"যৌনসঙ্গম" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

=== প্রজনন ===
{{মূল|যৌন প্রজনন|মানব প্রজনন}}
[[File:Pregnancy chance by day near ovulation.jpg|thumb|ডিম্বধারণের উপর নির্রভশীল রজঃচক্রের দিন-অনুযায়ী নিষেকের সম্ভাবনা।<ref name="DunsonBaird1999">{{cite journal|last1=Dunson|first1=D.B.|last2=Baird|first2=D.D.|last3=Wilcox|first3=A.J.|last4=Weinberg|first4=C.R.|title=Day-specific probabilities of clinical pregnancy based on two studies with imperfect measures of ovulation|journal=Human Reproduction|volume=14|issue=7|year=1999|pages=1835–1839|issn=1460-2350|doi=10.1093/humrep/14.7.1835}}</ref>]]
 
যৌনসঙ্গম সম্ভবত ৩৮.৫ কোটি বছরের পুরোনো, এবং সম্ভবত পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন [[চোয়ালবিশিষ্ট মাছ]] ছিল যৌনমিলনের মাধ্যমে প্রজনন-সম্পন্নকারী প্রাণী। <ref>{{cite web|url = http://www.livescience.com/48400-origin-of-sex-found.html|title = Sex Is 385 Million Years Old, and It Looked Like Square Dancing|date = October 22, 2014|accessdate = October 27, 2014|website = Live Science|publisher = |last = Pappas|first = Stephanie}}</ref> মানব প্রজনন সাধারণত শিশ্ন-জরায়ুজ অনুপ্রবেশের মাধ্যমে ঘটে থাকে। <ref name="Evan Jones">{{cite book|title=Human Reproductive Biology|isbn =0120884658|publisher=[[Academic Press]]|year=2006|pages=604 pages<!-- As the title of the book implies, almost the entire book discusses this matter.-->|accessdate=November 8, 2012|url=https://books.google.com/?id=pfiZfui2XLIC|author1=Richard Evan Jones |author2=Kristin H. López }}</ref> পৃথিবীর সকল প্রাণীই তার [[প্রজনন]] কর্ম সম্পাদন করে। প্রজননের ফল হচ্ছে শারিরিক সুখ এবং বংশ বৃদ্ধি করা। যৌনক্রিয়ার কেন্দ্রীয় অংশ হলো "যৌনসঙ্গম" বা স্ত্রী-অঙ্গে পুরুষাঙ্গের প্রবেশ এবং বীর্যপাত। এই প্রজনন প্রক্রিয়ার ফল স্বরুপ প্রাণী তার বংশ বিস্তার করে থাকে। বিভিন্ন প্রাণী বিভিন্নভাবে তার প্রজনন চালিয়ে থাকে। যেমন মানুষ তার প্রজনন চালায় স্বীয় নারী/পুরুষ দ্বারা। প্রজননের উদ্দেশ্যে সঙ্গম করলে স্ত্রীর যোনীর ভেতর শিশ্ন থাকা অবস্থায়ই পুরুষের বীর্যস্খলন করতে হয়। এতে বীর্যের মধ্যে থাকা [[শুক্রাণু]] স্ত্রীর দেহে ইতিমধ্যে থাকা ডিম্বাণুর সাথে মিলিত হওয়ার সুযোগ পায়। শুক্রাণু ও ডিম্বাণুর মিলনের ([[নিষেক|নিষেকের]]) মাধ্যমে সৃষ্ট জাইগোটই সন্তান উৎপাদনের পথে প্রথম ধাপ। কিছু প্রাণীর ক্ষেত্রে স্ত্রীদেহের ভেতরেই সন্তান বেড়ে ওঠে এবং একসময় তার যোনীপথ দিয়েই সন্তানকে বের করে আনা যায়। তবে মাছের মত প্রাণীদের ক্ষেত্রে স্ত্রী ডিমটি আগেই বের করে দেয় যা ফুটে এক সময় বাচ্চা বের হয়। সকল [[স্তন্যপায়ী]] প্রাণীই যৌনসঙ্গম করে থাকে।<ref>Sexual Intercourse, এনসাইক্লোপিডিয়া ব্রিটানিকা</ref><ref>http://www.askmen.com/dating/vanessa/28_love_secrets.html</ref><ref>http://everydayfeminism.com/2012/11/top-5-questions-about-the-female-orgasm-answered/</ref>
 
১৪,৯০৫টি

সম্পাদনা