"মুমিনুন্নিসা সরকারি মহিলা কলেজ" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
ট্যাগ: মোবাইল সম্পাদনা মোবাইল ওয়েব সম্পাদনা
 
==ইতিহাস==
প্রায় ৭০ বছর পূর্বে বৃহত্তর ময়মনসিংহ এর নারীশিক্ষাকে বিস্তৃত করার উদ্দেশ্যে এই কলেজ স্থাপিত হয়। সর্বজনপরিচিত সমাজসেবক আলহ্বাজআলহাজ সজুতুর রহমান খান, মজুতুর রহমান খান (এম.আর খান),আলহ্বাজ আলহাজ ফয়েজ উদ্দিন খান, মফিজ উদ্দিন খান সাহেবদের মাতা মুমিনুন্নিসা এর নামে এই কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন। এম. আর. খান কোম্পানি ১৯৫২ সালে মুমিনুন্নিসা কলেজের ভূমি ক্রয় করে দালান তৈরি করেন এবংকরে। প্রথমে নিজেদের ব্যাবস্থাপনায়ব্যবস্থাপনায় এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটি পরিচালিত হতো ।হতো। এই কোম্পানিটি সকল ভাই এর সমন্বয়ে পার্টনারশিপ কোম্পানি যা ব্রিটিশ আমল থেকে চা, পাটের ব্যাবসা সহব্যবসাসহ অনেক ব্যাবসায়ব্যবসায় প্রতিষ্ঠিত ছিল। এই কলেজের অবকাঠামোর সিংহভাগ অর্থই এই কোম্পানি প্রদান করে। এম. আর. খান সাহেব নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন ধনী ও সমাজসেবক ব্যাক্তিগণেরব্যক্তিগণের নিকট হতেও কলেজের জন্য অর্থ সংগ্রহ করেন। বেগম মুমিনুন্নিসার জন্ম ময়মনসিংহ জেলার তারাকান্দা উপজেলার কামারগাও ইউনিয়নের উলামাকান্দি গ্রামে।পরিনত বয়সে পার্শবর্তি হুগলা ইউনিয়নে বিশিষ্ট গৃহস্ত মরহুম এলাদাত খান সাহেবের একমাত্র পুত্র জনাব দুর্লভ খান এর সহিত নিকা্হ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বেগম মুমিনুন্নিসা মৃত্যুর পর তারঁ শসুরবাড়ী নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার হুগলা ইউনিয়নের ভিকুনিয়া গ্রামে চীরশায়িত রয়েছেন।
 
গণশিক্ষা অধিদপ্ত্রের পরিচালক মোঃ শামসুল হক ২৯ শে জুলাই ১৯৫৯ সালে এই কলেজ উদ্বোধন করেন। কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল ছিলেন শিক্ষাবিদ আলহ্বাজ রিয়াজউদ্দিন আহমেদ।
বেগম মুমিনুন্নিসার জন্ম [[ময়মনসিংহ জেলা]]র [[তারাকান্দা উপজেলা]]র কামারগাও ইউনিয়নের উলামাকান্দি গ্রামে। পরিণত বয়সে পার্শ্ববর্তী হুগলা ইউনিয়নে বিশিষ্ট গৃহস্থ মরহুম এলাদাত খান সাহেবের একমাত্র পুত্র জনাব দুর্লভ খান এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বেগম মুমিনুন্নিসার মৃত্যুর পর তাঁর শ্বশুরবাড়ি [[নেত্রকোনা জেলা]]র [[পূর্বধলা উপজেলা]]র হুগলা ইউনিয়নের ভিকুনিয়া গ্রামে চিরশায়িত আছেন।
বিজ্ঞান শাখা চালু হয় ১৯৬১ সালে। কলেজটি ডিগ্রী কলেজে উন্নীত হয় ১৯৬৩ সালে। ১৯৮০ সালের মার্চে কলেজটি সরকারীকরণ করা হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ১৯৯৮-৯৯ সেশনে ছয়টি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু করা হয়। মাস্টার্স কোর্স শুরু হয় ২০০১-২০০২ সেশনে। উদ্ভিদবিদ্যায় ২০১৩-১৪ সেশনে ও প্রাণীবিদ্যায় অনার্স ২০১৪-১৫ সেশনে চালু হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি| url=http://www.muminunnisacollege.com/history |title=ইতিহাস}}</ref>
 
গণশিক্ষা অধিদপ্ত্রেরঅধিদপ্তরের পরিচালক মোঃ শামসুল হক [[২৯ শে জুলাই]] [[১৯৫৯]] সালে এই কলেজ উদ্বোধন করেন। কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল ছিলেন শিক্ষাবিদ আলহ্বাজআলহাজ রিয়াজউদ্দিন আহমেদ।
 
কলেজটিতে বিজ্ঞান শাখা চালু হয় ১৯৬১ সালে। কলেজটি ডিগ্রী কলেজে উন্নীত হয় ১৯৬৩ সালে। ১৯৮০ সালের মার্চে কলেজটি সরকারীকরণসরকারিকরণ করা হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ১৯৯৮-৯৯ সেশনে ছয়টি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু করা হয়। মাস্টার্স কোর্স শুরু হয় ২০০১-২০০২ সেশনে। উদ্ভিদবিদ্যায় ২০১৩-১৪ সেশনে ও প্রাণীবিদ্যায় অনার্স ২০১৪-১৫ সেশনে চালু হয়।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি| url=http://www.muminunnisacollege.com/history |title=ইতিহাস}}</ref>
 
==প্রাতিষ্ঠানিক ব্যবস্থা==