"শতক (ক্রিকেট)" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
(আফতাবুজ্জামান সেঞ্চুরি (ক্রিকেট) কে শতক (ক্রিকেট) শিরোনামে স্থানান্তর করেছেন: প্রচলিত বাংলা পরিভাষা ব্যবহার)
[[চিত্র:Master Blaster at work.jpg|right|thumb|250px|টেস্ট ক্রিকেট ও একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বাধিক রান ও সর্বাধিক সেঞ্চুরিরশতকের বিশ্বরেকর্ড ধারণ করে আছেন ভারতের [[শচীন তেন্ডুলকর]]।]]
'''শতক''' বা '''শতরান''' ({{lang-en|Century}})বা '''সেঞ্চুরি''' বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় খেলা [[ক্রিকেট|ক্রিকেটের]] অন্যতম অনুষঙ্গ বিষয় ও [[ক্রিকেটের পরিভাষা|ক্রিকেটীয় পরিভাষা]]। ব্যাটিংকারী দলের কোন [[ব্যাটিং (ক্রিকেট)|ব্যাটসম্যান]] কর্তৃক একটি ইনিংসে ১০০ বা তদূর্ধ্ব [[রান (ক্রিকেট)|রান]] সংগ্রহকে সেঞ্চুরিশতক হিসেবে গণ্য করা হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|প্রথমাংশ=Martin|শেষাংশ=Williamson|শিরোনাম=A glossary of cricket terms|ইউআরএল=http://www.espncricinfo.com/ci/content/story/239756.html#sundries|প্রকাশক=[[ESPNcricinfo]]|সংগ্রহের-তারিখ=20 December 2014}} Refer to entry for ton.</ref> এর ফলে ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরিশতক লাভ করেছেন বলে স্কোরকার্ডে তুলে ধরা হয়। এছাড়াও এ পরিভাষাটি দুইজন ব্যাটসম্যানের অংশীদারিত্বে গঠিত জুটিতে প্রয়োগ করা হয় যা ‘সেঞ্চুরি‘শতক পার্টনারশিপ’ বা ‘শতরানের জুটি’ হিসেবে পরিচিত। সেঞ্চুরিশতক একজন ব্যাটসম্যানের পরম আরাধ্য বিষয় ও গুরুত্বপূর্ণ পদচারণা হিসেবে স্বীকৃত। সাধারণতঃ একজন [[খেলোয়াড়|খেলোয়াড়ের]] ব্যক্তিগত পরিসংখ্যানে সংখ্যাগতভাবে তুলে ধরা হয়। একজন ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরিকেশতককে একজন [[বোলিং (ক্রিকেট)|বোলার]] কর্তৃক এক ইনিংসে সংগৃহীত ৫ [[উইকেট|উইকেটের]] সমমান হিসেবে খসড়াভাবে মনে করা হয়।
 
বিশ্ব ক্রিকেটের ইতিহাসে সর্বাপেক্ষা সফল সাবেক [[ভারত জাতীয় ক্রিকেট দল|ভারতীয়]] ব্যাটসম্যান [[শচীন তেন্ডুলকর]] [[টেস্ট ক্রিকেট|টেস্ট ক্রিকেটে]] সবচেয়ে বেশী [[আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শচীন তেন্ডুলকরের শতরানের তালিকা#টেস্ট ক্রিকেটে শতরানের তালিকা|৫১টি]] সেঞ্চুরিশতক করেছেন।<ref>[http://stats.cricinfo.com/ci/content/records/227046.html Test centuries]</ref>
 
== অর্ধ-শতক ==
২০০, ৩০০, ৪০০ কিংবা ৫০০ রানও সেঞ্চুরিশতক হিসেবে গণ্য যদিও এ রানগুলো যথাক্রমে '''ডাবল সেঞ্চুরিদ্বি-শতক''' (দ্বি-শতক = ২০০-২৯৯), '''ট্রিপল সেঞ্চুরিত্রি-শতক''' (ত্রি-শতক = ৩০০-৩৯৯), '''কোয়াড্রপল সেঞ্চুরিশতক''' (৪০০-৪৯৯) নামে পরিচিত। যদি কোন ব্যাটসম্যান ৫০-৯৯ রান সংগ্রহ করেন, তাহলে তিনি অর্ধ-শতরান বা '''অর্ধ-শতক''' বা '''হাফ-সেঞ্চুরিশতক''' করেছেন। এভাবে ৯৯ রান থেকে যদি ব্যাটসম্যান ১০০ রান করেন, তাহলেই তা পরিসংখ্যানে শতরান হিসেবে গণ্য করা হয়।<ref>"[http://www.smh.com.au/news/SPORT/England-gives-it-to-Aussies-at-Ashes/2006/12/02/1164777827419.html England gives it to Aussies at Ashes]", ''Sydney Morning Herald'', Dec. 2, 2006.</ref>
 
