"টারডিগ্রেড" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(→‎top: বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্য থাকল এর পরিচালককে জানান।)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
{{taxobox
{{Infobox animal
| name = টারডিগ্রেড
|name=Tardigrade
|kingdom regnum = [[Animalia]]
|image=Waterbear.jpg
| phylum = Tardigrada
|kingdom=Animalia
| phylum_authority = [[Lazzaro Spallanzani|Spallanzani]], ১৭৭৭
|phylum=Tardigrades
| fossil_range = {{fossil range|earliest=531|Cambrian|Recent|ref=<ref name=Budd2001>{{cite journal |doi=10.1078/0044-5231-00034 |title=Tardigrades as 'Stem-Group Arthropods': The Evidence from the Cambrian Fauna |journal=Zoologischer Anzeiger |volume=240 |issue=3–4 |pages=265–79 |year=2001 |last1=Budd |first1=Graham E }}</ref>}}
|=
| image = SEM image of Milnesium tardigradum in active state - journal.pone.0045682.g001-2.png
|=
|=
|=
|=
|
|=
|=
|=
|website={{URL|http://www.tardigrada.net/newsletter/tardigrades.htm}}
}}
 
টারডিগ্রেড(English: Tardigrade) (Latin: Tardigrada) হচ্ছে একটি অতিক্ষুদ্র ভাইরাস।এটিপ্রাণী। এটি "পানি ভালুক" বা "Water Bear" নামেও পরিচিত।এই জীব পৃথিবীর অতি প্রাচীন জীবগুলোর একটি।এটি এতই ছোট যে একে শুধু মাইক্রোস্কোপ দিয়েই দেখা যায়।এটি সর্বপ্রথম আবিষ্কার করেন জার্মান বিজ্ঞানী Johann August Ephraim Goeze , 1773 সালে এবং তিন বছর পর এর ল্যাটিন নাম (Tardigrada:অর্থ- ধীর পদক্ষেপকারী) দেন ইতালীয় বিজ্ঞানী Lazzaro Spallanzani.এই আট পা ওয়ালা প্রানী যা পানিতে ভাসমান অবস্থায় থাকে , তা চরমভাবে টিকে থাকা একটি প্রানী।এটি ৩০ বছর পর্যন্ত বিনা খাদ্য গ্রহনে বেঁচে থাকতে পারে।তাছাড়াও এটি শূন্য ডিগ্রি থেকে হাজার ডিগ্রি তাপমাত্রায় বেঁচে থাকে।এমনকি এটি মহাশূন্যেও বেঁচে থাকতে পারে।গবেষণার মাধ্যমে দেখা গেছে, যদি এই প্রাণী খাদ্য না পায় তবে এর শারীরিক প্রক্রিয়া অনেকটাই স্থির হয়ে যায় যা একে বহুবছর বিনা আহারে বাঁচিয়ে রাখে।
 
== তথ্যসূত্র: ==
Tardigrades - http://en.wikipedia.org/wiki/Tardigrade
{{সূত্র তালিকা}}
 
== বহিঃসংযোগ ==
{{উইকিপ্রজাতি|Tardigrada}}
{{কমন্স বিষয়শ্রেণী|Tardigrada}}
৪,৮৩৫টি

সম্পাদনা