"রবিন উইলিয়ামস" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

'মঞ্চ অভিনয়' পরিচ্ছেদ যোগ
(হটক্যাটের মাধ্যমে ± 3টি বিষয়শ্রেণী, সম্প্রসারণ)
('মঞ্চ অভিনয়' পরিচ্ছেদ যোগ)
১৯৯৭ সালে এন্টারটেনমেন্ট উইকলি তাকে ''পৃথিবীর সবচেয়ে মজার মানুষ'' উপাধি দেয়। বহু সিনেমা ও টেলিসিরিজে এই কৌতুকাভিনেতার অবিস্মরণীয় অভিনয় তাঁকে সব সময় আলোচিত করেছে। শুধু মাত্র কৌতুক চরিত্রেই নয়, বিভিন্ন গুরুগম্ভীর চরিত্রেও দাপটের সঙ্গে নিজের প্রতিভার প্রমান দিয়েছিলেন রবিন। ১৯৯৭ সালের ''[[গুড উইল হান্টিং]]'' ছবিতে শন ম্যাগুইয়াইর চরিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি [[শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কার]] লাভ করেন। এছাড়া তিনি তার কর্মজীবনে সাতটি [[গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার]], পাঁচটি [[গ্র্যামি পুরস্কার]], দুটি [[এমি পুরস্কার]], এবং দুটি [[স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার]] জয় করেন।
 
==কর্মজীবন==
===চলচ্চিত্র জীবন===
রবিন অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ১৯৯৭ সালের স্বল্প বাজেটের ''ক্যান আই ডু ইট... 'টিল আই নিড গ্লাসেস?''। এতে তিনি ছোট একটি ভূমিকায় অভিনয় করেন। তার প্রথম বড় কাজ ছিল ''পপাই'' (১৯৮০) ছবিতে নাম ভূমিকায় অভিনয়। এই ছবিতে রবিন পূর্বে তার টেলিভিশনে কাজের দক্ষতা কাজে লাগান এবং ছবিটি বাণিজ্যিকভাবে সফল না হলেও এই ব্যর্থতার দায়ভার তার অভিনয়ের ছিল না।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি | url = http://articles.philly.com/2014-08-13/news/52732960_1_golden-globe-aladdin-role | title = Robin Williams, 63, comic genius | first = Steven | last = Rea | date = August 13, 2014 | accessdate = August 18, 2014 | work =দ্য ফিলাডেলফিয়া ইনকোয়াইরার|language=ইংরেজি}}</ref><ref name="VF-20140812">{{ওয়েব উদ্ধৃতি|last=Spitznagel |first=Eric |title=Popeye Is the Best Movie Robin Williams Ever Made |url=http://www.vanityfair.com/vf-hollywood/2014/08/robin-williams-popeye |date=August 12, 2014 |work=[[Vanity Fair (magazine)|ভ্যানিটি ফেয়ার]]|language=ইংরেজি |accessdate=August 13, 2014 }}</ref> ১৯৮২ সালে তিনি ''দ্য ওয়ার্ল্ড অ্যাকর্ডিং টু গার্প'' ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন। রবিন এই ছবি সম্পর্কে পরে বলেন যে পর্দায় কাজের গভীরতা কম থাকলেও এতে গুরুতর বিষয় ছিল। এরপর তিনি ''দ্য সার্ভাইভার্স'' (১৯৮৩) এবং ''ক্লাব প্যারাডাইজ'' (১৯৮৬) ছবিতে ছোটখাট ভূমিকায় অভিনয় করেন। রবিন এই ছবিগুলো সম্পর্কে বলেন যে এগুলো তার চলচ্চিত্র জীবনের উন্নতিতে কোন ভূমিকা পালন করে নি।<ref name=Zehme>{{সংবাদ উদ্ধৃতি| last = Zehme | first = Bill | pages = 29–32 | date = February 25, 1988 | accessdate = August 18, 2014 | url = http://www.rollingstone.com/movies/features/robin-williams-the-rolling-stone-interview-19880225 | title = Robin Williams: The Rolling Stone Interview| work = [[রোলিং স্টোন]] |language=ইংরেজি}}</ref>
 
