"জিমি ম্যাথুজ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(উদ্ধৃতি টেমপ্লেটের তারিখ সংশোধন)
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
১৯০৬-০৭ থেকে ১৯১৪-১৫ মৌসুম পর্যন্ত ভিক্টোরিয়ার পক্ষে ৬৭টি প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেন। তন্মধ্যে ১৯১২ সালে ইংল্যান্ড সফরেই খেলেছেন ২৮টি।
 
তিনি তাঁর সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে অস্ট্রেলিয়া দলের পক্ষে আটটি টেস্ট খেলায় প্রতিনিধিত্ব করেন। ১৯১১-১২ মৌসুমে নিজ [[জন্মভূমি|জন্মভূমিতে]] ২টি ও [[১৯১২ ত্রি-দেশীয় প্রতিযোগিতা|১৯১২]] সালে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ত্রি-দেশীয় প্রতিযোগিতায় বাদ-বাকী ছয় টেস্ট খেলেন। টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে একমাত্র বোলাররূপে এক টেস্টের উভয় ইনিংসে দুইটি [[টেস্ট ক্রিকেটে হ্যাট্রিকের তালিকা|হ্যাট্রিক]] করার বিরল কীর্তিগাথা রচনা করেন ও ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান। তাঁর এ রেকর্ডটি অদ্যাবধি টিকে রয়েছে স্ব-মহিমায়। পরবর্তীকালে দুই হ্যাট্রিকের সাথে [[হিউ ট্রাম্বল]], [[ওয়াসিম আকরাম]] ও [[স্টুয়ার্ট ব্রড]] নিজেদের নাম যুক্ত করেন।<ref name="sbroad">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=http://www.espncricinfo.com/england-v-sri-lanka-2014/content/story/754001.html|titleশিরোনাম=England v Sri Lanka, 2nd Invetsec Test, Headingley, 1st day, 20 June, 2014, Plunkett and Broad rattle through Sri Lanka|publisherপ্রকাশক=ESPNcricinfo|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=30 June 2014}}</ref>
 
[[ওল্ড ট্রাফোর্ড ক্রিকেট গ্রাউন্ড|ওল্ড ট্রাফোর্ডে]] অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী খেলায় [[দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় ক্রিকেট দল|দক্ষিণ আফ্রিকার]] প্রথম ইনিংসের শেষ তিন উইকেট নিয়ে [[হ্যাট্রিক]] করেন ও দক্ষিণ আফ্রিকাকে [[ফলো-অন|ফলো-অনে]] পাঠান।<ref name="TT1912">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|urlইউআরএল=http://www.espncricinfo.com/ci/engine/match/62387.html|titleশিরোনাম=Triangular Tournament, 1912: Australia v South Africa Test Series −1st Test|publisherপ্রকাশক=ESPNcricinfo|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=4 January 2013}}</ref> একইদিন ২৮ মে, ১৯১২ তারিখে দ্বিতীয় ইনিংসেও তিনি হ্যাট্রিক করেন।<ref name="TT1912"/> উভয় ক্ষেত্রেই তিনি কোন [[ফিল্ডিং (ক্রিকেট)|ফিল্ডার]] কিংবা [[উইকেট-রক্ষক|উইকেট-রক্ষকের]] সহযোগিতা ছাড়াই এ রেকর্ড গড়েন। উভয় হ্যাট্রিকেই দক্ষিণ আফ্রিকান উইকেট-রক্ষক [[টমি ওয়ার্ড]] তাঁর তৃতীয় শিকার হন ও টেস্ট ক্রিকেটের অভিষেকে [[শূন্য রান|কিং পেয়ার]] লাভ করেন।<ref name="Beard">{{বই উদ্ধৃতি |titleশিরোনাম=Ask Bearders |lastশেষাংশ=Frindall |firstপ্রথমাংশ=Bill |authorlinkলেখক-সংযোগ=বিল ফ্রিন্ডল|coauthors= |yearবছর=2009 |publisherপ্রকাশক=BBC Books|locationঅবস্থান= |isbnআইএসবিএন=978-1-84607-880-4 |pageপাতা=108|pagesপাতাসমূহ= |urlইউআরএল= |accessdateসংগ্রহের-তারিখ=11 June 2011}}</ref>
 
ঐ খেলায় তিনি আর কোন উইকেটের সন্ধান পাননি। খেলায় তাঁর বোলিং পরিসংখ্যান ছিল ৬/৫৪। ঐ সিরিজে তিনি আরও ৯ [[উইকেট]] পান। একই দলের বিপক্ষে সিরিজের পঞ্চম খেলায় তিনি ৪/২৯ পেয়েছিলেন।
১,৮২,৩৮১টি

সম্পাদনা