বহিঃক্ষরা গ্রন্থি: সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

→‎top: বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(বানান সংশোধন)
(→‎top: বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
| DorlandsID =
}}
'''বহি:ক্ষরা গ্রন্থি''' হচ্ছে সেইসব গ্রন্থি যারা নালীর মাধ্যমে এপিথেলিয়ালের উপরিভাগে পদার্থ উৎপন্ন এবং ক্ষরণ করে।<ref name="wheater">{{বই উদ্ধৃতি|titleশিরোনাম=Wheater's Functional Histology: A Text and Colour Atlas|publisherপ্রকাশক=Elsevier|vauthors=Young B, Woodford P, O'Dowd G |yearবছর=2013|isbnআইএসবিএন=978-0702047473|pageপাতা=95|editionসংস্করণ=6th}}</ref> বহি:ক্ষরা গ্রন্থির উধাহরনের মধ্যে আছে ঘাম, মুখের লালা, স্তন, সেরুমিনাস, লেক্রিমাল, সেবাসিয়াস এবং মিউকাস। বহি:ক্ষরা গ্রন্থি মানুষের দেহের দুই প্রকার গ্রন্থির মধ্যে একটি, অপরটি হচ্ছে অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি যা তাদের পদার্থগুলকে সরাসরি রক্তে ক্ষরণ করে। যকৃত এবং অগ্ন্যাশয় উভয় অন্তঃক্ষরা এবং বহিঃক্ষরা গ্রন্থি; তারা বহি:ক্ষরা গ্রন্থি কারন তারা পিত্ত এবং অগ্ন্যাশয় রস উভয়ই একসারি নালীর মাধ্যমে গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ট্র্যাক্টে ক্ষরণ করে এবং অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি কারন তারা অন্যান্য পদার্থ সরাসরি রক্তে ক্ষরণ করে।
 
==প্রকারভেদ==
১,৯৬,০১৪টি

সম্পাদনা