"পিটার মুরেজ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্প্রসারিত রূপ!
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
(সম্প্রসারিত রূপ!)
| source = http://cricketarchive.com/Archive/Players/4/4546/4546.html ক্রিকেটআর্কাইভ.কম
}}
'''পিটার মুরেজ''' ({{lang-en|Peter Moores}}; [[জন্ম]]: [[১৮ ডিসেম্বর]], [[১৯৬২]]) [[Cheshire|চেশায়ারের]] [[Macclesfield|ম্যাকেলসফিল্ডে]] জন্মগ্রহণকারী সাবেক ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটার। ১৯ এপ্রিল, ২০১৪ তারিখ থেকে মে, ২০১৫ সাল পর্যন্ত দ্বিতীয়বারের মতো [[ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল|ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের]] [[কোচ (ক্রীড়া)|কোচের]] দায়িত্ব পালন করেন। মূলতঃ [[উইকেট-রক্ষক]] হিসেবেই মাঠে নেমেছেন তিনি। ডানহাতে ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত মুরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে সাসেক্স, অরেঞ্জ ফ্রি স্টেট এবং ওরচেস্টারশায়ার ক্রিকেট দলে খেলেছেন।
 
== খেলোয়াড়ী জীবন ==
 
== কোচের দায়িত্ব গ্রহণ ==
২০০৩ সালে [[কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপ|কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে]] সাসেক্স দলেই তিনিই সর্বাপেক্ষা সফল হয়েছিলেন। ২০০০-০১ মৌসুমে [[ওয়েস্ট ইন্ডিজ]] সফরে ইংল্যান্ড এ দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেন। এরপর এপ্রিল, ২০০৭ সালে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের কোচের দায়িত্ব পান।<ref>[http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/england/6573813.stm ''England name Moores as new coach''] [[BBC News]] retrieved 18 January 2008</ref> ১৮ জানুয়ারি, ২০০৮ তারিখে ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে জাতীয় দল নির্বাচকমণ্ডলীর অন্যতম সদস্য হিসেবে [[David Graveney|ডেভিড গ্রাভেনির]] স্থলাভিষিক্ত হন। চার সদস্যবিশিষ্ট দল নির্বাচকমণ্ডলীর তালিকায় তাঁর সাথে পিটার মুরেজ, [[জেমস হুইটেকার]] ও [[অ্যাশলে জাইলস]] অন্তর্ভূক্ত ছিলেন।<ref>[http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/england/7196029.stm ''Graveney axed as England selector''] [[BBC News]] retrieved 18 January 2008</ref> কিন্তু ৭ জানুয়ারি, ২০০৯ তারিখে জনরোষে পড়ে তিনি কোচের দায়িত্ব ছেড়ে দিতে বাধ্য হন। পাশাপাশি ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক [[কেভিন পিটারসন|কেভিন পিটারসনও]] অধিনায়কত্ব হারান।<ref name=kpout>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/england/7815038.stm |শিরোনাম=Pietersen out as England captain |প্রকাশক=[[BBC Sport]] |তারিখ=7 January 2009 |সংগ্রহের-তারিখ=2009-01-07}}</ref>
 
১১ ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ তারিখে [[Lancashireল্যাঙ্কাশায়ার Countyকাউন্টি Cricketক্রিকেট Clubক্লাব|ল্যাঙ্কাশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট ক্লাবের]] কোচ হিসেবে মনোনীত হন।<ref name="Moores appointed Lancashire coach">{{সংবাদ উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/counties/lancashire/7882814.stm|শিরোনাম=Moores appointed Lancashire coach|প্রকাশক=[[BBC Sport]]|তারিখ=11 February 2009|সংগ্রহের-তারিখ=2009-02-11}}</ref> এরপর তার পরিচালনায় ল্যাঙ্কাশায়ার দল ২০১১ সালে [[আনুষ্ঠানিক কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপ বিজয়ী দলের তালিকা|কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে শিরোপা]] পায়। এরফলে তিনি ৭৭ বছরের মধ্যে প্রথম কোচ হিসেবে দুইটি পৃথক কাউন্টিকে চ্যাম্পিয়নশীপ শিরোপা লাভে সক্ষমতা দেখান। ২০১২ সালে [[ইংল্যান্ড এবং ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড|ইসিবি]] কর্তৃক সেরা কোচদের সম্মানীয় ফেলোশীপ লাভ করেন।
 
