"বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

103.68.118.26 (আলাপ)-এর সম্পাদিত 3133661 নম্বর সংশোধনটি বাতিল করা হয়েছে
(পুরাতন তথ্য দ্বারা প্রবন্ধটি তৈরি। তাই এর উন্নতি কল্পে প্রবন্ধটি মুছে দিলাম)
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
(103.68.118.26 (আলাপ)-এর সম্পাদিত 3133661 নম্বর সংশোধনটি বাতিল করা হয়েছে)
ট্যাগ: পূর্বাবস্থায় ফেরত
{| class="wikitable" style="float: right; text-align: center; font-size: 96%;" width= 20%;
বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্হ একটি দেশ।
|-
| style="background: #DEEDDE" | ১. '''বাংলাদেশ'''
|-
| ২. মিয়ানমার
|-
| ৩. হন্ডুরাস
|-
| ৪. ভিয়েতনাম
|-
| ৫. নিকারাগুয়া
|-
| ৬. হাইতি
|-
| ৭. ভারত
|-
| ৮. ডমিনিক প্রজাতন্ত্র
|-
| ৯. ফিলিপাইন
|-
| ১০. চীন
|-
| style="background: #EDEDED" | জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকায় শীর্ষে বাংলাদেশ। সূত্র: জার্মান ওয়াচ।<ref name="KK2011"/>
|}
'''বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব''' বলতে বিশ্বব্যাপী [[ভূমণ্ডলীয় উষ্ণতা বৃদ্ধি|জলবায়ু পরিবর্তনের]] ফলে [[বাংলাদেশ|বাংলাদেশে]] যে অস্থায়ী কিংবা স্থায়ী নেতিবাচক এবং ইতিবাচক প্রভাব পড়ছে, তার যাবতীয় চুলচেরা বিশ্লেষণকে বোঝাচ্ছে। [[:en:United Nations Framework Convention on Climate Change|UNFCCC]] বৈশ্বিক উষ্ণায়নকে মানুষের কারণে সৃষ্ট<ref>[http://unfccc.int/cop9/se/present/jenkins.pdf Climate Change, an Introduction] (UNFCCC Climate Kiosk at CoP9), pg 32, 11 December 2003, UNFCCC</ref>, আর [[জলবায়ু|জলবায়ুর]] বিভিন্নতাকে অন্য কারণে সৃষ্ট জলবায়ুর পরিবর্তন বোঝাতে ব্যবহার করে। কিছু কিছু সংগঠন মানুষের কারণে সৃষ্ট পরিবর্তনসমূহকে মনুষ্যসৃষ্ট (anthropogenic) জলবায়ুর পরিবর্তন বলে। তবে একথা অনস্বীকার্য যে, বিশ্বব্যাপি জলবায়ুর পরিবর্তন শুধুমাত্র প্রাকৃতিক কারণেই নয়, এর মধ্যে মানবসৃষ্ট কারণও সামিল। এই নিবন্ধে "বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তন" বলতে শ্রেফ ''প্রাকৃতিক কারণে'' জলবায়ু পরিবর্তনকে বোঝানো হচ্ছে।
 
জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পরিবেশের বিপর্যয়ের এই ঘটনাকে [[গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার|বাংলাদেশ সরকারের]] [[বাংলাদেশ বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়]] কর্তৃক নব্বইয়ের দশকে প্রণীত ন্যাশনাল এনভায়রনমেন্ট ম্যানেজমেন্ট এ্যাকশন প্ল্যান (NEMAP)-এ দীর্ঘমেয়াদি সমস্যা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে।<ref name="Islam">{{বই উদ্ধৃতি |author=ড. মোঃ ময়নুল হক |editor= |title=ইসলাম: পরিবেশ সংরক্ষণ ও উন্নয়ন |url= |format=প্রিন্ট |accessdate=০৭ |accessyear=২০১০ |accessmonth=জুলাই |edition=জুন ২০০৩ |series= |date= |year= |month= |publisher=গবেষণা বিভাগ, ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ |location=ঢাকা |language=বাংলা |isbn=984-06-0775-8 |pages=৩৩২ |chapter=}}</ref> কোনো দেশে [[জলবায়ু পরিবর্তন|জলবায়ু পরিবর্তনের]] প্রভাব সত্যিই পড়ছে কিনা, তা চারটি মানদন্ডে বিবেচনা করা হয়:<br />
:১. জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে কারা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ
:২. কোথায় প্রাকৃতিক দুর্যোগ বেশি হচ্ছে
:৩. সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যা কোথায় ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে
:৪. ক্ষতিগ্রস্থ দেশটি ক্ষতি মোকাবিলায় বা অভিযোজনের জন্য এরই মধ্যে কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে।
বাংলাদেশে একাধারে সমুদ্রস্তরের উচ্চতা বৃদ্ধি, লবণাক্ততা সমস্যা, [[হিমালয়|হিমালয়ের]] বরফ গলার কারণে নদীর দিক পরিবর্তন, বন্যা ইত্যাদি সবগুলো দিক দিয়েই ক্ষতিগ্রস্থ হবে এবং হচ্ছে। এছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগের মাত্রাও অনেক অনেক বেশি। [[মালদ্বীপ]], [[টুভ্যালু]], [[ত্রিনিদাদ ও টোবাগো|টোবাগো]] -এদের সবার ক্ষেত্রেই এই সবগুলো মানদন্ডই কার্যকর নয়। তাছাড়া মালদ্বীপের মোট জনসংখ্যা বাংলাদেশের অনেক জেলার জনসংখ্যার চেয়েও কম।<ref name="PAMinistry">{{সংবাদ উদ্ধৃতি |title=জলবায়ু পরিবর্তন ভবিষ্যৎ নয়, বর্তমান বিপদ |author=শরিফুল হাসান |url= |format=প্রিন্ট |agency= |newspaper=''বিশেষ সংখ্যা'' দৈনিক প্রথম আলো |publisher= |location=ঢাকা |date=ডিসেম্বর ১৩, ২০০৯ খ্রিস্টাব্দ |page=১ |pages=৮ |at= |accessdate=জুলাই ২৮, ২০১০ খ্রিস্টাব্দ |language=বাংলা |note=বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব হাসান মাসুদের সাক্ষাৎকার এটি}}</ref> তাই এই চারটি মানদন্ডেই বাংলাদেশ, [[জলবায়ু পরিবর্তন|জলবায়ু পরিবর্তনে]] ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকায় শীর্ষে।
 
আন্তর্জাতিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ''জার্মান ওয়াচ''-এর ২০১০ খ্রিস্টাব্দে প্রকাশিত গ্লোবাল ক্লাইমেট রিস্ক ইনডেক্স (CRI) অনুযায়ী জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে ক্ষতির বিচারে শীর্ষ ১০টি ক্ষতিগ্রস্থ দেশের মধ্যে প্রথমেই অবস্থান করছে [[বাংলাদেশ]]। এই সমীক্ষা চালানো হয় ১৯৯০ থেকে ২০০৯ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত ১৯৩টি দেশের উপর। উল্লেখ্য, উক্ত প্রতিষ্ঠান কর্তৃক প্রকাশিত ২০০৭ এবং ২০০৮ খ্রিস্টাব্দের প্রতিবেদনেও বাংলাদেশ সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ দেশ।<ref name="KK2011">''"[http://www.dailykalerkantho.com/~dailykal/?view=details&archiev=yes&arch_date=29-11-2010&feature=yes&type=gold&data=Mobile&pub_no=354&cat_id=3&menu_id=0&news_type_id=3&index=1 জলবায়ু পরিবর্তনে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত বাংলাদেশ]"'', বাংলানিউজ২৪.কম। দৈনিক কালের কণ্ঠ। নভেম্বর ২৯, ২০১০ খ্রিস্টাব্দ। পরিদর্শনের তারিখ: এপ্রিল ১৪, ২০১১ খ্রিস্টাব্দ।</ref><ref name="Ittefaq2011">''"[http://www.ittefaq.com.bd/content/2011/01/17/news0439.htm জলবায়ু পরিবর্তনের বিপর্যয় এড়াতে বৈশ্বিক তহবিলে বাংলাদেশের দ্রুত প্রবেশ প্রয়োজন]"'', হাসান আলী; দৈনিক ইত্তেফাক, জানুয়ারি ১৭, ২০১১; পরিদর্শনের তারিখ: এপ্রিল ১৪, ২০১১ খ্রিস্টাব্দ।</ref> জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে সমুদ্রস্তরের উচ্চতা বৃদ্ধির কারণে ক্ষতিগ্রস্থতার বিচারে বিশ্বব্যাপী গবেষকগণ বাংলাদেশকে ''পোস্টার চাইল্ড'' (''Poster Child'') হিসেবে আখ্যা দিয়ে থাকেন।<ref name="Ittefaq2011"/>
 
== বাংলাদেশের ভৌগোলিক অবস্থান ও পরিবেশ ==