== ইতিহাস ==
সেঞ্চুরিশতক পরিভাষাটি ঊনবিংশ শতকের শেষার্ধ্ব পর্যন্ত [[আন্তর্জাতিক ক্রিকেট|বিশ্ব ক্রিকেট]] অঙ্গনে অপ্রচলিত ছিল। এর প্রধান কারণ ছিল পিচ যা কোন রকমে প্রস্তুত করা হতো। প্রথমদিককার সেঞ্চুরিশতক নিয়ে বিভ্রান্তি থাকলেও ৩১ আগস্ট, ১৭৬৯ তারিখে একটি গুরুত্বহীন খেলায় [[John Minshull|জন মিনশাল]] ডিউক অব ডরসেট’স একাদশের পক্ষে রোথামের বিরুদ্ধে সেভেনওকস ভাইনে ১০৭ রানের এক সেঞ্চুরিশতক করেছিলেন বলে নির্দিষ্টভাবে তুলে ধরা হয়েছে।<ref>[[G. B. Buckley]], ''Fresh Light on 18th Century Cricket'', Cotterell, 1935.</ref> জুলাই, ১৭৭৫ সালে ব্রডহাফপেনি ডাউনে অনুষ্ঠিত বড় ধরণের ক্রিকেট খেলায় প্রথম সুনির্দিষ্টভাবে সেঞ্চুরিশতক করেন [[John Small (cricketer)|জন স্মল]] নামীয় এক ইংরেজ ক্রিকেটার। তিনি হ্যাম্পশায়ারের হয়ে সারে দলের বিপক্ষে ১৩৬ রান করেন।<ref>[[Arthur Haygarth]], ''Scores & Biographies'', Volume 1 (1744-1826), Lillywhite, 1862.</ref> শুরুর দিকের চিহ্নিত সেঞ্চুরিশতক পার্টনারশীপের রেকর্ড করা হয়েছে দুইজন [[Hambledon Club|হ্যাম্বলডন ক্লাবের]] ব্যাটসম্যানের মাধ্যমে।<ref name=CS>[[H. T. Waghorn]], ''[http://books.google.com/books?id=TNkNAAAAQAAJ&printsec=frontcover#v=onepage&q&f=false Cricket Scores, Notes, etc. (1730-1773)]'', Blackwood, 1899.</ref> ক্যাটারহ্যামের বিপক্ষে এ জুটি প্রথম উইকেটে ১৯২ রান সংগ্রহ করেন। বিশ্বাস করা হয় যে, ব্যাটসম্যানদ্বয় হচ্ছেন - [[Tom Sueter|টম সুটার]] এবং [[Edward "Curry" Aburrow|এডওয়ার্ড কারি অ্যাবারো]]।<ref>[[Ashley Mote]], ''The Glory Days of Cricket'', Robson, 1997.</ref> এছাড়াও তাদের মধ্যে কমপক্ষে একজন সেঞ্চুরিশতক করেছিলেন; কিন্তু এ সংক্রান্ত কোন প্রামাণ্য দলিল উপস্থাপিত হয়নি।
 
== টেস্ট ক্রিকেট ==
{{মূল|টেস্ট ক্রিকেট রেকর্ডের তালিকা}}
<!-- [[চিত্র:CharlesBannerman.jpg|left|thumb|টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম বল মোকাবেলা ও প্রথম সেঞ্চুরিশতক করার বিরল কৃতিত্ব অর্জন করেন [[চার্লস ব্যানারম্যান]]]] -->
টেস্ট ক্রিকেটে প্রথমবারের মতো সেঞ্চুরিরশতকের সৌভাগ্য অর্জন করেন [[অস্ট্রেলিয়া জাতীয় ক্রিকেট দল|অস্ট্রেলিয়ার]] ডানহাতি ব্যাটসম্যান [[চার্লস ব্যানারম্যান]]। ১৫-১৯ মার্চ, ১৮৭৭ সালে [[মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড|মেলবোর্নে]] অনুষ্ঠিত অস্ট্রেলিয়া বনাম [[ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল|ইংল্যান্ডের]] মধ্যকার বিশ্বের ১ম টেস্টে ১৬৫ রানে অবসর নিয়েছিলেন তিনি।<ref>[http://aus.cricinfo.com/db/ARCHIVE/1870S/1876-77/ENG_IN_AUS/ENG_AUS_T1_15-19MAR1877.html Test #1]</ref> ১৮৮০ সালে [[Kennington Oval|কেনিংটন ওভালে]] প্রথমবারের মতো শতরানের জুটি গড়েন ইংল্যান্ডের [[ডব্লিউ. জি. গ্রেস]] - [[এ. পি. লুকাস]]। ৬-৮ সেপ্টেম্বর, ১৮৮০ সালে তারা এ শতরানের জুটিটি গড়েন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে প্রথম ও একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে এক ইনিংসে অপরাজিত ৪০০ রান করেন [[ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল|ওয়েস্ট ইন্ডিজের]] ব্যাটিং বিস্ময় [[ব্রায়ান লারা]]। ভারতের সাবেক ব্যাটসম্যান শচীন তেন্ডুলকর ৫১টি সেঞ্চুরিশতক করে [[বিশ্বরেকর্ড|বিশ্বরেকর্ডের]] অধিকার অর্জন করেছেন।
 
== একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ==
{{মূল|একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের রেকর্ড তালিকা}}
 
[[একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট]] বা ওডিআইয়ে প্রথম সেঞ্চুরিটিশতকটি করেন ইংল্যান্ডের [[ডেনিস অ্যামিস]]।<ref>[http://www.cricinfo.com/england/engine/match/64944.html 1st ODI: England v Australia, Aug. 24, 1972], ESPN website.</ref> ২৪ আগস্ট, ১৯৭২ তারিখে ওল্ডট্রাফোর্ডে অনুষ্ঠিত ইংল্যান্ড বনাম অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার খেলায় তিনি ১০৩ রান করে এ কীর্তিগাঁথা রচনা করেন। কিন্তু এ খেলাটি রেকর্ডে দ্বিতীয় ওডিআই হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে। সবচেয়ে বেশী ওডিআই সেঞ্চুরিশতক করেন ভারতের ব্যাটিং [[প্রতিভা]] শচীন তেন্ডুলকর। ৪৯টি সেঞ্চুরিশতক করে তিনি শীর্ষস্থানে রয়েছেন।
 
== প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট ==
{{মূল|প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট রেকর্ড তালিকা}}
 
[[ডব্লিউ. জি. গ্রেস]] হচ্ছেন প্রথম ক্রিকেটার যিনি [[প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট|প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে]] শততম সেঞ্চুরিশতক করেছেন। এ কৃতিত্ব অর্জন করেন ১৮৯৫ সালে। তাঁর সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে সর্বমোট ১২৪টি সেঞ্চুরিশতক রয়েছে। পরবর্তীতে [[জ্যাক হবস]] এ রেকর্ড অতিক্রম করে ১৯৯টি প্রথম-শ্রেণীর সেঞ্চুরিশতক থেমে যান যা অদ্যাবধি অক্ষত রয়েছে।<ref>[http://stats.cricinfo.com/ci/content/records/251072.html Most Hundreds in a Career], ESPN website.</ref><ref>See [[Variations in first-class cricket statistics]].</ref>
 
== দ্রুততম সেঞ্চুরিশতক ==
২৩ এপ্রিল, ২০১৩ সালে [[ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল|ওয়েস্ট ইন্ডিজের]] মারকুটে ব্যাটসম্যান [[ক্রিস গেইল]] [[আন্তর্জাতিক ক্রিকেট|আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের]] ৩টি পদ্ধতির (টেস্ট, একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট এবং টুয়েন্টি২০) যে-কোনটিতে দ্রুততম সেঞ্চুরিশতক করেন। [[ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ|ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের]] টি২০ ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়ে পুনে ওয়ারিয়র্সের বিপক্ষে তিনি মাত্র ৩০ [[বল (ক্রিকেট)|বলে]] এ কীর্তিগাঁথা রচনা করেন।<ref>[http://archive.prothom-alo.com/detail/date/2013-04-23/news/347094 ‘অতিমানবীয়’ গেইল, প্রথম আলো, ২৩ এপ্রিল ২০১৩]</ref> পূর্বতন রেকর্ডটি ছিল অস্ট্রেলিয়ার [[অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস|অ্যান্ড্রু সাইমন্ডসের]] ৩৪ বলে। এছাড়াও তিনি [[টুয়েন্টি২০]] ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশী ১১টি সেঞ্চুরিশতক করেন।
 
একদিনের ক্রিকেটের ইতিহাসে দ্রুততম সেঞ্চুরিরশতকের [[বিশ্বরেকর্ড]] গড়েন [[এবি ডি ভিলিয়ার্স]] ২০১৫ সালে ১৮ জানুয়ারি তিনি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩১ বলে সেঞ্চুরিশতক করেন এবং [[কোরে অ্যান্ডারসন]] এর করা ৩৬ বলে সেঞ্চুরিরশতকের রেকর্ড ভেঙে দেন।
 
টেস্ট ক্রিকেটে দ্রুততম সেঞ্চুরিশতক করেন যৌথভাবে [[ভিভ রিচার্ডস]] ১৯৮৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ও [[মিসবাহ উল হক]] ২০১৪ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে| দুইজনই ৫৬ বলে তাদের শতক পুরণ করেন।
 
== তথ্যসূত্র ==
{{সূত্র তালিকা|2}}
 
== আরও দেখুন ==
{{প্রবেশদ্বার|ক্রিকেট}}
* [[শচীন তেন্ডুলকর]]
* [[ব্রায়ান লারা]]
* [[মুশফিকুর রহিম]]
* [[শহীদ আফ্রিদি]]
* [[উইকেট]]
* [[টেস্ট ক্রিকেট অভিষেকে সেঞ্চুরিরশতরান করার তালিকা]]
 
* [[২০১৩-১৪ অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের ভারত সফর]]
== তথ্যসূত্র ==
{{সূত্র তালিকা|2}}
 
{{আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সেঞ্চুরিশতক}}
{{ক্রিকেট পরিসংখ্যানসমূহ}}
{{Cricket centurions}}