"ফ্রাঙ্ক হেইস" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(খেলার ধরন - অনুচ্ছেদ সৃষ্টি)
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
{{তথ্যছক ক্রিকেটার
{{Infobox cricketer
| name = ফ্রাঙ্ক হেইস
| image =
| fullname = ফ্রাঙ্ক চার্লস হেইস
| nickname =
| birth_date = {{Birthজন্ম dateতারিখ and ageবয়স|1946|12|6|df=yes}}
| birth_place = [[Preston, Lancashire|প্রেস্টন, ল্যাঙ্কাশায়ার]], [[ইংল্যান্ড]]
| role = [[Batsman (cricket)|ব্যাটসম্যান]]
}}
 
'''ফ্রাঙ্ক চার্লস হেইস''' ({{lang-en|Frank Hayes}}; [[জন্ম]]: [[৬ ডিসেম্বর]], [[১৯৪৬]]) ল্যাঙ্কাশায়ারের প্রেস্টন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা সাবেক ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।<ref name="Cap">{{citeবই bookউদ্ধৃতি |titleশিরোনাম=If The Cap Fits |lastশেষাংশ=Bateman |firstপ্রথমাংশ=Colin |authorlinkলেখক-সংযোগ= |coauthors= |yearবছর=1993 |publisherপ্রকাশক=Tony Williams Publications |locationঅবস্থান= |isbnআইএসবিএন=1-869833-21-X |pageপাতা=85 |pagesপাতাসমূহ= |urlইউআরএল= }}</ref> বর্তমানে তিনি ওকহাম স্কুলে ক্রিকেট পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছেন। ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৬ সময়কালে [[ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল|ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের]] অন্যতম সদস্য ছিলেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর কাউন্টি ক্রিকেটে ল্যাঙ্কাশায়ারের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও ডানহাতে মিডিয়াম বোলিং করতেন '''ফ্রাঙ্ক হেইস'''।
 
== প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ ==
সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে নয়টি টেস্ট ও ছয়টি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণের সুযোগ ঘটে ফ্রাঙ্ক হেইসের।
 
[[টেস্ট ক্রিকেট]] অভিষেকেই অপরাজিত ১০৬ রানের ইনিংস উপহার দেন ক্রিকেট বিশ্বকে। ১৯৭৩ সালে ওভালে সফরকারী [[ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল|ওয়েস্ট ইন্ডিজের]] বিপক্ষে তিন অঙ্কের কোঠা অতিক্রম করেছিলেন। এরফলে ত্রয়োদশ ইংরেজ ব্যাটসম্যান হিসেবে এ বিরল কীর্তিগাঁথা রচনা করেন তিনি।<ref>{{citeওয়েব webউদ্ধৃতি|urlইউআরএল=http://news.bbc.co.uk/sport1/hi/cricket/england/4774428.stm|titleশিরোনাম=Cook comes to the boil|publisherপ্রকাশক=BBC Sport|dateতারিখ=2006-03-04|accessdateসংগ্রহের-তারিখ=2009-10-09}}</ref> পরবর্তীতে তিনি আর বড় ধরনের সংগ্রহের দিকে ধাবিত হতে পারেননি। এরপর তিনি আরও আট টেস্টে অংশগ্রহণ করলেও তিনি আর তেমন তাঁর প্রতিশ্রুতিশীলতার স্বাক্ষর বহন করতে পারেননি। এর সবগুলোই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ছিল ও সর্বোচ্চ ২৯ রান করতে পেরেছিলেন। অন্য ১৬ ইনিংসে মাত্র ১৩৮ তুলতে পেরেছিলেন। দূর্ভাগ্যবশতঃ নয় টেস্টের সবগুলোই ছিল অত্যন্ত শক্তিধর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে।
 
১৯৭৩-৭৪ মৌসুমে ইংরেজ দলের সাথে ওয়েস্ট ইন্ডিজ গমন করেন। ১৯৭৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে লড়াইয়ে অবতীর্ণ হবার জন্য পুণরায় তাঁকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।
মার্জিত, দৃষ্টিনন্দন ব্যাটিংয়ের অধিকারী ফ্রাঙ্ক হেইস শুরুতেই প্রতিশ্রুতিশীলতার স্বাক্ষর রাখতে শুরু করেন। পিছনের পায় ভর রেখে দূর্দান্ত সফলতার পরিচয় দিতেন। ড্রাইভও মারতেন বেশ ভালোভাবে। এছাড়াও স্বাচ্ছন্দ্যে রান তুলতেন।
 
১৯৮৪ সালে [[ক্রিকেট]] খেলা থেকে অবসরগ্রহণ করেন ফ্রাঙ্ক হেইস।
 
== তথ্যসূত্র ==
{{England Squad 1975 Cricket World Cup}}
{{কর্তৃপক্ষ নিয়ন্ত্রণ}}
{{পূর্বনির্ধারিতবাছাই:হেইস, ফ্রাঙ্ক}}
 
{{পূর্বনির্ধারিতবাছাই:হেইস, ফ্রাঙ্ক}}
[[বিষয়শ্রেণী:১৯৪৬-এ জন্ম]]
[[বিষয়শ্রেণী:জীবিত ব্যক্তি]]
১,৬৪,৩৯৫টি

সম্পাদনা