"আলাউদ্দিন খিলজি" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
}}
 
[[আলাউদ্দিন খিলজি|আলা-উদ্দিন-খিলজি]](শাসন কালঃ১২৯৬কালঃ[[১২৯৬]]-[[১৩১৬]])তিনি ছিলেন [[খিলজি রাজবংশ|খিলজি]] বংসের ২য় শক্তিশালী শাসক। যিনি দিল্লিতে[[দিল্লি]]তে বসে ভারতীয় উপমহাদেশে খিলজি শাসন পরিচালনা করেছেণ।তিনিকরেছেন।তিনি চেয়েছিলেন ভারতীয় ইতিহাসেও একজন [[মহান আলেকজান্ডার|আলেকজেন্ডারের]] মতো শক্তিশালী কারো কথা উল্লেখ করা থাকুক।তাইথাকুক। তাই তিনি নিজেকেই ২য় আলেকজেন্ডার (আলেকজেন্ডারে-সানি) হিসেবে পরিণত করার জন্যে চেষ্টা চালিয়ে যান।তাই তিনি নিজের মুদ্রায় এবং জুম্মাহের খুতবার আগের বয়ানে নিজের কৃতিত্ব বর্ণনার আদেশ দেন।
 
আলাউদ্দিন খিলজি ছিলেন খিলজি বংশের প্রতিষ্ঠাতা [[জালালউদ্দিন খিলজি|জালালুদ্দিন]] খিলজির ভাতিজা এবং জামাতা। [[বীরভূম জেলা|বীরভূমদেরকে]] পরাজিত করে জালালুদ্দিন খিলজি যখন [[দিল্লি]] দখল করে নেন। তখন আলাউদ্দিন খিলজিকে আমির-ই-তুজুখ বা উদযাপন মন্ত্রী পদ দেওয়া হয়।১২৯১হয়। ১২৯১ সালে জালালুদ্দিন খিলজি তার ভাতিজা আলাউদ্দিন খিলজির হাতে কারা্(কানপুরের নিকটবর্তী এক এলাকা)নামক অঞ্চলের শাসনভার তুলে দেন।১২৯৬দেন। ১২৯৬ সালে আলাউদ্দিন খিলজি বসিলা অবরোধ করে জালালুদ্দিন খিলজির কাছে থেকে আবাধ([[উত্তরপ্রদেশ|উত্তর-প্রদেশ]]) দখল করে সেটা শাসন করা শুরু করেন।১২৯৬করেন। ১২৯৬ সালে দেভাগিরি অবরোধ করেন এবং জালালুদ্দিনের বিপুল পরিমানের সম্পদ দখল করে নেন।জালালুদ্দিন খিলজিকে হত্যা করে, তিনি দিল্লিতে নিজের শাসন প্রতিষ্ঠা করেন এবং পরবর্তীতে জালালুদ্দিনের ছেলের কাছ থেকে [[মুলতান]] দখল করে নেন।
 
অল্পকিছুদিনের মধ্যেই আলাউদ্দিন খিলজি দক্ষভাবে বেশ কিছু মঙ্গোলীয় অঞ্চলকে নিজের ভারতীয় সাম্রজ্যের মধ্যে অন্তর্গত করেন। তার কত গুলো সফল অভিযানের মাঝে বিখ্যেত অভিযান গুলো হলঃ (1297–1298১২৯৭–১২৯৮)জারান-মাঞ্জুর(বর্তমান [[পাঞ্জাব, ভারত|পাঞ্জাব]] এর কিছু এলাকা নিয়ে বিস্তৃত ছিল),শিবিস্থান(বিভক্ত [[পাকিস্তান|পাকিস্থান]])(Sivistanশিবিস্থান-1298১২৯৮),Kiliকিলি (প্রাচীন দিল্লির একটি এলাকা)(1299১২৯৯), দেলি [[দিল্লি|Delhi]](1303১৩০৩),এবং [[উত্তরপ্রদেশ|উত্তর-প্রদেশ]] Amrohaআম্রহা (1305১৩০৫). ,১৩০৬ সালে তার সৈন্যগণ মঙ্গোলীয়দের কাছ থেকে একটি সফল অভিযান শেষে রভি নদীর উপতক্যা দখল করে নেয় এবং সেই বছরই তারা মঙ্গলীয়দের বিশেষ আবাসস্থান বর্তমানের আফগানিস্থান দখল করে নেয়।যে সকল সেনাপতি মঙ্গোলীয়দের বিপক্ষে দক্ষ হাতে সফল অভিযান পরিচালনা করেছিলেন তারা হলেন সেনা-অধ্যক্ষ জাফর খান(Zafarজাফর Khanখান),সেনাপতি উলুগ খান(Ulughউলুগ খান Khan) এবং একসময়ের গোলাম কিন্তু পরবর্তী সময়ের জেনারেল মালিক কাফুর(Malikমালিক কাফুর Kafur)।
 
অবরোধ করে এবং বিদ্রোহ(raided in 1299 and annexed in 1304) ছড়িয়ে [[গুজরাটের জেলাসমূহের তালিকা|গুজরাটের]] বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ এলাকাও আলাউদ্দদিন দখল করে নিজের দখলে নিয়েছিলেন এগুলো হলঃ রাথাম্বোর Ranthambore(1301১৩০১),চিতর Chittor(1303১৩০৩),মাল্বা Malwa(1305১৩০৫),সিবানা Siwana(1308১৩০৮),এবং জালোর Jalore(1311১৩১১).কতগুলো হিন্দু এলাকা দখল করার মাধমে অভিযান গুলো শেষ করেন।অভিযান গুলয়র মাঝে আছে পারামারাছ Paramaras,ভগল্‌স the Vaghelas, রনাস্থাম্বাপুরার ছামানাছ Chahamanas of Ranastambhapura এবং জালরি Jalore, গুইলাসের রাওয়াল এলাকা Rawal branch of the Guhilas,এবং জাবাপ্লাস the Yajvapalas. সেনাপতি মালিক কাফুর প্রাচীন ভিন্দাস , এলাকার দক্ষিণে বেশ কয়েকটি সফল সফল অভিযান পরিচালনা করেন। দেভগিরি Devagiri(1308),ভেরঙ্গলWarangal(1310) Dwarasamudra(1311)থেকে বিপুল পরিমাণের সম্পদ জব্দ করে নিয়ে আসেন।এই সকল সাহসী সৈন্যদের ভয়ে জাভাদা রাজা রামচন্দ্র কাকাতিয়ার রাজা প্রতাপারুদ্র এবং হয়সালার রাজা বাল্ললা চলে আসেন আলাউদ্দিন খিলজির করের অধীনে।মহাবীর সেনাপতি কাফুর আবার পাণ্ডু রাজ্যthe Pandya kingdom(1311) অবরোধ করে বিপুল সম্পদ, হাতি এবং ঘোড়া জব্দ করেন।
 
==রাজ্যজয়==
১,১৬০টি

সম্পাদনা