"বিল ডি ব্লাজিও" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সংশোধন (উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ও/বা অন্যান্য)
(হটক্যাটের মাধ্যমে বিষয়শ্রেণী:১৯৬১-এ জন্ম যোগ)
(সংশোধন (উদ্ধৃতি টেমপ্লেট ও/বা অন্যান্য))
{{তথ্যছক পদস্থ কর্মকর্তা
{{Infobox officeholder
|name = বিল ডি ব্লাজিও <br /> Bill de Blasio
|image = Bill de Blasio 11-2-2013.jpg
|successor2 = [[ব্র্যাড ল্যান্ডার]]
|birth_name = ওয়ারেন উইলহেল্ম জুনিয়র
|birth_date = {{birthজন্ম dateতারিখ and ageবয়স|1961|5|8}}
|birth_place = [[নিউ ইয়র্ক শহর]], [[নিউ ইয়র্ক (অঙ্গরাজ্য)|নিউ ইয়র্ক]], মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র<!-- As per WP:LINKDIRECT and Template:infobox person, birthplace indicates city, state, then country. No need to spell out "United States; 'U.S.' is fine. -->
|death_date =
'''বিল ডি ব্লাজিও''' ({{lang-en|Bill de Blasio}} জন্ম ৮ই মে, ১৯৬১) একজন মার্কিন রাজনীতিবিদ। তিনি ২০১৪ সাল থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তম শহর নিউ ইয়র্কের ১০৯তম নগরপাল বা মেয়র হিসেবে বর্তমানে দায়িত্বরত আছেন। নগরপাল পদে আসীন হওয়ার আগে ২০১০ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত তিনি নিউ ইয়র্ক শহরের গণপ্রবক্তার দায়িত্ব পালন করেন।<!-- The lack of citations is purposeful. Refer to Wikipedia:Manual of Style/Lead section#Citations for more information. Wikipedia allows there to be little to no citations in the lead area if it is cited within the main body. If there is something in the lede not cited in the main part drop a {{not found in body}} citation needed tag and it will be addressed. -->
 
ডি ব্লাজিও নিউ ইয়র্ক শহরের ম্যানহাটন বরোতে জন্মগ্রহণ করেন। এরপরে তিনি নিউ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি ও কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটি বিশ্ববিদ্যালয় দুইটিতে তাঁর উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করেন। এরপর তিনি স্বল্পকালের জন্য চার্লস রেঞ্জেল ও হিলারি ক্লিনটনের জন্য নির্বাচনী প্রচারণা ব্যবস্থাপক হিসেবে কাজ করেন। ২০০২ সালে ভোটে নির্বাচিত সরকারী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন; সে বছর তিনি নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিন বরোতে অবস্থিত ৩৯তম নগর জেলা থেকে নিউ ইয়র্ক নগর পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন এবং ২০০৯ সালে তিনি পরিষদের সদস্য ছিলেন। ২০১৩ সালে তিনি প্রথমবারের মত বিপুল ভোটে নিউ ইয়র্কের নগরপাল নির্বাচিত হন এবং ২০১৭ সালে ফিরতি নির্বাচনেও একই ব্যবধানে পুনরায় বিজয়ী হন।
 
ডি ব্লাজিও প্রথমবার নগরপাল নির্বাচিত হওয়ার পরে বিতর্কিত "স্টপ অ্যান্ড ফ্রিস্ক" (আটকানো ও দেহপরীক্ষা) কর্মকাণ্ডটিকে পুনঃসংগঠিত করেন এবং নিউ ইয়র্ক নগরীর আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মধ্যকার সম্পর্ক উষ্ণায়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। তিনি পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের দেহে পরিধেয় ক্যামেরার ব্যবহার প্রচলন করেন। ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বরের সন্ত্রাসী হামলার পরে শহরের মুসলমান অধিবাসীদের উপর যে নজরদারি কর্মকাণ্ডটি চালু হয়েছিল, তার অবসান করেন। তিনি সব শিশুর জন্য বিনামূল্যের প্রাক-কিন্ডারগার্টেন শিক্ষার বিধিটি পাশ করেন।
 
বিল ডি ব্লাজিও নিউ ইয়র্ক শহরের অর্থনৈতিক বৈষম্যের বিরুদ্ধে সোচ্চার বক্তব্য রেখে আসছেন। তিনি সামাজিকভাবে উদারপন্থী, প্রাগ্রসর এবং অর্থনৈতিকভাবে নব্য-উদারনীতিতে বিশ্বাসী। জনসমীক্ষাগুলিতে প্রায়শই তিনি ৪৫% থেকে ৬০% নিউ ইয়র্কবাসীর সমর্থন পেয়ে আসছেন।<ref>{{Citeওয়েব webউদ্ধৃতি|urlইউআরএল=https://poll.qu.edu/new-york-city/release-detail?ReleaseID=2475|titleশিরোনাম=QU Poll Release Detail|lastশেষাংশ=University|firstপ্রথমাংশ=Quinnipiac|websiteওয়েবসাইট=QU Poll|languageভাষা=en|accessসংগ্রহের-dateতারিখ=2018-04-15}}</ref><ref>{{Citeসংবাদ newsউদ্ধৃতি|urlইউআরএল=http://www.crainsnewyork.com/article/20170731/POLITICS/170739990/mayor-bill-de-blasios-popularity-takes-a-dive-amid-subway-crisis-as-quinnipiac-poll-finds-his-approval-at-about-50-percent|titleশিরোনাম=De Blasio's popularity takes a dive amid subway crisis|lastশেষাংশ=Bredderman|firstপ্রথমাংশ=Will|workকর্ম=Crain's New York Business|accessসংগ্রহের-dateতারিখ=2018-04-15}}</ref>
 
==তথ্যসূত্র==
৩,৪২,৬০৩টি

সম্পাদনা