ল্যাঙ্কাশায়ার কোচের সাফল্যে ১৯ এপ্রিল, ২০১৪ তারিখে তাঁকে [[অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার|অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারের]] পরিবর্তে ইংল্যান্ডের প্রধান কোচের দায়িত্ব প্রদান করা হয়। কিন্তু ২০১৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে দলের হতাশাব্যঞ্জক ফলাফলের প্রেক্ষিতে মে, ২০১৫ সালে তাঁকে কোচের দায়িত্ব থেকে অব্যহতি দেয়া হয়। তাঁর পরিবর্তে [[২০১৫ নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের ইংল্যান্ড সফর|সফরকারী]] [[নিউজিল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দল|নিউজিল্যান্ড দলের]] বিপক্ষে দলের খেলা পরিচালনার জন্য সহকারী কোচ [[পল ফারব্রেস|পল ফারব্রেসকে]] সাময়িকভাবে কোচের দায়িত্বভার অর্পণ করা হয়।
 
== বিতর্ক ==
২০০৯ সালের শুরুতে টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিকে ভারতের কাছে সিরিজ হারলে ইসিবি ইংল্যান্ড অধিনায়ক কেভিন পিটারসনকে জরুরী সভায় তলব করে ও দলে মুরেজের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলে।<ref name=cricinfo>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://content-usa.cricinfo.com/england/content/story/384869.html|শিরোনাম=Pietersen wants crisis talks with ECB |প্রকাশক=[[Cricinfo]] |তারিখ=1 January 2009 |সংগ্রহের-তারিখ=2009-01-07}}</ref> পরদিন পিটারসন গণমাধ্যমে জন অসন্তুষ্টির কথা তুলে ধরেন ও শীঘ্রই মুরেজকে কোচের পদ থেকে পদত্যাগে বাধ্য করা হবে বলে জানান।<ref name=cricinfo2>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://content-usa.cricinfo.com/england/content/story/385414.html|শিরোনাম=Moores on the brink after row |প্রকাশক=[[Cricinfo]] |তারিখ=5 January 2009 |সংগ্রহের-তারিখ=2009-01-07}}</ref> দলের প্রশিক্ষণ, সম্ভাব্য ও সাবেক অধিনায়ক [[মাইকেল ভন|মাইকেল ভনকে]] সামনের ওয়েস্ট সফরে অধিনায়ক হিসেবে মনোনয়ন ইত্যাদি বিষয়ে মুরেজ ও পিটারসনের মধ্যে দ্বন্দ্ব লেগেই থাকতো।<ref name=bbc/> ফলশ্রুতিতে ৭ জানুয়ারি, ২০০৯ তারিখে মুরেজকে কোচের দায়িত্ব থেকে ইসিবি অব্যহতিঅব্যাহতি দেয় ও পিটারসন অধিনায়ক থেকে পদত্যাগ করেন।<ref name=bbc>{{সংবাদ উদ্ধৃতি |ইউআরএল=http://news.bbc.co.uk/sport2/hi/cricket/england/7815038.stm |শিরোনাম=England captain Pietersen resigns |প্রকাশক=[[BBC Sport]] |তারিখ=7 January 2009 |সংগ্রহের-তারিখ=2009-01-07}}</ref>
 
== তথ্যসূত্র ==
{{ইংল্যান্ড দল ২০০৭ আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০}}
{{ইংল্যান্ড দল ২০১৫ ক্রিকেট বিশ্বকাপ}}
{{কর্তৃপক্ষ নিয়ন্ত্রণ}}
{{পূর্বনির্ধারিতবাছাই:মুরেজ, পিটার}}
 
[[বিষয়শ্রেণী:১৯৬২-এ জন্ম]]
[[বিষয়শ্রেণী:জীবিত ব্যক্তি]]
[[বিষয়শ্রেণী:ইংরেজ ক্রিকেটার]]
[[বিষয়শ্রেণী:ইংরেজ উইকেট-রক্ষক]]
[[বিষয়শ্রেণী:ওরচেস্টারশায়ারের ক্রিকেটার]]
[[বিষয়শ্রেণী:চেশায়ারের ক্রীড়াব্যক্তিত্ব]]
[[বিষয়শ্রেণী:জীবিত ব্যক্তি]]
[[বিষয়শ্রেণী:ফ্রি স্টেটের ক্রিকেটার]]
[[বিষয়শ্রেণী:ম্যাকলসফিল্ডের ব্যক্তিত্ব]]
৭৭,২৬৯টি

সম্পাদনা