 
২০১৪ সালে মৃত্যুর সময় তার চারটি চলচ্চিত্র মুক্তির অপেক্ষাধীন ছিল, সেগুলো হল ''নাইট অ্যাট দ্য মিউজিয়াম: সিক্রেট অব দ্য টুম্ব'', ''আ মেরি ফ্রিজিন ক্রিসমান'', ''বলেভার্ড'' ও ''অ্যাবসোলেটলি অ্যানিথিং''।<ref>{{সংবাদ উদ্ধৃতি|শিরোনাম=CELEBRITY EXTRA|ইউআরএল=http://downriversundaytimes.com/2014/08/24/celebrity-extra-265|সংগ্রহের-তারিখ=২৯ জুলাই ২০১৮|কর্ম=ডাউনরিভার সানডে টাইমস|তারিখ=২৪ আগস্ট ২০১৪|ভাষা=en-US}}</ref>
 
===মঞ্চ===
উইলিয়ামস ১৯৮৮ সালে স্টিভ মার্টিনের সাথে লিংকন সেন্টারে অফ-ব্রডওয়ের ''[[ওয়েটিং ফর গোডো]]'' মঞ্চনাটকে অভিনয় করেন।<ref>{{Cite news|url = https://news.google.com/newspapers?nid=1298&dat=19881126&id=t_pNAAAAIBAJ&sjid=fIsDAAAAIBAJ&pg=4225,5378106|title = Still 'Waiting for Godot': Robin Williams, Steve Martin play it for laughs|last =কুচওয়ারা|first =মাইকেল|date =২৬ নভেম্বর ১৯৮৮|work =দ্য ফ্রি-ল্যান্স স্টার|accessdate =৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮|agency = AP}}</ref><ref>{{cite news |first=ফ্র্যাংক|last=রিচ |url=http://theater.nytimes.com/mem/theater/treview.html?res=940DE4DE1231F934A35752C1A96E948260 |title=Review/Theatre; 'Godot': The Timeless Relationship of 2 Interdependent Souls |newspaper=[[দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস]]|date=৭ নভেম্বর ১৯৮৮|accessdate=৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮}}{{subscription required|s}}</ref> তার ব্রডওয়ে মঞ্চে অভিষেক হয় রাজিব জোসেফের ''বেঙ্গল টাইগার অ্যাট দ্য বাগদাদ জু'' মঞ্চনাটক দিয়ে। নাটকটি ২০১১ সালের ৩১শে মার্চ রিচার্ড রজার্স থিয়েটারে প্রথমবার মঞ্চস্থ হয়।<ref>{{cite news |last=Isherwood |first=Charles |title=Ghostly Beast Burning Bright in Iraq |url=https://www.nytimes.com/2011/04/01/theater/reviews/bengal-tiger-with-robin-williams-review.html |accessdate=৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮|newspaper=[[দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস]]|date=৩১ মার্চ ২০১১}}</ref>
 
==পুরস্কার ও মনোনয়ন==
{{গোল্ডেন গ্লোব সেসিল বি. ডামিল পুরস্কার}}
{{ন্যাশনাল বোর্ড অব রিভিউ পুরস্কার শ্রেষ্ঠ অভিনেতা}}
{{স্যাটার্নস্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা - চলচ্চিত্র}}
{{স্যাটার্ন পুরস্কার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা - চলচ্চিত্র}}
{{স্যাটার্ন পুরস্কার শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা - চলচ্চিত্র}}
{{হাস্টি পুডিং বর্ষসেরা পুরুষ}}
}}
 
[[বিষয়শ্রেণী:গ্র্যামি পুরস্কার বিজয়ী]]
[[বিষয়শ্রেণী:প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার বিজয়ী]]
[[বিষয়শ্রেণী:স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড পুরস্কার (সেরা পার্শ্ব অভিনেতা - চলচ্চিত্র) বিজয়ী]]
[[বিষয়শ্রেণী:স্যাটার্ন পুরস্কার বিজয়ী]]