষার শুভ্র ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ কে ঈশ্বরগঞ্জ সরকারি কলেজ শিরোনামে স্থানান্তর করেছেন: নতুন সরকারিকরণ ও নাম পরিবর্তন )
(সংশোধন)
| native_name =
| image =
| imagesize = 150px
| caption = ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ
| location = ঈশ্বরগঞ্জ, ময়মনসিংহ
| streetaddress = [[ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা]]
| region = ময়মনসিংহ
| city = [[ময়মনসিংহ]]
| staff = ১০০
| school code =
| gendergrades = ছেলে এবং মেয়ে
| grades =
| age range = অনির্দিষ্ট
| medium = বাংলা
| campus = [[মফস্বল শহর|শহুরে]]
| athletics =
| nick name =
| motto = ''শিক্ষাই আলো''
| accreditation =
| mascot =
| sports = [[এসোসিয়েশন ফুটবল|ফুটবল]], [[ক্রিকেট]], [[বাস্কেটবল]], [[ভলিবল]], [[হকি]], [[ব্যাডমিন্টন]]
| team_name =
| opened =
| established = ১৯৬৮ খ্রিষ্টাব্দ
| students = ২,০০০+
| alumni =
| enrollment =
| communities =
| website = [http://www.idc.edu.bd/|title="ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ"]
| nickname =
| nickname = ঈশ্বরগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ
| type = [[নতুন জাতীয়করণকৃত সরকারি কলেজ]]
| affiliation =
}}
 
'''ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ''' বাংলাদেশের [[ময়মনসিংহ]] জেলায় অবস্থিত একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে অর্ধশতক বছরে অবর্তীণ হচ্ছে স্নাতক সম্মান পাঠদানে।
ঈশ্বরগঞ্জবাসীর আশা আকাঙ্খা ও অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল আজকের ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রী কলেজ। হাটি হাঁটি পা পা করে যা বর্তমানে অর্ধশতক বছরে অবর্তীণ হচ্ছে স্নাতক সম্মান পাঠদানে।
 
==অবস্থান==
ময়মনসিংহ জেলার [[ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা]]য় সর্ব প্রথম ১৯৬৮ সালে ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয় পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের শাখা কাঁচামাটিয়া নদীর তীর ঘেষে। যা অদ্যাবধি স্বমহিমায় দাঁড়িয়ে আছে।
এর ঠিক অপর পাশে রয়েছে [[ঈশ্বরগঞ্জ আইডিয়াল কলেজ]]। তাই জায়গাটি কলেজ রোড নামেই পরিচিত।
 
==ইতিহাস==
ময়মনসিংহ জেলার [[ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা]]য় সর্ব প্রথম ১৯৬৮ সালে ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠিত হয় পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের শাখা কাঁচামাটিয়া নদীর তীর ঘেষে। যা অদ্যাবধি স্বমহিমায় দাঁড়িয়ে আছে। এর ঠিক অপর পাশে রয়েছে [[ঈশ্বরগঞ্জ আইডিয়াল কলেজ]]। তাই জায়গাটি কলেজ রোড নামেই পরিচিত।
 
==শিক্ষার্থী==
 
==সফলতা ও অর্জন==
 
==অনুষদ ও বিভাগ==
**বি.এস.সি
**বি.এ
 
==পাঠদান পদ্ধতি==
==নিয়মাবলী ও আচরণবিধি==
*ভর্তির পর কলেজে প্রবেশের প্রথম দিন থেকে কলেজ নির্ধারিত পোশাক পরে আসতে হবে।
*কলেজ থেকে আইডি কার্ড সংগ্রহ করে তা নিয়মিত পরিধান করে আসতে হবে।
* ক্লাসে ৭৫% উপস্থিতি ও সেমিস্টার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হলে একাদশ শ্রেণির ছাত্রছাত্রী দ্বাদশ শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হতে পারবেনা।
* ক্লাসে ৭৫% উপস্থিতি এবং নির্বাচনী পরীক্ষায় উত্তীর্ণ না হলে বোর্ড পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে পারবে না।
* উপবৃত্তি প্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীদের উপস্থিতি ৭৫% না হলে উপবৃত্তি বাতিল হয়ে যাবে।
* একাদশ শ্রেণিতে উত্তীর্ণ ছাত্রছাত্রীদের দ্বাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে হবে।
* প্রতি ক্লাসে অনুপস্থিতির জন্য ৫ টাকা হারে জরিমানা পরবর্তী মাসের বেতনের সঙ্গে আদায় করা হবে।
* প্রতি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে চলমান মাসের বেতন পরিশোধ করতে হবে। নির্ধারিত তারিখের মধ্যে বেতন পরিশোধ না করলে মাস প্রতি ৫ টাকা হারে জরিমানা আদায় করা হবে।
 
==গ্রন্থাগার==
কলেজটির একটি সমৃদ্ধ পাঠাগার রয়েছে যেখানে বিভিন্ন বিষয়াবলীর উপর লেখকের বইসহ নানাবিধ প্রকাশনা সরবরাহ করা হয়ে থাকে। প্রকাশনাগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটির নিজস্বভাবে প্রকাশিত ম্যাগাজিন সহ বহিঃর্বিশ্বের বিভিন্ন প্রকাশনা। প্রতিষ্ঠানটিতে আধুনিক সরঞ্জামমন্ডিত একটি সুসজ্জিত কম্পিউটার ল্যাব রয়েছে।
 
==গবেষণাগার==
 
==চিকিৎসা ব্যবস্থা==
==ছাত্রাবাস ==
==সহশিক্ষা কার্যক্রম==
লেখাপড়ার পাশাপাশি ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে শিক্ষা-সহায়ক কার্যক্রমকেও বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়। এ কারণে প্রতিবছর উচ্চ মাধ্যমিক পরিক্ষায় ভালো ফল অর্জনের পাশাপাশি দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় এ কলেজের ছাত্ররা বরাবরই ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করে আসছে
*ছাত্র: কালো প্যান্ট, সাদা শার্ট, সাদা সু, কালো বেল্ট
*ছাত্রী: সাদা সালোয়ার কামিজ ও স্কার্ফ, নেভি ব্লু ওড়না ও বেল্ট বা সাদা বোরকা
 
==গ্যালারী ==
==আরো দেখুন==
 
==তথ্যসূত্র==