"রিচার্ড উইডমার্ক" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

সম্পাদনা সারাংশ নেই
== প্রারম্ভিক জীবন ==
উইডমার্ক ডিসেম্বর ২৬, ১৯১৪ খৃষ্টাব্দে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের সানরাইজ টাউনশিপে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা-মাতা ছিলেন কার্ল হেনরি উইডমার্ক এবং এথেল মে। তাঁর পিতা ছিলেন সুইডিশ বংশোদ্ভূত আমেরিকান এবং তাঁর মাতা ছিলেন ইংরেজ ও স্কটিশ বংশোদ্ভূত। তিনি বেড়ে ওঠেন ইলিনয় অঙ্গরাজ্যের প্রিন্সটনে, এবং তাঁর পিতার পেশার কারণে তাঁদেরকে বিভিন্ন স্থানে থাকতে হতো। তিনি লেক ফরেস্ট কলেজে অভিনয়ের উপর পড়াশোনা করেন, এবং বি এ পাশ করার পর তিনি সেখানে অভিনয়ের শিক্ষক হিসেবে কাজ করেন।
 
== বেতার ==
উইডমার্কের অভিনয় জীবন শুরু হয় ১৯৩৮ সালে, আন্ট জেনিয রিয়াল লাইফ স্টোরিয নামে রেডিও অনুষ্ঠানের মাধ্যমে। ৪০-এর দশকে বিভিন্ন বেতার অনুষ্ঠানে তাঁর কন্ঠ শোনা যেত, যেমন গ্যাং বাস্টার্স, দ্য শ্যাডো, ইনার স্যাংটাম মিস্টেরিয, জয়েস জর্ডান এম ডি, মোল মিস্টেরি থিয়েটার, এথেল এন্ড এলবার্ট ইত্যাদি।
 
== ব্রডওয়ে ==
উইডমার্ক ১৯৪৩ সালে এফ হিউয হার্বার্টের “কিস এন্ড টেল” নামক ব্রডওয়ে শো’তে অভিনয় করেন। কানের পর্দা ফুটো হয়ে যাওয়ার কারণে তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে অংশ নিতে পারেননি। তিনি যখন শিকাগো শহরে “ড্রীম গার্ল” নামক মঞ্চ নাট্যে অভিনয় করছিলেন তখন টোয়েন্টিয়েথ সেঞ্চুরী ফক্স তাঁর সাথে ৭ বছর মেয়াদি একটি চুক্তি করে।
 
== চলচ্চিত্র ==
 
=== কিস অফ ডেথ ===
উইডমার্কের প্রথম চলচ্চিত্রাভিনয় ছিল ১৯৪৭ সালের “কিস অফ ডেথ” ছায়াছবিতে।  চলচ্চিত্রটিতে তিনি টমি উডো নামের চাপা হাসিমাখা একজন চিত্তবিকারগ্রস্তের ভূমিকায় অভিনয় করেন। তাঁর বিখ্যাত দৃশ্যটি ছিল যেখানে উডো হুইল চেয়ারে বসা একজন বিকলাঙ্গ নারীকে সিঁড়ি থেকে ফেলে দিয়ে হত্যা করে। এই ছায়াছবিতে উইডমার্কের অভিনয় করা নিয়ে বিতর্ক ছিল। উইডমার্ক বলেন “পরিচালক হেনরি হ্যাথাওয়ে আমাকে চাননি। আমার ছিল উঁচু ললাট, এবং হ্যাথাওয়ের মতে তা আমাকে একজন জ্ঞানী ব্যক্তির মত দেখাত।“ ছবিটি সমালোচনা এবং বাণিজ্যিক দিক থেকে সফল ছিল। উইডমার্ক বছরের নতুন তারকা হিসেবে গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার অর্জন করেন এবং পার্শ্ব অভিনেতার হিসেবে অস্কারের মনোনয়ন পান।
 
এই সফলতার পর তিনি বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে খলনায়কের ভূমিকায় অভিনয় করেন, যেমন দ্য স্ট্রীট উইথ নো নেইম (১৯৪৮), রোড হাউয (১৯৪৮), এবং একটি ওয়েস্টার্ন চলচ্চিত্র ইয়েলো স্কাই (১৯৪৮) যেটাতে তিনি অভিনয় করেন গ্রেগরি পেক ও এন ব্যাক্সটারের সাথে।
৫৮৬টি

সম্পাদনা