"পাখি পরিযান" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

1টি উৎস উদ্ধার করা হল ও 0টি অকার্যকর হিসেবে চিহ্নিত করা হল। #IABot (v2.0beta10ehf1)
(→‎পরিযানের কারণ: বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
(1টি উৎস উদ্ধার করা হল ও 0টি অকার্যকর হিসেবে চিহ্নিত করা হল। #IABot (v2.0beta10ehf1))
'''পাখি পরিযান''' বলতে নির্দিষ্ট প্রজাতির কিছু পাখির প্রতি বছর বা কয়েক বছর পর পর একটি নির্দিষ্ট ঋতুতে বা সময়ে কম করে দু’টি অঞ্চলের মধ্যে আসা-যাওয়াকেই বোঝায়। জীবজন্তুর ক্ষেত্রে '''মাইগ্রেশন''' (''Migration'') এর সঠিক [[পরিভাষা]] হচ্ছে সাংবাৎসরিক পরিযান।<ref name="আলী রেজা">''বাংলাদেশের পাখি'', রেজা খান, বাংলা একাডেমী, ঢাকা (২০০৮), পৃ. ২৩।</ref> যে সব প্রজাতির পাখি পরিযানে অংশ নেয়, তাদেরকে '''পরিযায়ী পাখি''' বলে। এ পাখিরা প্রায় প্রতিবছর পৃথিবীর কোন এক বা একাধিক দেশ বা অঞ্চল থেকে বিশ্বের অন্য কোন অঞ্চলে চলে যায় কোন একটি বিশেষ ঋতুতে। সে ঋতু শেষে সেগুলো আবার ফিরে যায় যেখান থেকে এসেছিল সেখানে। এমন আসা যাওয়া কখনো এক বছরে সীমিত থাকে না। এ ঘটনা ঘটতে থাকে প্রতি বছর এবং কমবেশি একই সময়ে।
 
কিছু প্রজাতির মাছ, স্তন্যপায়ী প্রাণী এমনকি পোকামাকড়ও ফিবছর পরিযান ঘটায়। তবে পাখির মত এত ব্যাপক আর বিস্তৃতভাবে কেউই পরিযানে অংশ নেয় না। পৃথিবীর প্রায় ১০ হাজার প্রজাতির পাখির মধ্যে ১৮৫৫ প্রজাতিই (প্রায় ১৯%) পরিযায়ী।<ref name="BirdLife's Flyways Programme">[http://www.birdlife.org/flyways/index.html] {{ওয়েব আর্কাইভ|ইউআরএল=https://web.archive.org/web/20130813041733/http://www.birdlife.org/flyways/index.html |তারিখ=১৩ আগস্ট ২০১৩ }}, BirdLife International এ পাখি পরিযান বিষয়ক নিবন্ধ।</ref>
 
== পরিযানের কারণ ==
৬৭,৪৮৫টি

সম্পাদনা